স্যামসনের রান না নেওয়ার সিদ্ধান্তকে সমর্থন দিলেন সাঙ্গাকারা

স্যামসনের বীরত্বের পরও সোমবার রাতে আইপিএলে রাজস্থান রয়্যালস হেরেছে ৪ রানে।
sangakkara sanju
ছবি: আইপিএল টুইটার

শেষ ২ বলে চাই ৫ রান। স্ট্রাইকে সেঞ্চুরিয়ান সাঞ্জু স্যামসন। পঞ্চম বলে রান নেওয়ার সুযোগ থাকলেও তিনি ফেরত পাঠান বড় শট খেলার সামর্থ্য রাখা ক্রিস মরিসকে। শেষ বলে সমীকরণ অবশ্য মেলাতে পারেননি এই ভারতীয় ব্যাটসম্যান। ছক্কা হাঁকাতে গিয়ে ডিপ কভারের সীমানার কাছে ক্যাচ দেন তিনি। তাতে হেরে যায় রাজস্থান রয়্যালস। রান না নেওয়ার ওই ঘটনা নিয়ে ম্যাচ চলাকালেই শুরু হয় আলোচনা-সমালোচনা। তবে স্যামসনের সিদ্ধান্তকে সমর্থন দিচ্ছেন রাজস্থানের ক্রিকেট পরিচালক কুমার সাঙ্গাকারা।

স্যামসনের বীরত্বের পরও সোমবার রাতে আইপিএলে পাঞ্জাব কিংস জিতেছে ৪ রানে। মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ৬ উইকেটে ২২১ রান তোলে তারা। জবাবে রাজস্থান পৌঁছাতে পারে ৭ উইকেটে ২১৭ রান পর্যন্ত। চলমান আসরে প্রথম সেঞ্চুরির নজির গড়ে দলটির অধিনায়ক স্যামসন করেন ১১৯ রান। তার ৬৩ বলের বিস্ফোরক ইনিংসে ছিল ১২ চার ও ৭ ছক্কা।

স্যামসন একক নৈপুণ্যে রাজস্থানকে জয়ের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে যান। প্রয়োজন ও পরিস্থিতি অনুযায়ী অসাধারণ ইনিংসটিকে তিনি সাজান আপন মহিমায়। প্রথম ২২ বলে তার সংগ্রহ ছিল ২৯ রান। মুখোমুখি হওয়া পরের ৪১ বলে এই ডানহাতি নেন ৯০ রান! কিন্তু শেষটা রাঙাতে পারেননি। তাতে রান উৎসবের ম্যাচের নিষ্পত্তি হয় রোমাঞ্চ, নাটকীয়তা আর আনন্দ-বেদনার কাব্যে।

হারলেও ম্যাচের পর ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে স্যামসনের প্রশংসায় সাঙ্গাকারা বলেছেন, ‘আমি মনে করি, সাঞ্জু খেলা শেষ করার ব্যাপারে নিজের ওপর ভরসা রেখেছিল। সে কাজটা প্রায় করেও ফেলেছিল। শেষ বলটা আর পাঁচ-ছয় গজ গেলেই ছয় হয়ে যেত। যখন কেউ জানে যে, সে বল খুব ভালোভাবে মারছে এবং ফর্মে আছে, তখন তাকে দায়িত্ব নিতে হয়। সাঞ্জুকে এমন কিছু করতে দেখাটা উৎসাহব্যঞ্জক ছিল।’

রান না নেওয়ায় স্যামসনের কোনো দোষ দেখছেন না শ্রীলঙ্কার এই সাবেক তারকা ব্যাটসম্যান। বরং তিনি খুঁজে পেয়েছেন কিছু ইতিবাচক দিক, ‘আমরা সবাই ওই না নেওয়া সিঙ্গেলটা নিয়ে কথা বলতে পারি। তবে আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ হলো, খেলোয়াড়দের প্রত্যয় ও মানসিকতা এবং নিজেদের শক্তির জায়গা সম্পর্কে জানা। সাঞ্জু খেলা শেষ করার দায়িত্ব নিজের কাঁধে নিয়েছিল এবং সে মাত্র অল্প কয়েকটা রান দূরে থেমেছে।’

কিংবদন্তি ক্রিকেটার সাঙ্গাকারা ভবিষ্যতের জন্য শুভকামনাও জানিয়েছেন স্যামসনকে, ‘আমি মনে করি, সামনে যখন এরকম পরিস্থিতি আবার আসবে, আরও দশ গজ দূরে বল পাঠিয়ে সে আমাদেরকে জেতাবে।’

উল্লেখ্য, স্যামসন রান না নিয়ে যখন স্ট্রাইক নিজের কাছে রাখেন, তখন মরিসকে বেশ বিস্মিত হতে দেখা যায়। তবে ওই ঘটনার সময় ৪ বল খেলা দক্ষিণ আফ্রিকান অলরাউন্ডারের রান ছিল মাত্র ২। ১৬ কোটি ২৫ লাখ রুপিতে রাজস্থানে যোগ দেওয়া মরিস শেষ ওভারে একটি ফুল টস পেয়েও নিতে পারেন কেবল ১ রান।

Comments

The Daily Star  | English
Bangladesh Reference Institute for Chemical Measurements (BRiCM) developed a dengue rapid antigen kit

Diagnose dengue with ease at home

People who suspect that they have dengue may soon breathe a little easier as they will not have to take on the hassle of a hospital visit to confirm or dispel the fear.

10h ago