প্রবাসে

স্পেনে আন্তর্জাতিক মেলায় বাংলাদেশ, বিনিয়োগকারীদের আগ্রহ

স্পেনের আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা 'আএমইএক্স মাদ্রিদ' য় প্রথমবারের মতো অংশ নিয়েছে বাংলাদেশ। মেলায় বাংলাদেশকে নিয়ে ব্যাপক আগ্রহ দেখা গেছে স্প্যানিশ ব্যবসায়ী ও বিনিয়োগকারীদের মধ্যে।
স্পেনের আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলায় বাংলাদেশের স্টল। ছবি: স্টার

স্পেনের আন্তর্জাতিক বাণিজ্য মেলা 'আএমইএক্স মাদ্রিদ' য় প্রথমবারের মতো অংশ নিয়েছে বাংলাদেশ। মেলায় বাংলাদেশকে নিয়ে ব্যাপক আগ্রহ দেখা গেছে স্প্যানিশ ব্যবসায়ী ও বিনিয়োগকারীদের মধ্যে।

দেশটির আন্তর্জাতিক বাণিজ্য বিষয়ক পত্রিকা মনেদা উনিকা আয়োজিত ৫ দিনের আয়োজনের চার দিন ভার্চুয়ালি এবং এক দিন সরাসরি অনুষ্ঠিত হয়। 

মেলার ১৯তম আসরে বিশ্বের ৫০টি দেশের উৎপাদক, পরিবেশক, ব্যবসায়ী, আমদানিকারক ও রপ্তানিকারকরা অংশ নেয়।

গতকাল বুধবার মাদ্রিদের সিটি হল পালাসিও দে সিবেলেসে অনুষ্ঠিত আয়োজনে সরাসরি অংশ নেয় বাংলাদেশ।

বাংলাদেশ দূতাবাসের কমার্শিয়াল উইংয়ের ব্যবস্থাপনায় স্টলে আগ্রহী ব্যবসায়ী ও বিনিয়োগকারীদের সঙ্গে বৈঠক ও তথ্য আদান-প্রদান করা হয়। এ ছাড়া দিনব্যাপী সেমিনার, কনফারেন্স ও রাউন্ড টেবিল বৈঠকেও বাংলাদেশকে তুলে ধরা হয়।

দূতাবাসের কমার্শিয়াল কাউন্সেলর রেদোয়ান আহমেদ বলেন, 'কোভিড পরবর্তী অবস্থায় মাদ্রিদে এটিই প্রথম বাণিজ্য সম্পর্কিত আয়োজন। আজকের আয়োজনে বাংলাদেশের অংশ নেওয়ার কারণে বাণিজ্য ও বিনিয়োগে আগ্রহী ব্যবসায়ীরা আমাদের সঙ্গে বৈঠকের জন্য সময় নিয়ে রেখেছিল।’

বাংলাদেশের শুধু গার্মেন্টস সেক্টর নয় অন্যান্য সেক্টরেও বিশেষ করে বিদ্যুৎ ও জ্বালানি, খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণ, তথ্যপ্রযুক্তি, জনশক্তি, বর্জ্য ব্যবস্থাপনাসহ উৎপাদনশীল খাতে স্প্যানিশ ব্যবসায়ীদের আগ্রহ আছে বলে কমার্শিয়াল কাউন্সেলর জানান।

তিনি বলেন, ‘স্প্যানিশ ব্যবসায়ীরা এতদিন বাংলাদেশকে শুধু তৈরি পোশাক উৎপাদনকারী দেশ হিসেবে জেনে এসেছে। আমাদের  উদ্দেশ্য ছিল এ ধারণা পরিবর্তন করা। সেটি হয়তো একদিনে হবে না, তবে এটা শুরু বলা যেতে পারে।’

বিকেলে বিজনেস অ্যান্ড ইনভেসমেন্ট অপরচুনিটি ইন বাংলাদেশ শীর্ষক এক সেমিনারে বাংলাদেশের বিনিয়োগ পরিবেশ ও সম্ভাবনা তুলে ধরা হয়।

সেমিনারে রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ সারওয়ার মাহমুদ বাংলাদেশকে দক্ষিণ এশিয়ার ইমার্জিং টাইগার হিসেবে আইএমএফ এবং বিশ্বব্যাংকের দেওয়া মন্তব্য  উল্লেখ করে বলেন, 'বিনিয়োগের জন্য বাংলাদেশ দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম আকর্ষণীয় স্থানে পরিণত হয়েছে।

তিনি বলেন, 'বাংলাদেশে বিনিয়োগ ও বাণিজ্য ক্ষেত্রে অনেক সুযোগ-সুবিধা তৈরি করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্যোগে বাংলাদেশের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে তোলার কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে।’

‘পৃথিবীর অনেক দেশ এসব অর্থনৈতিক অঞ্চলে বিনিয়োগের জন্য এগিয়ে এসেছে। কারণ এখানে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে আকর্ষণীয় সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। স্পেনসহ ইউরোপও এখানে বিনিয়োগ করলে লাভবান হবে, বলেন রাষ্ট্রদূত।

রাষ্ট্রদূতও বাংলাদেশ স্টলে অবস্থান করে ব্যবসায়ী ও বিনিয়োগকারীদের সঙ্গে কথা বলেন এবং বাংলাদেশের পরিবেশ ও সম্ভাবনা তুলে ধরেন।

এ সময় দূতালয় প্রধান এটিএম আব্দুর রউফ মণ্ডল, প্রথম সচিব (শ্রম) মুতাসিমুল ইসলাম ও প্রথম সচিব তাহমিনা আরফিন শারমিন উপস্তিত ছিলেন। এ ছাড়াও কমিউনিটি সংগঠক এস আই রবিন, স্পেন বাংলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাহাদুল সুহেদসহ বাংলাদেশি কমিউনিটির অনেকে মেলায় উপস্থিত ছিলেন।

লেখক : স্পেনপ্রবাসী সাংবাদিক

Comments

The Daily Star  | English

Free rein for gold smugglers in Jhenaidah

Since he was recruited as a carrier about six months ago, Sohel (real name withheld) transported smuggled golds on his motorbike from Jashore to Jhenaidah’s Maheshpur border at least 27 times.

6h ago