দংশন করা সাপ মেরে সঙ্গে নিয়েই হাসপাতালে!

দংশন করা সাপ পিটিয়ে মেরে সঙ্গে নিয়ে হাসপাতালে হাজির হয়েছেন চুয়াডাঙ্গার এক ব্যক্তি। বর্তমানে তিনি চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।
ছবি: সংগৃহীত

দংশন করা সাপ পিটিয়ে মেরে সঙ্গে নিয়ে হাসপাতালে হাজির হয়েছেন চুয়াডাঙ্গার এক ব্যক্তি। বর্তমানে তিনি চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

আজ রবিবার সকালে হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক ডা. সৌরভ হোসেন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, বজলুল আহমেদ (৪০) নামে ব্যক্তি গতকাল সকালে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। তার বাড়ি চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার কামালপুর গ্রামে।

তিনি আরও বলেন, ‘গতকাল বজলুল আহমেদ হাসপাতালে আসার পরে আমরা জানতে চাই কী ধরনের সাপ কামড় দিয়েছে, দেখতে কেমন। তখন তিনি সাদা রঙের একটি কাপড়ের ব্যাগ থেকে একটি মৃত সাপ বের করেন। ঘটনার আকস্মিকতায় হতবাক হয়ে পড়েছিলেন উপস্থিত সবাই। বিষধর সাপ হওয়ায় তাকে ভর্তি রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।’

বজলুল আহমেদ সাংবাদিকদের বলেন, শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে বাড়ির পাশে রাস্তার ধারে দাঁড়িয়ে তিনি মোবাইল ফোনে কথা বলছিলেন। সে সময় তার পায়ে একটি সাপ ছোবল দেয়। তিনি নিজেই সাপটিকে পিটিয়ে মেরে বাসায় গিয়ে পা ভালো করে বেঁধে আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যান।

ডা. সৌরভ হোসেন আরও বলেন, বজলুলকে গোখরা সাপ কামড় দিয়েছিল। বর্তমানে তার শারীরিক অবস্থা ভালো।

Comments