প্রতিদিন বাড়ছে রোগীর সংখ্যা, সাতক্ষীরা মেডিকেলকে করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতাল ঘোষণা

দেশের সীমান্তবর্তী জেলা সাতক্ষীরায় করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালকে করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতাল ঘোষণা করা হয়েছে।
সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল। ছবি: সংগৃহীত

দেশের সীমান্তবর্তী জেলা সাতক্ষীরায় করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালকে করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতাল ঘোষণা করা হয়েছে।

গতকাল বুধবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (হাসপাতাল ও ক্লিনিক) ফরিদ হোসেন মিয়া স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এ নির্দেশ দেওয়া হয়। সে অনুযায়ী আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে করোনা ডেডিকেটেড হিসেবে কাজ শুরু করেছে হাসপাতালটি।

সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক কুদরত-ই-খোদা বলেন, ‘করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়তে থাকায় রোগীদের হাসপাতালের মেঝেতে রাখতে হচ্ছিল। ১৫০ শয্যার করোনা ইউনিটে আজ রোগী আছে ১৭৯ জন। এ অবস্থায় ৫০০ শয্যার সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালকে করোনা বিশেষায়িত হাসপাতাল ঘোষণা করা হয়েছে।’

তিনি জানান, আজ থেকে করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতাল হিসেবে কার্যক্রম শুরু করায় নতুন কোনো সাধারণ রোগী আর ভর্তি করা হবে না। করোনা ছাড়া অন্যান্য যেসব রোগী বর্তমানে হাসপাতালটিতে আছেন তাদের ধীরে ধীরে ছাড়পত্র দেওয়া হবে।

এদিকে সাতক্ষীরা সিভিল সার্জন অফিসের চিকিৎসা কর্মকর্তা জয়ন্ত সরকার জানান, বুধবার সকাল আটটা থেকে বৃহস্পতিবার সকাল আটটা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ১৮৬ জনের নমুনা পরীক্ষা ৮৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। শনাক্তের হার শতকরা ৪৭ দশমিক ৩১ শতাংশ। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় ১৮৮ জনের নমুনা পরীক্ষা করে ১০০ জনের করোনা শনাক্ত হয়। শতকরা হার ছিল ৫৩ দশমিক ২০ ভাগ।

তিনি বলেন, ‘করোনা সংক্রমণের হার দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। গত ১০ জুন জেলায় করোনা রোগী ছিল ৫৭৪ জন। সাতদিনের ব্যবধানে আজ সেই সংখ্যা বেড়ে ৮২২ জনে দাঁড়িয়েছে।’

সাতক্ষীরা জেলায় এ পর্যন্ত ১১ হাজার ২২২ জনের নমুনা পরীক্ষা করে দুই হাজার ৬৯৯ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ পর্যন্ত মারা গেছেন ৫৬ জন। এ ছাড়া, করোনার উপসর্গ নিয়ে বুধবার রাতে তিনজনসহ এখন পর্যন্ত মোট ২৫৬ জন মারা গেছেন।

আরও পড়ুন:

Comments

The Daily Star  | English

The ones who stayed for some extra cash

Workers who came to the capital or stayed back to earn some extra cash during the Eid-ul-Azha thronged Gabtoli and nearby areas for buses

2h ago