থই থই পানিতে অপরূপ পদ্মা

বর্ষা মৌসুম এখনও শুরু না হলেও এ বছর পদ্মা নদীতে আগে থেকেই পানি বাড়তে শুরু করেছে। এতে নদী তীরবর্তী এলাকাগুলোতে নদী ভাঙনের শঙ্কা দেখা দিলেও পানি উন্নয়ন বোর্ড বলছে পদ্মায় পানি বৃদ্ধি স্বাভাবিক আছে, এখনই আগাম বন্যার আশঙ্কা নেই।
বর্ষার আগেই পদ্মা নদীতে বেড়েছে পানি। ছবিটি পাকশী হার্ডিঞ্জ ব্রিজ পয়েন্ট থেকে তোলা। ছবি: আহমেদ হুমায়ুন কবির তপু/ স্টার

বর্ষা মৌসুম এখনও শুরু না হলেও এ বছর পদ্মা নদীতে আগে থেকেই পানি বাড়তে শুরু করেছে। এতে নদী তীরবর্তী এলাকাগুলোতে নদী ভাঙনের শঙ্কা দেখা দিলেও পানি উন্নয়ন বোর্ড বলছে পদ্মায় পানি বৃদ্ধি স্বাভাবিক আছে, এখনই আগাম বন্যার আশঙ্কা নেই।

উজানে অতিরিক্ত বৃষ্টিপাতের ফলে এ বছর বর্ষার আগেই পদ্মা নদীতে পানি বাড়তে শুরু করছে বলে জানিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ডের আওতাধীন হাইড্রোলজি বিভাগ। এ সময় পদ্মায় পানি বৃদ্ধি একটি স্বাভাবিক বিষয় বলে জানানো হয়েছে।

ছবি: আহমেদ হুমায়ুন কবির তপু

হাইড্রোলজি বিভাগের পাবনার নির্বাহী প্রকৌশলী জাহিদুল ইসলাম দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, পদ্মার উজানে ঘূর্ণিঝড় ইয়াস পরবর্তী অতিরিক্ত বৃষ্টিপাতে নদীর পানি দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে। প্রতিদিন ৭ থেকে ৮ সেন্টিমিটার পানি বৃদ্ধি হচ্ছে পদ্মা নদীতে। শনিবার পদ্মা নদীর পাকশি হার্ডিঞ্জ ব্রিজ পয়েন্টে ৭ দশমিক ২ মিটার উচ্চতায় পদ্মার পানি প্রবাহিত হচ্ছে বলে জানান তিনি।

তবে পানি বৃদ্ধি পেলেও এতে আতঙ্কিত হ‌ওয়ার কিছু নেই বলে জানিয়ে জাহিদুল ইসলাম বলেন, পদ্মা নদীতে ১৩ দশমিক ২৫ মিটার বিপৎসীমা, যার অনেক নিচ দিয়ে এখন নদীর পানি প্রবাহিত হচ্ছে। ফলে পদ্মা নদীর আগাম পানি বৃদ্ধির ফলে, আগাম বন্যার আশঙ্কা নেই বলেও জানান তিনি।

পদ্মা তীরবর্তী রূপপুর এলাকার নৌকার মাঝি রবিউল হোসেন বলেন, নদীতে পানি বৃদ্ধির ফলে, নৌকা চালানো অনেক সহজ হয়েছে তবে, নদী তীরের জমির ফসল নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা তার।

এদিকে পদ্মায় পানি বৃদ্ধির ফলে, নদী ফিরতে শুরু করেছে তার আপন শোভায়, পানি বাড়ার সাথে সাথে ফুটে উঠছে নদীর সৌন্দর্য। অনেকেই নদী তীরে ঘুরতে আসছেন।

পাবনা শহরের ছাতিয়ানি এলাকার জিয়াউল হক দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, প্রতিদিন অফিস শেষে একবার পাকশি এলাকায় নদীর সৌন্দর্য দেখতে যাওয়ার চেষ্টা করি।

প্রমত্তা পদ্মার বেশিরভাগ এলাকায় পানি শুকিয়ে বালুর চরে পরিনত হয়েছে। বর্ষা মৌসুম এলে নদীতে পানি আসে। তবে এ বছর বর্ষা শুরুর আগেই নদীতে পানি চলে আসায় নদীর সৌন্দর্য উপভোগ করতে প্রতিদিনই অনেকে এখানে আসছেন বলে জানান তিনি।

আগাম পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় এ বছর পদ্মা নদীতে পানি দীর্ঘস্থায়ী হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে ফলে সৌন্দর্য পিপাসুদের হতাশ হওয়ার কারণ নেই বলে জানিয়েছেন হাইড্রোলজি বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী জাহিদুল ইসলাম।

Comments

The Daily Star  | English
Fire exits horrifying at many city eateries

Fire exits horrifying at many city eateries

Just like on Bailey Road, a prominent feature of Banani road-11, Kamal Ataturk Avenue, Satmasjid Road, Khilagon Taltola and Mirpur-11 traffic circle are tall buildings that house restaurants, cafes and commercial kitchens on every floor.

10h ago