এবার সালমান বাটের সঙ্গে বিতর্কে জড়ালেন ভন

ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে কদিন ধরেই আলোচনায় সাবেক ইংল্যান্ড অধিনায়ক মাইকেল ভন। সেই আলোচনার জেরেই এবার ঝগড়া বাধিয়েছেন সাবেক পাকিস্তানি অধিনায়ক সালমান বাটের সঙ্গে
salman butt and michael vaughan

ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করে কদিন ধরেই আলোচনায় সাবেক ইংল্যান্ড অধিনায়ক মাইকেল ভন। সেই আলোচনার জেরেই এবার ঝগড়া বাধিয়েছেন সাবেক পাকিস্তানি অধিনায়ক সালমান বাটের সঙ্গে। বাটের ফিক্সিং কেলেঙ্কারি টেনে খোঁচা দিয়েছেন তিনি।

সম্প্রতি নিউজিল্যান্ডের এক গণমাধ্যমে সাক্ষাতকারে কেইন উইলিয়ামসকে কোহলির চেয়ে সেরা দাবি করেন ভন। সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশি অনুসারী থাকায় লাইক ও ক্লিকের জোরে কোহলি সেরা বলে মন্তব্য করে বসেন তিনি।

আরও পড়ুন- উইলিয়ামসন ভারতের হলে সবাই তাকেই সেরা বলত: ভন

কিন্তু তার এই মন্তব্য স্বাভাবিকভাবে নেননি অনেকেই। এমনকি সাবেক পাকিস্তানি ক্রিকেটাররাও ভনের সমালোচনায় মাতেন। সময়ের সেরা ব্যাটসম্যান কে এই বিচারে কোহলির পাশাপাশি নাম আসে অস্ট্রেলিয়ার স্টিভেন স্মিথ, ইংল্যান্ডের জো রুট, নিউজিল্যান্ডের কেইন উইলিয়ামসনের। এখন পাকিস্তানের বাবর আজমের নামও আসছে।

কিন্তু ভন তিন সংস্করণে কোহলির পরিসংখ্যানকে তাচ্ছিল্য করে সোশ্যাল মিডিয়ার জোরকে বড় করে দেখাতে চাইছিলেন।

এই ব্যাপারে অভিমত জানাতে নিজের ইউটিউব চ্যানেলে ভনের সমালোচনা করেন বাট,  ‘কোহলি আর উইলিয়ামসনের তুলনা করেছে কে? মাইকেল ভন! ইংল্যান্ডের হয়ে সে ভালো অধিনায়ক ছিল বটে কিন্তু যেখানে ব্যাট করত সেখানে সে দলের চাহিদা পূরণ করতে পারেনি। টেস্ট ব্যাটসম্যান হিসেবে ভালো ছিল। কিন্তু ওয়ানডেতে তো তার একটাও সেঞ্চুরি নাই।’

কোহলির পরিসংখ্যান তুলে ধরে বাট  বলেন, কেবল আলোচনায় আসতে এসব করছেন ভন, ‘কোহলির ৭০ টা আন্তর্জাতিক সেঞ্চুরি আছে, ওয়ানডেতে ভনের নেই একটিও। একজন ওপেনার হয়েও সে সেঞ্চুরি করতে পারিনি। তাকে নিয়ে আলোচনার কিছু নেই। সে স্রেফ বিতর্ক ছড়ানোর জন্য এসব বলে। লোকেরও কাজ নেই এসব নিয়ে কথা বলে।’

ইংল্যান্ডের হয়ে টেস্ট ১৮ সেঞ্চুরি থাকলেও ওয়ানডেতে কোন সেঞ্চুরি নেই ভনের। ২৭.১৫ গড়ও দিচ্ছে তার সাদামাটা ব্যাটসম্যানের পরিচয়।

বাটের এমন তীব্র সমালোচনা দেখে চটে যান ভন। একদম সরাসরি বাটের ম্যাচ ফিক্সিং কেলেঙ্কারি টেনে পালটা আঘাত করে পালটা টুইট করেন, একটি বাংলা খবরের লিঙ্ক শেয়ার করে তিনি বাটকে উদ্দেশ্য করে লিখেছেন ‘জানি না এর হেডিংয়ে কি আছে। কিন্তু আমি দেখেছি সালমান আমাকে নিয়ে কি বলেছে। সে তার মতামত দিতে পারে। কিন্তু ভাল হত যদি ২০১০ সালের ম্যাচ ফিক্সিং ঘটনায় সে পরিষ্কার থাকত। আমি অন্তত ম্যাচ ফিক্সার ছিলাম না, খেলাটাকে দূষিত করিনি।’

২০১০ সালে ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে ধরা পড়ে ৫ বছরের স্থগিত নিষেধাজ্ঞাসহ ১০ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হন তখনকার পাকিস্তান অধিনায়ক সালমান বাট। তার সঙ্গে  ৫ বছর করে নিষিদ্ধ হন মোহাম্মদ আমির ও মোহাম্মদ আসিফ। আমির পরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরলেও বাট ও আসিফের আর ফেরা হয়নি।   

Comments

The Daily Star  | English
Bank Asia plans to acquire Bank Alfalah

Bank Asia moves a step closer to Bank Alfalah acquisition

A day earlier, Karachi-based Bank Alfalah disclosed the information on the Pakistan Stock exchange.

43m ago