আমার সেরাটা দিয়েই একাদশ নির্বাচন করেছি: গার্দিওলা

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে পেপ গার্দিওলার এই পরীক্ষা-নিরীক্ষা কাজে লাগেনি।
pep final
ছবি: টুইটার

শুরুর একাদশে নেই কোনো ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার। অভিজ্ঞ সৈনিক ফার্নান্দিনহো আর উঠতি তারকা রদ্রির জায়গা হলো বেঞ্চে। তাদের অনুপস্থিতিতে দায়িত্ব পড়ল ইলকাই গুন্দোয়ানের কাঁধে। তবে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে পেপ গার্দিওলার এই পরীক্ষা-নিরীক্ষা কাজে লাগেনি।

শনিবার রাতে ম্যানচেস্টার সিটিকে ১-০ গোলে হারিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো ইউরোপের সেরা ক্লাবের মর্যাদা পেয়েছে চেলসি। পোর্তোর ড্রাগন স্টেডিয়ামে ৪২তম মিনিটে ব্লুজদের হয়ে জয়সূচক গোলটি করেন তরুণ জার্মান ফরোয়ার্ড কাই হাভার্টজ।

গত এক দশকে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে রাজত্ব করলেও ম্যান সিটির চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জেতার অপেক্ষা আরও দীর্ঘ হয়েছে। প্রথমবারের মতো শিরোপার মঞ্চে জায়গা নিলেও তাদের যাত্রা থেমেছে রানার্স-আপ হিসেবে। স্বপ্ন পূরণ না হলেও একাদশ নির্বাচন নিয়ে কোনো আফসোস নেই গার্দিওলার।

২০২০-২১ মৌসুমে সবমিলিয়ে ৬১তম ম্যাচ খেলতে নেমেছিল সিটিজেনরা। তবে মাত্র দ্বিতীয়বারের মতো একাদশে ছিলেন না ফার্নান্দিনহো বা রদ্রির কেউ। ব্রাজিলিয়ান তারকা ফার্নান্দিনহো অবশ্য ৬৪তম মিনিটে বার্নার্দো সিলভার বদলি হিসেবে মাঠে নামেন।

ম্যাচ পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে নিজের সিদ্ধান্তের পক্ষে যুক্তি দিয়ে ম্যান সিটির কোচ বলেন, ‘(একাদশ) নির্বাচনে আমি আমার সেরাটা দিয়েছি। গত মৌসুমে যেমনটা করেছিলাম অলিম্পিক লিওঁর বিপক্ষে। যেমনটা করেছিলাম পিএসজি ও (বরুশিয়া) ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে।’

গার্দিওলার মতে, বিরতির পর তার শিষ্যরা তুলনামূলক ভালো খেলেছে, ‘খেলাটা জিততে সবচেয়ে ভালো (একাদশ) নির্বাচন করেছিলাম আমি। খেলোয়াড়রা তা জানে। আমি মনে করি, গুন্দোয়ান ভালো খেলেছে। সে অসাধারণ ছিল। প্রথমার্ধে তাদের (রক্ষণ) দেয়াল ভাঙার প্রচেষ্টায় আমরা কিছুটা পিছিয়ে ছিলাম। দ্বিতীয়ার্ধে আমরা তুলনামূলক ভালো করেছি।’

ফাইনালে সিটি সুযোগ তৈরি করে পাঁচটি, চেলসি করে তাদের প্রায় দ্বিগুণ- নয়টি। তবে প্রতিপক্ষের জন্য কাজটা সহজ হয়নি বলেই মনে করেন তিনি, ‘চেলসির বিপক্ষে খেলা সহজ নয়। তাদের জন্যও কাজটা সহজ হয়নি। তারা একটা গোল করেছে। এর বাইরে প্রথমার্ধে (টিমো) ভার্নার ও দ্বিতীয়ার্ধে (ক্রিস্টিয়ান) পুলিসিচ শট নিয়েছে।’

জার্মান মিডফিল্ডার গুন্দোয়ানকে ভিন্ন পজিশনে খেলানোর বিষয়ে সময়ের অন্যতম সেরা এই কোচ বলেন, ‘গুন্দোয়ান এই পজিশনে অনেক বছর খেলেছে। খেলায় গতি আনতে এবং মাঠের ফাঁকা জায়গাগুলোতে অন্য খেলোয়াড়দের খুঁজে নিতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল।’

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিততে ব্যর্থ হলেও এবার প্রিমিয়ার লিগ ও লিগ কাপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে সিটি। গোটা মৌসুম নিয়ে ট্যাকটিকাল মাস্টারক্লাস গার্দিওলার মূল্যায়ন, ‘আমি বলতে চাই যে, আমাদের জন্য একটা অসাধারণ, অসাধারণ মৌসুম কেটেছে। এখানে (চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে) পৌঁছানোটা স্বপ্নের মতো। দুর্ভাগ্যক্রমে, আমরা জিততে পারিনি।’

ম্যান সিটির ফরমেশন ও কৌশল নিয়ে চেলসির কোচ টমাস টুখেল জানান, ‘আমি ফার্নান্দিনহোকে আশা করেছিলাম শুরুর একাদশে। তিনি (গার্দিওলা) খুবই আক্রমণাত্মক একটি দল বেছে নিয়েছিলেন। এটা ছিল একটা টেকনিক্যাল সিদ্ধান্ত। তাদের কাছ থেকে বল দখল করা খুব কঠিন হয়ে পড়েছিল।’

Comments