‘আমরা সেরা ক্রিকেটটা এখনো খেলতে পারিনি’

সহজে জিতলেও এখনো নিজেদের সেরা ক্রিকেট খেলতে পারেনি দল, এমনটাই মনে করছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ
Mahmudullah
মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। ছবি: ফিরোজ আহমেদ

প্রথম দুই ম্যাচে অনায়াসে জিতে সিরিজ নিশ্চিত করে ফেলেছে বাংলাদেশ। শেষ ম্যাচে তাই শ্রীলঙ্কাকে হোয়াইটওয়াশড করার মিশন। তবে সহজে জিতলেও এখনো নিজেদের সেরা ক্রিকেট খেলতে পারেনি দল, এমনটাই মনে করছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

দুই ম্যাচেই টস জিতে আগে ব্যাট করতে পেরেছিল বাংলাদেশ। প্রথম ম্যাচে ২৫৭ করে জিতেছে ৩৩ রানে। দ্বিতীয় ম্যাচে শুরুতে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়লেও শেষ পর্যন্ত করতে পারে ২৪৬ রান। ওই রান নিয়েই পরে ডি/এল মেথডে দল জিতেছে ১০৩ রানের বড় ব্যবধানে।

দুই ম্যাচেই বাংলাদেশের টপ অর্ডার থেকে আসেনি প্রত্যাশিত রান। মিডল অর্ডারে রান পান মুশফিকুর রহিম (৮৪ ও ১২৫)।  মাহমুদউল্লাহ (৫৪ ও ৪১) নিজেও রাখেন অবদান। এর উপর ভর করেই দল পায় লড়াইয়ের ভিত।

ব্যাটিংয়ে চাপ নিতে হলেও বোলিংকে বড় কোন পরীক্ষায় ফেলতে পারেনি সফরকারীরা।  তবে শেষ ম্যাচের সব জায়গাতেই নিজেদের অনেক ঘাটতি দেখছেন মাহমুদউল্লাহ, ‘আমার মনে হয় ব্যাটিং-বোলিং সব মিলিয়ে আমরা সেরা ক্রিকেটটা এখনো খেলতে পারিনি। আমাদের নিজেদের মধ্যে কথা হয়েছে। সেরা ক্রিকেটটা খেলার চেষ্টা করব। ব্যক্তিগত ভাবে মনে করি  যে টপ অর্ডারের ধস বা মিডল অর্ডার, লেট মিডল অর্ডার, স্লগ ওভারে প্রথম ম্যাচে (পর্যাপ্ত রান ) তুলতে পারিনি। ওই জিনিসগুলো নিয়ে আমার মনে হয় আমাদের আরেকটু ভাল পারফর্ম করা উচিত। এবং আমরা সেদিকেই তাকিয়ে।’

সিরিজ জিতে গেলেও এখন শেষ ম্যাচটার গুরুত্ব কমে না একটুও। ওয়ানডে সুপার লিগের অংশ হওয়ায় একটা ওয়ানডে মানেই এখন ১০ পয়েন্টের চ্যালেঞ্জ। বাংলাদেশের অভিজ্ঞ এই ক্রিকেটার চান, এবার সেরা ক্রিকেট খেলার তৃপ্তি নিয়েই পুরো পয়েন্ট আদায় করে নেবেন তারা, ‘যেহেতু বিশ্বকাপে কোয়ালিফাইংয়েল একটা বিষয় থাকে তো প্রতিটি ম্যাচই আমাদের জন্য সমান গুরুত্বপূর্ণ এবং যেহেতু আরেকটা সুযোগ আছে ১০ পয়েন্ট পাওয়ার তো কেন নয়? আমি যেটা বললাম আমরা আমাদের সেরা পারফরম্যান্সটা দিতে পারিনি। তো আমরা ওটাই দেওয়ার চেষ্টা করব ও ম্যাচটা জিতে ১০টা পয়েন্ট নেয়ার চেষ্টা করব।’

Comments

The Daily Star  | English

Man killed as police clash with students in Badda

A man was killed and over 100 others, mostly students, were injured during clashes between police and private university students in Badda and Rampura area

36m ago