অ্যান্ডারসনের রেকর্ডের দিনে চাপে ইংল্যান্ড

দিনটা ছিল জেমস অ্যান্ডারসনের। ইংল্যান্ডের হয়ে সর্বাধিক টেস্ট খেলার অনন্য রেকর্ড গড়তে মাঠে নেমেছেন এ পেসার। কিন্তু দিনটা অবশ্য নিজেদের মতো কাটাতে পারেনি তারা। যদিও শুরুটা ছিল ভালো। তবে পরে সাত উইকেট হারিয়ে কিছুটা চাপে পড়ে যায় স্বাগতিকরা।
ছবি: সংগৃহীত

দিনটা ছিল জেমস অ্যান্ডারসনের। ইংল্যান্ডের হয়ে সর্বাধিক টেস্ট খেলার অনন্য রেকর্ড গড়তে মাঠে নেমেছেন এ পেসার। কিন্তু দিনটা অবশ্য নিজেদের মতো কাটাতে পারেনি তারা। যদিও শুরুটা ছিল ভালো। তবে পরে সাত উইকেট হারিয়ে কিছুটা চাপে পড়ে যায় স্বাগতিকরা।

এজবাস্টনে বৃহস্পতিবার প্রথম দিন শেষে ৭ উইকেট হারিয়ে ২৫৮ রান তুলেছে ইংল্যান্ড।

ইংল্যান্ডের হয়ে এদিন ১৬২তম টেস্ট খেলতে নামলেন অ্যান্ডারসন। এর আগে ইংলিশদের হয়ে সর্বোচ্চ ১৬১টি টেস্ট খেলে এ রেকর্ডের মালিক ছিল আলিস্টার কুক। লর্ডসে প্রথম টেস্টে কুককে ছুঁয়েছিলেন অ্যান্ডারসন। এবার তার রেকর্ড ভেঙে দিলেন। আর এ রেকর্ড আরও শক্ত করার বেশ সুযোগ পাবেন এ পেসার।

তবে নিজ দেশের হয়ে সর্বোচ্চ টেস্ট খেলার রেকর্ড গড়লেও সবমিলিয়ে এখন অনেক দূরেই আছেন অ্যান্ডারসন। টেস্ট ইতিহাসে সর্বোচ্চ ২০০টি টেস্ট ম্যাচ খেলেছেন ভারতীয় কিংবদন্তি শচিন টেন্ডুলকার। এছাড়া তার সামনে আছেন ভারতের রাহুল দ্রাবিড় (১৬৪ ম্যাচ), শিভ নারায়ণ চন্দরপাল (১৬৪), জ্যাক ক্যালিস (১৬৬ ম্যাচ), স্টিভ ওয়াহ (১৬৮ ম্যাচ) ও রিকি পন্টিং (১৬৮ ম্যাচ)। আর ৮টি টেস্ট ম্যাচ খেলতে পারলে দ্বিতীয় স্থানে উঠে আসতে পারবেন অ্যান্ডারসন।

এদিন টস জিতেছিল ইংল্যান্ডই। ব্যাটিং বেছে নিয়ে শুরুটাও হয় দারুণ। দুই ওপেনার রোরি বার্নস ও ডম শিবলির জুটিতে আসে ৭২ রান। কিন্তু এ জুটি ভাঙতেই হঠাৎ চাপে পড়ে যায় তারা। স্কোরবোর্ডে মাত্র ১৩ রান যোগ করতে তিন উইকেট হারিয়ে বড় চাপে পড়ে যায় দলটি। তবে এক প্রান্ত ধরে রাখেন বার্নস। ওলে পোপ ও ড্যান লরেন্সকে নিয়ে ইনিংস মেরামতের চেষ্টা করেছিলেন। পোপের ও লরেন্সের দুই জনের সঙ্গেই ৪২ রানের দুটি গড়েন বার্নস। লাথামের ক্যাচে পরিণত করে বিপজ্জনক হয়ে ওঠা এ ব্যাটসম্যানকে ফেরান ট্রেন্ট বোল্ট।

বার্নসের বিদায়ের পর স্কোরবোর্ডে ৬ রান যোগ করতে জেমস ব্রাকিকেও তুলে নেন বোল্ট। তাতে চাপ আরও বাড়ে দলটির। এরপর লরেন্সের সঙ্গে দলের হাল ধরার চেষ্টা করেন ওলে স্টোন্স। ৪৭ রানের জুটিও গড়েছিলেন। কিন্তু আজাজ প্যাটেলের বলে এলবিডাব্লিউর ফাঁদে পড়েন স্টোন্স। তবে অষ্টম উইকেটে মার্ক উডের সঙ্গে অবিচ্ছিন্ন ৩৬ রানের জুটিতে ইংল্যান্ডের ইনিংস লম্বা করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন লরেন্স।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৮১ রানের ইনিংস খেলেন বার্নস। ১৮৭ বলের ইনিংসটি ১০টি চারের সাহায্যে এ রান করেন এ ওপেনার। ১০০ বলে ১১টি চারের সাহায্যে ৬৭ রান করে অপরাজিত রয়েছেন লরেন্স। ১৬ রানে তার সঙ্গী হিসেবে উইকেটে আছেন উড। ৩৫ রানের ইনিংস খেলেছেন শিবলি। নিউজিল্যান্ডের পক্ষে ২টি করে বোল্ট, ম্যাট হেনরি ও প্যাটেল।

Comments

The Daily Star  | English

$7b pledged in foreign funds

When Bangladesh is facing a reserve squeeze, it has received fresh commitments for $7.2 billion in loans from global lenders in the first seven months of fiscal 2023-24, a fourfold increase from a year earlier.

6h ago