৭৪তম বিশ্ব স্বাস্থ্য সম্মেলন

উন্নয়নশীল দেশে টিকা উৎপাদন করে সরবরাহের দাবি বাংলাদেশের

বাংলাদেশের মতো উৎপাদনে সক্ষম উন্নয়নশীল দেশগুলোতে করোনা টিকা ও অন্যান্য চিকিৎসা সামগ্রীর উৎপাদন বৃদ্ধি করে তা অন্যান্য উন্নয়নশীল দেশে বিনামূল্যে সরবরাহের জন্য বাংলাদেশের পক্ষ থেকে দাবি জানানো হয়েছে। গত ২৪ মে থেকে ১ জুন সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সম্মেলনের ৭৪তম অধিবেশনে এ দাবি জানায় বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল।
৭৪তম আন্তর্জাতিক স্বাস্থ্য সম্মেলনে জেনেভায় জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মো. মোস্তাফিজুর রহমান বক্তব্য রাখছেন। ছবি: সংগৃহীত

বাংলাদেশের মতো উৎপাদনে সক্ষম উন্নয়নশীল দেশগুলোতে করোনা টিকা ও অন্যান্য চিকিৎসা সামগ্রীর উৎপাদন বৃদ্ধি করে তা অন্যান্য উন্নয়নশীল দেশে বিনামূল্যে সরবরাহের জন্য বাংলাদেশের পক্ষ থেকে দাবি জানানো হয়েছে। গত ২৪ মে থেকে ১ জুন সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সম্মেলনের ৭৪তম অধিবেশনে এ দাবি জানায় বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের গতকাল বৃহসপতিবারের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনা মহামারির কারণে ভার্চুয়াল এ সম্মেলনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেকের নেতৃত্বে এবং জেনেভায় বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনের সহযোগিতায় বাংলাদেশ প্রতিনিধিদল অধিবেশনে যোগ দেন।

সম্মেলনে কোভিড নির্মূলে টিকা, ওষুধ ও অন্যান্য চিকিৎসা সামগ্রী উৎপাদনের ক্ষেত্রে বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার ট্রিপস চুক্তির বাধ্যবাধকতাসমূহ সাময়িকভাবে প্রত্যাহারেরও আহবান জানায় বাংলাদেশ।

পাশাপাশি, বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল কোভিড-১৯ ও এর আর্থ-সামাজিক প্রভাব মোকাবিলায় যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা, ভ্যাকসিন প্রদান সংক্রান্ত কার্যক্রম এবং প্রণোদনা প্যাকেজসহ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকারের বিভিন্ন কার্যকর উদ্যোগ সম্পর্কে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে জানান।

সম্মেলনে জেনেভায় জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত মো. মোস্তাফিজুর রহমান বাংলাদেশসহ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া অঞ্চলের ১১টি দেশের পক্ষ থেকে মানসিক স্বাস্থ্য ও অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল রেজিস্ট্যান্সের ওপর দুটি যৌথ বিবৃতি দেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক নির্বাহী পরিষদের সভার র‍্যাপোর্টিয়ার এবং রাষ্ট্রদূত রহমান বিশ্ব স্বাস্থ্য সম্মেলনের ‘কমিটি-বি’-এর ভাইস চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

এ সম্মেলনে স্বাস্থ্য সম্পর্কিত বিভিন্ন বিষয়ের ওপর মোট ৩৫টি প্রস্তাব ও সিদ্ধান্ত গৃহীত হয় এবং করোনা সংকট মোকাবিলায় ভ্যাকসিন উৎপাদন, সরবরাহ ও সুষম বণ্টনের বিষয়টি বিশেষভাবে গুরুত্ব পায়।

Comments

The Daily Star  | English

Factories, banks reopen as govt relaxes curfew

Garment factories, banks and stock exchanges reopened as the government relaxed a curfew imposed to quell violent protests that left at least 150 people dead since last Tuesday

1h ago