সেই রামোসই এখন রিয়ালের গলার কাঁটা?

২০১৪ সালের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের ম্যাচ। নির্ধারিত সময়ের শেষ মুহূর্তের খেলা চলছে। ১-০ গোলের ব্যবধানে এগিয়ে অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ। শিরোপার গন্ধ পাচ্ছিল দলটি। উৎসবের সব আয়োজনও প্রায় সেরে ফেলেছিল তারা। ঠিক এমন সময়ই দারুণ হেডে গোল দিয়ে রিয়াল মাদ্রিদকে ম্যাচে ফেরান সের্জিও রামোস। পরের গল্প সবারই জানা। লা দেসিমা ঘরে তুলে নেয় লস ব্লাঙ্কোসরা।
ramos sergio
ছবি: টুইটার

২০১৪ সালের চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালের ম্যাচ। নির্ধারিত সময়ের শেষ মুহূর্তের খেলা চলছে। ১-০ গোলের ব্যবধানে এগিয়ে অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদ। শিরোপার গন্ধ পাচ্ছিল দলটি। উৎসবের সব আয়োজনও প্রায় সেরে ফেলেছিল তারা। ঠিক এমন সময়ই দারুণ হেডে গোল দিয়ে রিয়াল মাদ্রিদকে ম্যাচে ফেরান সের্জিও রামোস। পরের গল্প সবারই জানা। লা দেসিমা ঘরে তুলে নেয় লস ব্লাঙ্কোসরা।

দুই বছর আবারও চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে সেই অ্যাতলেতিকোর বিপক্ষে জয়ের নায়কও সেই রামোস। এমন দুটি ম্যাচই নয়, রিয়ালের অনেক অনেক যুদ্ধ জয়ের মূল কারিগর এ ডিফেন্ডার। রক্ষণ সামলেছেন পাশাপাশি আক্রমণেও সাহায্য করেছেন। অথচ সেই রামোসের উপরই এখন বেজায় ক্ষিপ্ত রিয়াল কর্তৃপক্ষ। তাকে যেন ক্লাব থেকে বিদায় করতে পারলেই বাঁচেন তারা। এমন সংবাদই প্রকাশ করেছে স্প্যানিশ রেডিও ষ্টেশন ওন্দা সেরো।

রিয়ালের সঙ্গে চুক্তির মেয়াদ আর এক মাস রয়েছে রামোসের। কাগজে কলমে তখন থেকে আর রিয়ালের খেলোয়াড় নন তিনি। তবে নতুন চুক্তি করে রিয়ালেই থাকতে চাইছেন এ তারকা। কিন্তু বনিবনা হচ্ছে ক্লাবের সঙ্গে। রিয়ালের প্রস্তাব অনুযায়ী বেতন-ভাতা কমানোর বিষয়ে ছাড় দিয়েছিলেন, কিন্তু চুক্তিটা চেয়েছিলেন দুই বছরের জন্য। কিন্তু ৩৫ পেরুনো এ ডিফেন্ডারকে এক বছরের রাখতে চাইছেন ক্লাব সভাপতি ফ্লোরেন্তিনো পেরেজ। দ্বন্দ্বের শুরু এখান থেকেই।

এদিকে রামোসের চুক্তি না বাড়িয়ে চলতি মৌসুমে বায়ার্ন মিউনিখের ডেভিড আলাবাকে দলে ভিড়িয়েছে রিয়াল। বর্তমান সময়ের অন্যতম সেরা এ ডিফেন্ডারকে তারা বছরে ১২ মিলিয়ন ইউরো বেতন দিচ্ছে। সঙ্গে নানা বোনাস তো রয়েছেই। এটাও মানতে পারছেন না রামোস। ক্লাবের হয়ে এতো কিছু দেওয়ার পরও তাকে বেতন কমাতে বলা হয়েছে, অন্যদিকে বায়ার্নে বছরে ৮ মিলিয়ন বেতন পাওয়া খেলোয়াড়ের বেতন বাড়ছে এক লাফে দেড় গুণ।

তবে এ সব সমস্যার চেয়ে বড় সমস্যা তৈরি হয়েছে সম্প্রতি। নতুন মৌসুমে তাদের সবচেয়ে বড় টার্গেট পিএসজির কিলিয়ান এমবাপে। এ তারকাকে দলে পেতে বড় অঙ্কের ট্রান্সফার ফির পাশাপাশি বড় অঙ্কের বেতন-বোনাসও দিতে হবে। তাই রিয়ালের সব খেলোয়াড়দের বেতন কমাতে জোড় করছে ক্লাব কর্তৃপক্ষ। কিন্তু সেখানে বাঁধা দিচ্ছেন রামোস! ওন্দা সেরোর সংবাদ অনুযায়ী, রিয়ালের সব খেলোয়াড়দের ফোন দিয়ে বেতন না কমাতে ইন্ধন দিচ্ছেন রামোস। তাতেই বেজায় খেপেছেন পেরেজ।

সবমিলিয়ে তাই রামোসের জন্য রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে চুক্তি নবায়ন যেন কঠিনই হয়ে পড়েছে। এমন ইঙ্গিত পাওয়া গেল নতুন কোচ কার্লো আনচেলত্তির কণ্ঠেও। বেল, ইস্কো, মার্সেলো, হ্যাজার্ডদের যেখানে আশার আলো দেখিয়েছেন, সেখানে রামোসের প্রসঙ্গ আসতেই নিজেকে উদাহরণ বানিয়ে বলেছেন, 'আমি একসময় আনচেলত্তিকে ছাড়াও রিয়াল মাদ্রিদকে ভাবতে পারতাম না কিন্তু সেটা হয়েছিল।'

Comments

The Daily Star  | English

Record job vacancies hurt govt services

More than a quarter of the 19 lakh posts in the civil administration are now vacant mainly due to the authorities’ reluctance to initiate the recruitment process.

8h ago