চুয়াডাঙ্গায় একদিনে সর্বোচ্চ শনাক্ত ৬৬.০৭ শতাংশ

চুয়াডাঙ্গায় করোনা শনাক্তের হার বেড়ে ৬৬ দশমিক ০৭ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে আক্রান্ত ৩৭ জনকে শনাক্ত করা হয়। আজ রোববার জেলা সিভিল সার্জন অফিস এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।
প্রতীকী ছবি। সংগৃহীত

চুয়াডাঙ্গায় করোনা শনাক্তের হার বেড়ে ৬৬ দশমিক ০৭ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করে আক্রান্ত ৩৭ জনকে শনাক্ত করা হয়। আজ রোববার জেলা সিভিল সার্জন অফিস এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

শনাক্ত ৩৭ জনের মধ্যে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার বাসিন্দা দুই জন, আলমডাঙ্গার তিন জন এবং সীমান্ত লাগোয়া দামুড়হুদার ২০ জন ও ১২ জন জীবননগর উপজেলার বাসিন্দা। এ নিয়ে জেলায় মোট শনাক্তের সংখ্যা দুই হাজার ২২২ জনে দাঁড়াল। এর মধ্যে সদর উপজেলার বাসিন্দা এক হাজার ৮৯ জন, দামুড়হুদার ৪৯৮ জন, আলমডাঙ্গার ৩৮৫ জন ও জীবননগরের বাসিন্দা ২৫০ জন।

গত ১১ জুন ৩৯ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১০ জন আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছিলেন। আজ সকাল পর্যন্ত জেলায় শনাক্ত করোনা রোগী ২৬৫ জন। তাদের মধ্যে হোম আইসোলেশনে ২২৪ জন ও হাসপাতালে রয়েছেন ৩৮ জন। তিন জনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রেফার্ড করা হয়েছে।

চুয়াডাঙ্গা জেলা সিভিল সার্জন ডা. এ এস এম মারুফ হাসান দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘গত ২৪ ঘণ্টায় যে ফলাফল এসেছে একদিনে এটিই জেলায় সর্বোচ্চ শনাক্তের হার। চুয়াডাঙ্গার চারটি উপজেলার মধ্যে দামুড়হুদা সীমান্ত এলাকায় করোনা সংক্রমণ ও মৃত্যু সবচেয়ে বেশি। এ জন্য উপজেলার ডুগডুগি ও নাটুদহ পশুর হাট বন্ধ করা হয়েছে। দামুড়হুদা উপজেলার কয়েকটি সীমান্তবর্তী গ্রাম লকডাউনের আওতায় আনা হয়েছে।’

Comments

The Daily Star  | English

Flood situation in Sylhet, Sunamganj worsens

Heavy rains forecast for the next 3 days in region

7h ago