নির্বাচন কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে ‘হত্যা মামলা’ হওয়া উচিত: মাদ্রাজ হাইকোর্ট

ভারতের নির্বাচন কমিশনকে তীব্র ভাষায় তিরস্কার করে মাদ্রাজ হাইকোর্ট বলেছেন, মহামারির মধ্যে রাজনৈতিক জনসভা করার অনুমতি দেওয়ার জন্য নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগে মামলা হওয়া উচিত।
ছবি: দ্য স্টেটসম্যান

ভারতের নির্বাচন কমিশনকে তীব্র ভাষায় তিরস্কার করে মাদ্রাজ হাইকোর্ট বলেছেন, মহামারির মধ্যে রাজনৈতিক জনসভা করার অনুমতি দেওয়ার জন্য নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে হত্যার অভিযোগে মামলা হওয়া উচিত।

নির্বাচনের সময় স্বাস্থ্য বিধি অনুসরণের বিষয়ে একটি রিট আবেদনের শুনানি চলাকালে আজ সোমবার মাদ্রাজ হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি সঞ্জীব ব্যানার্জির নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ এ মন্তব্য করেছে।

সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কথা উল্লেখ করে কমিশনের আইনজীবীকে আদালত জিজ্ঞাসা করেন, ‘যখন নির্বাচনী সমাবেশ চলছিল তখন আপনি কি অন্য কোনো গ্রহে ছিলেন?’

আদালতের নির্দেশ থাকার পরও রাজনৈতিক দলগুলোর সমাবেশে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে স্বাস্থ্য প্রোটোকল প্রয়োগ করতে ব্যর্থ হয়েছে এবং নির্বাচনী প্রচারণায় মাস্ক বা স্যানিটাইজার ব্যবহার করা হয়নি, এমনকি সামাজিক দূরত্বও বজায় ছিল না বলে আদালত উল্লেখ করেন।

মাদ্রাজ হাইকোর্ট নির্বাচন কমিশনকে আগামী ৩০ এপ্রিলের মধ্যে দক্ষিণ ভারতের তামিলনাড়ুর একটি আসনের ভোট গণনায় স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়ে পরিকল্পনা জমা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। নির্বাচন কমিশন এবং তামিলনাড়ুর প্রধান নির্বাচন কর্মকর্তা সত্যব্রত সাহুকে রাজ্যের স্বাস্থ্য সচিবের সঙ্গে এ বিষয়ে পরামর্শ করতে বলেছেন আদালত।

পরিকল্পনা জমা দিতে ব্যর্থ হলে ২ মে ভোট গণনা বন্ধ করে দেওয়ার কথা জানিয়ে দিয়েছেন আদালত।

প্রধান বিচারপতি সঞ্জীব ব্যানার্জি বলেন, ‘জনস্বাস্থ্যের বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং কর্তৃপক্ষকে তা স্মরণ করিয়ে দেওয়াটা দুঃখজনক। বেঁচে থাকলেই কেবল জনগণ গণতান্ত্রিক অধিকার ভোগ করতে পারবে।’

Comments

The Daily Star  | English

Govt primary schools to be shut from tomorrow till April 27 due to heatwave

The government has decided to keep all public primary schools closed from April 21 to April 28 due to the severe heatwave sweeping the country.

5m ago