লালমনিরহাটে করোনা শনাক্তের হার বেড়ে ৩৮ শতাংশ

দেশের উত্তরাঞ্চলের সীমান্তবর্তী জেলা লালমনিরহাটে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। স্থানীয় স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা করছেন, এখনই কার্যকর ব্যবস্থা না নিলে পরিস্থিতি ভয়াবহ হতে পারে।
Lalmonirhat_Corona_11June21.jpg
লালমনিরহাট শহরে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) উত্তম কুমার রায় ও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহা আলম শহরের বিভিন্ন এলাকায় সাধারণ মানুষের মধ্যে মাস্ক বিতরণ করেন। ছবি: সংগৃহীত

দেশের উত্তরাঞ্চলের সীমান্তবর্তী জেলা লালমনিরহাটে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। স্থানীয় স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা আশঙ্কা করছেন, এখনই কার্যকর ব্যবস্থা না নিলে পরিস্থিতি ভয়াবহ হতে পারে।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, গত ৪ থেকে ১০ জুন পর্যন্ত মোট ১৫৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এতে ৫৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ৩৮ শতাংশ। এর আগে ২৮ মে থেকে ৩ জুন পর্যন্ত সাত দিনে ১৫২টি নমুনা পরীক্ষা করে ৩৩ জনের করোনা শনাক্ত করা হয়।

লালমনিরহাটে এ পযর্ন্ত ছয় হাজার ৩১০টি নমুনা পরীক্ষা করে এক হাজার ১৪৬ জনের করোনা শনাক্ত করা হয়েছে। মারা গেছেন ১৭ জন।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. নির্মলেন্দু রায় দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘গত এক সপ্তাহ ধরে লালমনিরহাটে করোনা শনাক্তের হার ঊর্ধ্বমুখী। এই অবস্থার পরিবর্তন না হলে পরিস্থিতি ভয়াবহ হতে পারে।’

করোনা সংক্রমন রোধে জন সচেতনতা সৃষ্টিতে লালমনিরহাট সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) উত্তম কুমার রায় ও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহা আলম যৌথভাবে প্রচারণা চালাচ্ছেন। পাশাপাশি সাধারণ মানুষের ভেতরে বিনামূল্যে মাস্ক বিতরণ করা হচ্ছে।

শাহা আলম ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘এখানে করোনা সচেতনতার অভাব। রাস্তা-ঘাটে, বাজারে মানুষ গাদাগাদি হয়ে চলাফেরা করে। অধিকাংশ মানুষ মাস্ক ব্যবহার করে না। যে কারণে আমরা সাধারণ মানুষকে সচতেন করার চেষ্টা করছি।’

Comments

The Daily Star  | English
Inflation edges up despite monetary tightening. Why?

Inflation edges up despite monetary tightening. Why?

Bangladesh's annual average inflation crept up to 9.59% last month, way above the central bank's revised target of 7.5% for the financial year ending in June

1h ago