ভিডিওতে যা দেখা যাচ্ছে তা ঠিক না: আক্তারুজ্জামান এমপি

খুলনার কয়রা উপজেলায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে গিয়ে বিক্ষুব্ধ বাসিন্দাদের তোপের মুখে পড়ার ভিডিও সম্পর্কে খুলনা-৬ (পাইকগাছা-কয়রা) আসনের সংসদ সদস্য মো. আক্তারুজ্জামান বলেছেন যে ভিডিওতে যা দেখা যাচ্ছে তা ঠিক না।
আজ মঙ্গলবার সকালে কয়রার মহারাজপুর ইউনিয়নের দশহালিয়া এলাকা পরিদর্শনে যান খুলনা-৬ (পাইকগাছা-কয়রা) আসনের সংসদ সদস্য মো. আক্তারুজ্জামান। ছবি: সংগৃহীত

খুলনার কয়রা উপজেলায় ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে গিয়ে বিক্ষুব্ধ বাসিন্দাদের তোপের মুখে পড়ার ভিডিও সম্পর্কে খুলনা-৬ (পাইকগাছা-কয়রা) আসনের সংসদ সদস্য মো. আক্তারুজ্জামান বলেছেন যে ভিডিওতে যা দেখা যাচ্ছে তা ঠিক না।

তিনি আজ মঙ্গলবার সন্ধ্যায় দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'আমি সকালে এলাকায় গিয়েছিলাম। সেখানে বেড়িবাঁধ ভেঙে গেছে। জনগণের দুঃখ-দুর্দশা দেখতে গিয়েছিলাম। ভিডিওতে যা দেখা যাচ্ছে তা ঠিক না। আমাকে কি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে যে আমাকে কাদা মারা হচ্ছে?'

তিনি বলেন, 'এ এলাকায় নিয়মিত বাঁধ ভাঙে, হাজার হাজার মানুষের কষ্ট হয়। এলাকায় যাওয়ার পর মানুষ আমাকে বলে যে আপনার মতো ডায়নামিক লোক থাকতে কেন এখানে টেকসই বাধ হচ্ছে না। আমি বলেছি এজন্য সময় দিতে হবে।'

ভিডিওতে দেখা যায়, আজ মঙ্গলবার সকালে উপজেলার মহারাজপুর ইউনিয়নের দশহালিয়া এলাকায় পৌঁছালে বিক্ষুব্ধ বাসিন্দারা সংসদ সদস্যের ট্রলার লক্ষ্য করে কাদা ও মাটির দলা ছুড়তে শুরু করে। কপোতাক্ষ নদের বাঁধ ভেঙে যাওয়ায় শতাধিক মানুষ স্বেচ্ছাশ্রমে মেরামত করছিলেন।

কাদা ছোঁড়ার পর ট্রলার ঘুরিয়ে চলে যাওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, 'আমি ট্রলার থেকে না নামলে বক্তৃতা দিলাম কীভাবে? তাদের সঙ্গে আমি খাওয়া দাওয়া করেছি। সেখানে ৫-৭ হাজার মানুষ ছিল। উপজেলা চেয়ারম্যানসহ অনেকেই সেখানে ছিল। কাদা ছোঁড়াছুড়ির কিছু হয়নি।'

'আসলে এলাকার লোকজন কাদা মেখে ছিল। কারণ ওই এলাকায় কাদা ছাড়া আর কিছু নেই। চারিদিকে শুধু পেরি কাদা। তারা চেয়েছিল আমি কাদা মাখি। এতে তারা খুশি হয়। সে কারণে আমার গায়ে কাদা। তারা যে আমার গায়ে কাদা ছুঁড়েছে, সে কারণে নয়,' যোগ করেন তিনি।

তিনি বলেন, 'আমি এলাকায় বেশি বেশি যাই, এতে আমার জনপ্রিয়তা দেখে ঈর্ষান্বিত হয়ে প্রতিপক্ষ এরকম কথাবার্তা ছড়াচ্ছে।'

আরও পড়ুন:

কয়রায় স্বেচ্ছাশ্রমে বাঁধ মেরামত: এমপিকে দেখেই কাদা ছুড়তে শুরু করেন বিক্ষুব্ধরা

 

Comments

The Daily Star  | English

Shehbaz Sharif voted in as Pakistan's prime minister for second time

Newly sworn-in lawmakers in Pakistan's National Assembly elected Sharif by 201 votes to 92, three weeks after national elections marred by widespread allegations of rigging

52m ago