করোনাভাইরাস

ভারতে আজও রেকর্ড: একদিনে মৃত্যু ২১০৪, শনাক্ত ৩ লাখের বেশি

ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও দুই হাজার ১০৪ জন। এটিই এখন পর্যন্ত দেশটিতে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু। করোনায় এ পর্যন্ত ভারতে মারা গেছেন এক লাখ ৮৪ হাজার ৬৫৭ জন।
আহমেদাবাদে হাসপাতালে প্রবেশের আগে অ্যাম্বুলেন্সেই করোনা আক্রান্ত এক রোগীর অক্সিজেনের মাত্রা পরিমাপ করা হচ্ছে। ২২ এপ্রিল ২০২১। ছবি: রয়টার্স

ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও দুই হাজার ১০৪ জন। এটিই এখন পর্যন্ত দেশটিতে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু। করোনায় এ পর্যন্ত ভারতে মারা গেছেন এক লাখ ৮৪ হাজার ৬৫৭ জন।

একই সময়ে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও তিন লাখ ১৪ হাজার ৮৩৫ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এটিই এখন এখন পর্যন্ত দেশটিতে ও বিশ্বে একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত। ভারতে মোট এক কোটি ৫৯ লাখ ৩০ হাজার ৯৬৫ জন শনাক্ত হয়েছেন। সংক্রমণের দিক থেকে বিশ্বের মধ্যে ভারতের অবস্থান বর্তমানে দ্বিতীয়তে।

গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও এক লাখ ৭৮ হাজার ৮৪১ জন। মোট সুস্থ হয়েছেন এক কোটি ৩৪ লাখ ৫৪ হাজার ৮৮০ জন।

আজ বৃহস্পতিবার ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সংক্রমণ সবচেয়ে বেশি মহারাষ্ট্রে। এরপর রয়েছে কেরালা, কর্ণাটক, তামিল নাড়ু, অন্ধ্রপ্রদেশ, উত্তর প্রদেশ ও দিল্লি। গত ২৪ ঘণ্টায় মহারাষ্ট্রে শনাক্ত হয়েছেন ৬৭ হাজার ৪৬৮ জন।

দেশটিতে মোট শনাক্ত এক কোটি ৫৯ লাখ ৩০ হাজার ৯৬৫ জনের মধ্যে বর্তমানে আক্রান্ত রয়েছেন ২২ লাখ ৯১ হাজার ৪২৮ জন।

গত ১৫ এপ্রিল থেকেই দেশটিতে ধৈনিক দুই লাখের বেশি রোগী শনাক্ত হচ্ছে। এর মধ্যে দৈনিক শনাক্ত গতকাল প্রায় তিন লাখ হলেও আজ তা তিন লাখ ছাড়াল।

ভারতে এখন পর্যন্ত ১৩ কোটির বেশি মানুষকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে বলে জানানো হয়েছে এনডিটিভির প্রতিবেদনে।

রয়টার্সের তথ্য অনুযায়ী, গত জানুয়ারিতে যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে দুই লাখ ৯৭ হাজার ৪৩০ জন শনাক্ত হয়। এরপর আজ বিশ্বের মধ্যে ভারতে একদিনে সর্বোচ্চ সংখ্যক রোগী শনাক্ত হলো।

ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিকেল রিসার্চের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে আরটি-পিসিআর ও অ্যান্টিজেন পদ্ধতিতে ১৬ লাখ ৫১ হাজার ৭১১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। আর এখন পর্যন্ত পরীক্ষা করা হয়েছে ২৭ কোটি ২৭ লাখ পাঁচ হাজার ১০৩টি নমুনা।

পরিসংখ্যান নিয়ে কাজ করা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, ভারতের মোট জনসংখ্যা ১৩৯ কোটির বেশি। সেখানে প্রতি ১০ লাখ মানুষের মধ্যে গড়ে এক লাখ ৯৬ হাজার ৬৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। আর বাংলাদেশে জনসংখ্যা ১৬ কোটি ৬০ লাখের বেশি। এখানে প্রতি ১০ লাখ মানুষের মধ্যে গড়ে ৩১ হাজার ৬২৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৩০ জানুয়ারি ভারতে প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়। জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির করোনাভাইরাস রিসোর্স সেন্টারের তথ্য অনুযায়ী, সংক্রমণের দিক থেকে বর্তমানে বিশ্বে ভারতের অবস্থান দুই নম্বরে। ভারতের আগে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও পরে ব্রাজিল।

জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১৪ কোটি ৩৫ লাখ ২৮ হাজার ১৬২ জন এবং মারা গেছেন ৩০ লাখ ৫৬ হাজার ৪০ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন আট কোটি ২৪ লাখ ১৭ হাজার ৭৩৪ জন।

আরও পড়ুন:

ভারতে নতুন রেকর্ড: একদিনে মৃত্যু ২০২৩, শনাক্ত প্রায় ৩ লাখ

ভারতে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড মৃত্যু ১৭৬১, শনাক্ত ২ লাখ ৫৯ হাজার ১৭০

ভারতে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড শনাক্ত ও মৃত্যু

একদিনে শনাক্তে ভারতের বিশ্ব রেকর্ড

ভারতে একদিনে রেকর্ড শনাক্ত ২ লাখ ৩৪ হাজার ৬৯২, মৃত্যু ১৩৪১

ভারতে প্রতিদিন ভাঙছে শনাক্তের রেকর্ড: আজ ২ লাখ ১৭ হাজার ৩৫৩, মৃত্যু ১১৮৫

ভারতে একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত ২ লাখ ৭৩৯, মৃত্যু ১০৩৮

ভারতে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড শনাক্ত ১ লাখ ৮৪ হাজার ৩৭২, মৃত্যু ১০২৭

ভারতে আজ শনাক্ত ১ লাখ ৬১ হাজার ৭৩৬, মৃত্যু ৮৭৯

ভারতে একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত ১৬৮৯১২, মৃত্যু ৯০৪

ভারতে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড শনাক্ত ১৫২৮৭৯, মৃত্যু ৮৩৯

ভারতে ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ১৪৫৩৮৪, মৃত্যু ৭৯৪

ভারতে ২৪ ঘণ্টায় শনাক্ত ১৩১৯৬৮, মৃত্যু ৭৮০

ভারতে নতুন রেকর্ড: একদিনে শনাক্ত ১২৬৭৮৯, মহারাষ্ট্রে ৫৯৯০৭

ভারতে ২৪ ঘণ্টায় রেকর্ড শনাক্ত ১১৫৭৩৬, মহারাষ্ট্রে ৫৫৪৬৯

ভারতে একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত লাখের বেশি, মহারাষ্ট্রে ৫৭০৭৪

Comments

The Daily Star  | English

Student politics, Buet and ‘Smart Bangladesh’

General students of Buet have been vehemently opposing the reintroduction of student politics on their campus, the reasons for which are powerful, painful, and obvious.

41m ago