কেন কোথাও রান পাচ্ছেন না সাকিব?

প্রতিযোগিতামূলক সর্বশেষ ৯ ম্যাচে বাংলাদেশের এই শীর্ষ তারকার ব্যাট একদমই মলিন।
Shakib Al Hasan
মোস্তাফিজুর রহমানের বলে স্কুপ করতে গিয়ে বোল্ড হয়ে সাকিবের হতাশা, ছবি: ফিরোজ আহমেদ

আইপিএলের পর শ্রীলঙ্কা সিরিজ, আর এখন ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়েন্টি, কোথাও হাসছে না সাকিব আল হাসানের ব্যাট। প্রতিযোগিতামূলক সর্বশেষ ৯ ম্যাচে বাংলাদেশের এই শীর্ষ তারকার ব্যাট একদমই মলিন।

নিষেধাজ্ঞা থেকে ফিরে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে তার ব্যাটে রান খরা ছিল স্বাভাবিক। লম্বা সময় না খেলার জড়তা বোঝা গেছে স্পষ্ট হয়ে। এরপর ঘরের মাঠে গত জানুয়ারি-ফেব্রুয়ারিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজেই চেনা ছন্দের আভাস দিয়ে তিন ম্যাচে করেছিলেন ১৯, অপরাজিত ৪৩ ও ৫১ রান।

জুতসই সেই পারফরম্যান্সের পর চোট ও ব্যক্তিগত ছুটি মিলিয়ে আবার লম্বা সময়ের বিরতি। সাকিব খেলতে যাননি নিউজিল্যান্ড সফরে। পরে শ্রীলঙ্কা সফরে টেস্ট সিরিজ না খেলে তিনি যান আইপিএলে।

কিন্তু আইপিএল থেকেই সাকিবের হতাশার সময় শুরু। প্রথম তিন ম্যাচে সুযোগ পেয়ে করেন ৩, ৯ ও ২৬ রান। বোলিংয়েও আহামরি কিছু করতে না পারায় একাদশে জায়গা হারান তিনি। আসরটি স্থগিত হওয়ার আগ পর্যন্ত বেঞ্চে বসে থাকেন বাকি ম্যাচগুলোতে।

দেশে ফিরে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের তিন ম্যাচে সাকিবের ব্যাট থেকে আসে ১৫, ০ ও ৪ রান। চলমান ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে এখন পর্যন্ত তিন ম্যাচ খেলে সাকিব করেছেন ২৯, ০ ও ২০ রান। অর্থাৎ সর্বশেষ ৯ ম্যাচে সবমিলিয়ে তার ব্যাট থেকে এসেছে কেবল ১০৬ রান। গড় মাত্র ১১.৭৭। 

Shakib Al Hasan
পারটেক্সের বিপক্ষে প্রথম বলেই বোল্ড হন সাকিব। ছবি: বিসিবি

এর মধ্যে পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে তাসামুল হকের প্রথম বলেই বোল্ড হয়ে সাকিব পান গোল্ডেন ডাকের তেতো স্বাদও। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেও দ্বিতীয় ওয়ানডেতে দুশমন্থ চামিরার বলে এলবিডব্লিউ হয়ে শূন্য রানে ফিরেছিলেন। শর্ট বলেও দেখা গেছে দুর্বলতা। তৃতীয় ওয়ানডেতে একই বোলাররের শর্ট বলে পুল মারতে গিয়েই তুলে দিয়েছিলেন ক্যাচ। শর্ট বলে ক্যাচ তুলে দেওয়ার প্রবণতা দেখা গেছে প্রিমিয়ার লিগেও। আউট হওয়ার আগেও প্রতিপক্ষকে একাধিক সুযোগ দিয়েছেন তিনি।

সাকিবের অনেক দিনের শিক্ষক ও বিকেএসপির ক্রিকেট উপদেষ্টা নাজমুল আবেদিন ফাহিমের পর্যবেক্ষণ বলছে, বড় শট খেলতে গেলেই সমস্যা হচ্ছে এই তারকার, ‘দেখলাম যখনই সে বড় শট খেলতে যাচ্ছে, আউট হচ্ছে। এছাড়া, তাকে দেখে ঠিকঠাকই লেগেছে। দেখা যাচ্ছে, ১০-১৫ রান সাবলীলভাবে করছে। এরপর একটা ছয় বা চার মারতে গিয়েই মিস-টাইমিং হয়ে যাচ্ছে। অবশ্যই, কিছু একটা তো সমস্যা আছেই।’

অভিজ্ঞ এই কোচ মনে করেন, টেকনিক্যাল কোনো জায়গায় সমস্যা হচ্ছে সাকিবের, ‘আমার মনে হয়, টেকনিক্যাল সমস্যা। নিষেধাজ্ঞার আগে যেভাবে খেলে রান পেত, এখন সেটা হচ্ছে না।’

লম্বা সময়ের বিরতির পর দীর্ঘ পরিসরের ক্রিকেট দিয়ে ফিরলে সাকিবের ব্যাটিংয়ের জন্য লাভ হতো বলে মনে করছেন তিনি, ‘ও ফেরার পরই কিন্তু ছোট ফরম্যাটে খেলছে। ফিরেই বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি খেলল। এরপর ওয়ানডে আর টি-টোয়েন্টিই খেলছে বেশি। দীর্ঘ পরিসরে একটু সময় নিয়ে খেলার সুযোগ থাকে, মারার চাপ থাকে না। ছন্দটা পেতে সুবিধা হয়।’

নিষেধাজ্ঞার থেকে ফেরার কিছু আগে সাকিবের সঙ্গে ব্যাটিং নিয়ে কাজ করা ফাহিম মনে করেন, খুব দ্রুতই রানে ফিরবেন বাংলাদেশের সফলতম ক্রিকেটার। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে এখনো বাকি অনেক ম্যাচ। এই কোচের আশা, এই টুর্নামেন্টেই বড় রান করতে দেখা যাবে সাকিবকে।

Comments

The Daily Star  | English