রাবিতে ‘অবৈধ’ নিয়োগের সঙ্গে জড়িতদের বিচার দাবি সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) সদ্য সাবেক উপাচার্য আবদুস সোবহানের মেয়াদের শেষ দিনে সরকারের নিষেধ অমান্য করে ১৩৭ জনকে নিয়োগের ঘটনায় জড়িতদের বিচার দাবি করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট।
rajshahi university
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়। ফাইল ছবি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) সদ্য সাবেক উপাচার্য আবদুস সোবহানের মেয়াদের শেষ দিনে সরকারের নিষেধ অমান্য করে ১৩৭ জনকে নিয়োগের ঘটনায় জড়িতদের বিচার দাবি করেছে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট।

আজ শনিবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ দাবি জানায় সংগঠনটি।

বিবৃতিতে সংগঠনের আহ্বায়ক রিদম শাহরিয়ার ও সাধারণ সম্পাদক নাহিন আহম্মেদ বলেন, ‘৬ মে ছিল উপাচার্য আবদুস সোবহানের শেষ কর্মদিবস। গণমাধ্যম থেকে আমরা জানতে পেরেছি উপাচার্য ওই দিন ১৩৭ জনকে দলীয়ভাবে নিয়োগ দিয়েছেন। উপাচার্যের এই নিয়োগ প্রশাসনিক স্বৈরতন্ত্রের বহিঃপ্রকাশ, যা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বায়ত্তশাসনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। বিশ্ববিদ্যালয়ে দলীয় শাসন কায়েম করতে উপাচার্য এই নিয়োগ দিয়েছেন।’

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, ‘উপাচার্যের বিরুদ্ধে আগেও দুর্নীতির অভিযোগ ছিল। এই নিয়োগের মধ্য দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাসে একটি কলঙ্কজনক ঘটনার সৃষ্টি হলো। অবিলম্বে এই দুর্নীতিবাজ উপাচার্যের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হোক।’

উল্লেখ্য, ইউজিসির তদন্তে রাবিতে অনিয়মের কথা উঠে আসার পর গত বছরের ১০ ডিসেম্বর সব ধরনের নিয়োগ কার্যক্রম পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত স্থগিত রাখতে উপাচার্য আবদুস সোবহানকে নির্দেশ দিয়েছিল শিক্ষা মন্ত্রণালয়। কিন্তু তা উপেক্ষা করে উপাচার্য তার মেয়াদের শেষ কর্মদিবসে গত বৃহস্পতিবার বিভিন্ন পদে ১৩৭ জনকে অস্থায়ী ভিত্তিতে (এডহক) নিয়োগ দেন।

Comments

The Daily Star  | English

Iran's President Raisi, foreign minister killed in helicopter crash

President Raisi, the foreign minister and all the passengers in the helicopter were killed in the crash, senior Iranian official told Reuters

3h ago