চাহারের বিধ্বংসী বোলিংয়ে হেসেখেলে পাঞ্জাবকে হারাল চেন্নাই

২৬ বল হাতে রেখে ৬ উইকেটে জিতেছে চেন্নাই।
deepak chahar
ছবি: টুইটার

সুইং-স্লোয়ারের সমন্বয়ে বিধ্বংসী বোলিংয়ের পসরা সাজিয়ে বসলেন দীপক চাহার। এই পেসার শুরুতেই এলোমেলো করে দিলেন পাঞ্জাব কিংসের শক্তিশালী ব্যাটিং লাইনআপ। শাহরুখ খানের কল্যাণে দলটি কোনোক্রমে একশ পার করলেও তা দিয়ে লড়াই চলেনি। ফ্যাফ ডু প্লেসি ও মঈন আলীর ব্যাটে চড়ে অনায়াসে জিতল চেন্নাই সুপার কিংস।

শুক্রবার মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামের উইকেট ছিল কিছুটা মন্থর। বল পড়ে ধীরে আসছিল ব্যাটে। তাতে ব্যাটসম্যানদের দিতে হয় সামর্থ্য ও দৃঢ়তার পরীক্ষা। চেন্নাই উতরে গেলেও পাঞ্জাবের জানা ছিল না পেরোনোর উপায়।

টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ৮ উইকেটে ১০৬ রানের মামুলি স্কোর গড়ে পাঞ্জাব। জবাবে ২৬ বল হাতে রেখে ৬ উইকেটে জিতেছে চেন্নাই। আইপিএলের এবারের আসরে এটি তাদের প্রথম জয়। 

৪ ওভারের কোটা পূরণ করে ১৩ রানে ৪ উইকেট নেন ডানহাতি দীপক। আইপিএলে এটাই তার সেরা বোলিংয়ের নজির। মোট ডেলিভারির তিন-চতুর্থাংশ অর্থাৎ ১৮টি ডট দেন তিনি। ইনিংসের প্রথম ওভার থেকে তাকে দিয়ে টানা বোলিং করিয়ে স্পেল শেষ করান চেন্নাইয়ের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি।

লক্ষ্য তাড়ায় চেন্নাইয়ের শুরুটাও ভালো হয়নি। পঞ্চম ওভারের শেষ বলে হাঁসফাঁস করতে থাকা ঋতুরাজ গায়কোয়াড়কে হারায় তারা। ১৬ বল খেলে মোটে ৫ রান করেন তিনি। তখন দলটির স্কোরবোর্ডে রান ২৪।

ঘাবড়ে না গিয়ে দেখশুনে খেলতে থাকেন ডু প্লেসি ও মঈন। প্রতি ওভারেই বাউন্ডারি আদায় করে নেন তারা। তাদের ৪৬ বলে ৬৬ রানের জুটিতে জয় নিশ্চিত হয়ে যায় চেন্নাইয়ের। ৩১ বলে ৭ চার ও ১ ছয়ে ৪৬ রান করেন ইংলিশ অলরাউন্ডার মঈন।

এরপর মোহাম্মদ শামি পরপর দুই বলে সুরেশ রায়না ও আম্বাতি রাইডুকে বিদায় করলেও বিপাকে পড়েনি চেন্নাই। স্যাম কারানকে নিয়ে বাকিটা সারেন ডু প্লেসি। এই দক্ষিণ আফ্রিকান ৩৩ বলে ৩৬ রানে অপরাজিত থাকেন।

moeen ali
ছবি: টুইটার

এর আগে ব্যাটিংয়ে নেমে চাহারের তোপের মুখে পড়ে পাঞ্জাব। চতুর্থ বলেই তার সুইংয়ে পরাস্ত হন মায়াঙ্ক আগারওয়াল। রানের খাতা খুলতে পারেননি তিনি। অধিনায়ক লোকেশ রাহুল রানআউটে কাটা পড়েন রবীন্দ্র জাদেজার দুর্দান্ত থ্রোতে।

১৫ রানে ২ ওপেনারকে হারানো প্রতিপক্ষকে চেপে ধরে নিজের তৃতীয় ওভারে জোড়া শিকার ধরেন দীপক।  ক্রিস গেইল আগেই ব্যাট চালিয়ে শর্ট কভারে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন। জীবন পেলেও কাজে লাগাতে পারেননি ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই তারকা। দীপকের আগের ওভারে ক্যাচ তুলেও বেঁচে গিয়েছিলেন তিনি।

দুই বলের ব্যবধানে পুল করতে গিয়ে আউট হন আরেক ক্যারিবিয়ান নিকোলাস পুরান। তিনিও মারেন ডাক। পাওয়ার প্লের ৬ ওভার শেষে পাঞ্জাবের স্কোর দাঁড়ায় ৪ উইকেটে ২৬। পরের ওভারটি উইকেট-মেডেন নেন দীপক। তার সুইংয়ে দিশেহারা হয়ে মিড অফে ডু প্লেসির তালুবন্দি হন দীপক হুডা।

আগের ম্যাচে ২২১ রান তোলা পাঞ্জাব বিপর্যয় থেকে আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি। তবে দলকে তিন অঙ্ক ছোঁয়ার আগে থামার অনাকাঙ্ক্ষিত পরিস্থিতি থেকে রক্ষা করেন শাহরুখ। ছয়ে নেমে ৩৬ বলে ৪৭ রান করেন তিনি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

পাঞ্জাব কিংস: ১০৬/৮ (২০ ওভারে) (রাহুল ৫, মায়াঙ্ক ০, গেইল ১০, দীপক ১০, পুরান ০, শাহরুখ ৪৭, রিচার্ডসন ১৫, মুরুগান ৬, শামি ৯*, মেরেডিথ ০*; দীপক ৪/১৩, কারান ১/১২, শার্দুল ০/৩৫, জাদেজা ০/১৯, মঈন ১/১৭, ব্রাভো ১/১০)।

চেন্নাই সুপার কিংস: ১০৭/৪ (১৫.৪ ওভারে) (গায়কোয়াড় ৫, ডু প্লেসি ৩৬*, মঈন ৪৬, রায়না ৮, রাইডু ০, কারান ৫*; শামি ২/২১, রিচার্ডসন ০/২১,আর্শদীপ ১/৭, মেরেডিথ ০/২১, মুরুগান ১/৩২)।

ফল: চেন্নাই ৬ উইকেটে জয়ী।

Comments

The Daily Star  | English
fire incident in dhaka bailey road

Fire Safety in High-Rise: Owners exploit legal loopholes

Many building owners do not comply with fire safety regulations, taking advantage of conflicting legal definitions of high-rise buildings, said urban experts after a deadly fire on Bailey Road claimed 46 lives.

1h ago