আগামী ২ মাসের মধ্যে এনআইডি কার্যক্রম চালু করবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়: মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী

আগামী দুই মাসের মধ্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) কার্যক্রম চালু হবে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।
akm mozammel haque
মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। ছবি: সংগৃহীত

আগামী দুই মাসের মধ্যে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) কার্যক্রম চালু হবে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

আজ বুধবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত মন্ত্রিপরিষদ কমিটির সভা শেষে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত মন্ত্রিপরিষদ কমিটির সভাপতি মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হকের সভাপতিত্বে এ সভা হয়।

মোজাম্মেল হক বলেন, ‘এনআইডি বিষয়ে অনেকে অনেক কিছু কথা বলছেন, এনআইডির কার্যক্রম স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অধীনে থাকছে। এনআইডি আবেদনের ৩০ কার্যদিবসের মধ্যে সিদ্ধান্ত দিতে হবে। না হলে কেন দেওয়া যাচ্ছে না, এর ব্যাখ্যা দিতে হবে। অনেকেই ভুগছেন এ ব্যাপারে।’

মন্ত্রী বলেন, ‘নির্বাচন কমিশনের (ইসি) কাজ ভোটার তালিকা ও নির্বাচন করা। কোনো দেশে ইসি এনআইডি করে না।’

তিনি বলেন, ‘আজকের বৈঠকে এ সন্তোষ প্রকাশ করা হয়েছে, দেশে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক আছে।’

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়কমন্ত্রী বলেন, ‘হেফাজতে ইসলাম নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তাদের খুবই নগণ্য সংখ্যক নেতা দেশকে অস্থিতিশীল করতে চেয়েছে। সুনির্দিষ্ট অপরাধের ভিত্তিতে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আলেম-ওলামাদের বিরুদ্ধে নয়, অপরাধের ভিত্তিতে কিছু নেতাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কেউ যেন হয়রানি না হয় সেজন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

মোজাম্মেল হক বলেন, ‘আমি মন্ত্রী, এমপি যেই হই, অপরাধ করলে বিচার হবে। কোনো দল বা সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে বিচার করা হচ্ছে না।’

মন্ত্রী বলেন, ‘কিছু বিদেশি নাগরিক আছে, যাদের ভিসার মেয়াদ শেষ, তারা দেশে অবস্থান করছে। গোয়েন্দা তথ্যে দেখা যায়, এদের অনেকে অপরাধের সঙ্গে জড়িত। তাদেরকে নিজ নিজ দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হবে। প্রয়োজনে সরকার টিকিটের ব্যবস্থা করবে।’

রোহিঙ্গা প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, ‘রোহিঙ্গা ক্যাম্পে সুবিধা ও পাঁচ হাজার টাকা দাবি করে গত কয়েকদিনে কিছু বিক্ষোভ হয়েছে। পৃথিবীর কোনো দেশেই শরণার্থীরা এই সুবিধা পায় না। কারও প্ররোচনায় তারা এটা করছে। ভাসানচরে কেউ পর্যটনের জন্য বা অনুমতি ছাড়া যেতে পারবে না। ক্যাম্পে যারা মাদকের সঙ্গে জড়িত, তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।’

তিনি বলেন, ‘গুগল ও আমাজন করের আওতায় এসেছে। এর বাইরে যারা আছে, তাদেরকেও করের আওতায় আনা হবে। অন্যান্য সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমকেও এভাবে জবাবদিহিতার আওতায় আসতে হবে। রেজিস্ট্রেশন ব্যবস্থা থাকলে, কেউ অপরাধ করলে তাকে ধরা যাবে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে যে লেনদেন হয়, তা বৈধভাবে হয় নাকি অবৈধভাবে হয়, এর জন্য প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে। ইউটিউব, ফেসবুকের অফিস বাংলাদেশে থাকতে হবে। এ বিষয়ে কঠোর অবস্থানে বাংলাদেশ।’

মাদক নিরাময় কেন্দ্রে অত্যাচার করার অভিযোগ এসেছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘এমন কেন্দ্র কয়টি রয়েছে, নিয়মমাফিক চলছে কিনা, সে বিষয়ে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে।’ 

এলএসডি নিয়ে তিনি বলেন, ‘এলএসডিসহ নতুন মাদক নিয়ে ১৫টি গ্রুপ এই ব্যবসায় জড়িত। এর মধ্যে দুটি গ্রুপকে আইনের আওতায় আনা হয়েছে। বাকিদেরও ধরা হবে।’

কোরবানির চামড়ার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘কোরবানির চামড়ার দাম নির্ধারণ ও পাচার যেন না হয়, সেজন্য সীমান্তে আরও কঠোরভাবে নিয়ন্ত্রণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।’

তিনি উল্লেখ করেন, বঙ্গবন্ধুর চার খুনির খেতাব বাতিলের সিদ্ধান্ত হয়েছে। গেজেট দ্রুত হবে।

জিয়াউর রহমানের বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘জিয়ার খেতাব নিয়ে একটা উপকমিটি করা হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর খুনের সঙ্গে সে জড়িত কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তার বিরুদ্ধে আদালতে প্রমাণ সাপেক্ষে তথ্য উপাত্তের ভিত্তিতে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অনেকের মন্তব্য পেয়েছি। আমরা কোনো প্রতিবেদন এখনো উপকিমিটির কাছ থেকে পাইনি।’

Comments

The Daily Star  | English

Nation celebrating Eid-ul-Azha amid festive spirit

Bangladesh has begun celebrating Eid-ul-Azha, the second-largest religious festival for Muslims, with fervor and devotion

2h ago