ইউনিলিভার বাংলাদেশের নতুন সিইও-এমডি জাভেদ আখতার

দেশের অন্যতম বৃহত্তম নিত্যব্যবহার্য পণ্য প্রস্তুতকারী কোম্পানি ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেডের (ইউবিএল) নতুন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন জাভেদ আখতার।
জাভেদ আখতার।

দেশের অন্যতম বৃহত্তম নিত্যব্যবহার্য পণ্য প্রস্তুতকারী কোম্পানি ইউনিলিভার বাংলাদেশ লিমিটেডের (ইউবিএল) নতুন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন জাভেদ আখতার।

ইউনিলিভার থেকে দেওয়া সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিষয়টি জানানো হয়েছে। আগামী ১ জুলাই থেকে জাভেদ আখতার সিইও ও এমডি হিসেবে দায়িত্ব নেবেন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বর্তমানে জাভেদ ইউনিলিভারের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ডিজিটাল ট্রান্সফরমেশন অ্যান্ড গ্রোথ বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। ইউনিলিভার বাংলাদেশের সিইও ও এমডি হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পাশাপাশি ইউনিলিভার সাউথ এশিয়া লিডারশিপ টিমেও যোগদান করবেন জাভেদ।

ইউনিলিভার বর্তমান বাংলাদেশের সিইও ও এমডি কেদার লেলের স্থলাভিষিক্ত হচ্ছেন জাভেদ। ২০১৮ সালের জানুয়ারি থেকে ইউনিলিভার বাংলাদেশের সিইও ও এমডি হিসেবে দায়িত্ব পালন করে আসছেন কেদার। এমডির পাশাপাশি তিনি ২০২০ সাল থেকে ইউনিলিভার বাংলাদেশের চেয়ারম্যান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করছেন। কেদার এখন কনজ্যুমার ডেভেলপমেন্ট ম্যানেজিং কমিটির নির্বাহী পরিচালক হিসেবে হিন্দুস্তান ইউনিলিভার লিমিটেডে (এইচইউএল) যোগদান করবেন। পাশাপাশি তিনি ইউনিলিভার বাংলাদেশের চেয়ারম্যান পদেও বহাল থাকবেন।

করপোরেট ব্যবসাখাতে দীর্ঘ অভিজ্ঞতাসম্পন্ন জাভেদ আখতার তার কর্মজীবন শুরু করেন ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকোতে। এরপর ২০০০ সালে তিনি ‘ওরাল কেয়ার’ ব্যবসার সিনিয়র ব্র্যান্ড ম্যানেজার হিসেবে ইউনিলিভারে যোগদান করেন। দক্ষিণ এশিয়া, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া ও অস্ট্রেলেশিয়ার বিভিন্ন অঞ্চলে সুদীর্ঘ ২৪ বছরের কাজের অভিজ্ঞতায় ঋদ্ধ জাভেদ আখতারের বিশেষ পারদর্শিতার ক্ষেত্রগুলো হলো— কনজ্যুমার সেন্ট্রিসিটি, ডিজাইন থিংকিং ও ইনোভেশন ম্যানেজমেন্ট। জাভেদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনস্টিটিউট অব বিজনেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (আইবিএ) থেকে স্নাতক ডিগ্রি লাভ করেন।

জাভেদ আখতার ‘ডিজিটাল ট্রান্সফরমেশন অ্যান্ড গ্রোথ’ বিভাগের ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণের পর হিন্দুস্তান ইউনিলিভার লিমিটেডের (এইচইউএল) জন্য ‘ডিজিটাল কাউন্সিল’ স্থাপন করেন। এ ছাড়া ইউনিলিভারে বহুল পরিচিত ‘রিইমাজিন এইচইউএল’ এজেন্ডার রূপকারও তিনি। সমন্বিত এই অ্যান্ড-টু-অ্যান্ড ডিজিটাল ট্রান্সফরমেশন প্রোগ্রামটি ইউনিলিভারে দারুণ সাড়া ফেলেছে।

এ বিষয়ে ইউনিলিভার সাউথ এশিয়ার প্রেসিডেন্ট সঞ্জীব মেহতা বলেন, ‘বাংলাদেশে ইউনিলিভারের ব্যবসায় অসাধারণ নেতৃত্ব দেওয়ায় আমি কেদারকে ধন্যবাদ দিতে চাই। নতুন ক্রেতা তৈরি, কোম্পানির অ্যান্ড-টু-অ্যান্ড সাপ্লাই চেইনে রূপান্তর আনা, মেধা উন্নয়ন ও ইউনিলিভার বাংলাদেশে বৈচিত্র্য আনার ক্ষেত্রে তার অবদান সত্যিই প্রশংসনীয়। এ পর্যায়ে ইউনিলিভার বাংলাদেশের নতুন সিইও ও এমডি হিসেবে দায়িত্ব পাওয়ায় জাভেদকে অভিনন্দন। সাউথ এশিয়া লিডারশিপ টিমে তাকে স্বাগত জানাতে পেরে আমি আনন্দিত। ইউনিলিভারের প্রবৃদ্ধির প্রধান পাঁচটি মূলনীতি নির্ধারণ ও ভারতে “রিইমাজিন এইচইউএল” এজেন্ডা বাস্তবায়নে তার অবদান অনস্বীকার্য। আমি নিশ্চিত যে, ইউনিলিভারের বাংলাদেশ অংশের ব্যবসাকে তিনি নতুন উচ্চতায় পৌঁছে দিতে সক্ষম হবেন।’

Comments

The Daily Star  | English
bailey road fire

Owners of shopping mall, ‘Chumuk’, ‘Kacchi Bhai’ sued

Police have filed a case against Amin Mohammad Group and three persons for the deadly fire at the Green Cozy Cottage shopping mall on Bailey Road in Dhaka that claimed 46 lives

35m ago