‘মেসি-আগুয়েরো জুটি মৌসুমে ৬০ গোল করবে’

স্যামুয়েল ইতো দুই আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের কাছ থেকে গোলের বন্যা দেখার অপেক্ষায় আছেন।
messi and aguero
ছবি: এএফপি

ছোটবেলার বন্ধু ও জাতীয় দলের সতীর্থ লিওনেল মেসির সঙ্গে বার্সেলোনায় জুটি বাঁধতে যাচ্ছেন সার্জিও আগুয়েরো। তাদের যুগলবন্দিকে ঘিরে স্প্যানিশ ক্লাবটির প্রত্যাশা স্বভাবতই অনেক বেশি। কাতালান দলটির এক সময়ের তারকা স্যামুয়েল ইতোও দুই আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের কাছ থেকে গোলের বন্যা দেখার অপেক্ষায় আছেন।

গত ৩১ মে নিজেদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দিয়ে আগুয়েরোর সঙ্গে সমঝোতায় পৌঁছানোর বিষয়টি নিশ্চিত করে বার্সা। ম্যানচেস্টার সিটি ছেড়ে বিনা ট্রান্সফার ফিতে দুই বছরের জন্য ন্যু ক্যাম্পে নাম লিখিয়েছেন তিনি। তার সঙ্গে বার্সার চুক্তির মেয়াদ থাকছে ২০২২-২৩ মৌসুমের শেষ পর্যন্ত। ৩২ বছর বয়সী এই তারকা স্ট্রাইকারের বাই আউট ক্লজ রাখা হয়েছে ১০ কোটি ইউরো।

সবশেষ মৌসুমে খুব বেশি ম্যাচে মাঠে নামতে পারেননি আগুয়েরো। চোটের সঙ্গে তাকে লড়াই করতে হয় বেশ কয়েক দফা। সবমিলিয়ে ২০ ম্যাচ খেলে তিনি করেন ৬ গোল। চোট বাধা না হয়ে দাঁড়ালে মেসি-আগুয়েরো জুটি বাজিমাত করবে বলে মনে করছেন ক্যামেরুনের সাবেক স্ট্রাইকার ইতো। স্প্যানিশ গণমাধ্যম সুপার দেপোর্তিভো রেডিওকে তিনি বলেছেন, ‘আমরা প্রতি মৌসুমে ৬০ গোল দেখতে পাব (তাদের জুটি থেকে)। আমি শুধু এটাই প্রার্থনা করি, ঈশ্বর যেন তাদেরকে চোট পাওয়া রক্ষা করেন।’

বার্সেলোনার সঙ্গে ৩৩ বছর বয়সী মেসির বর্তমান চুক্তির মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে আগামী ৩০ জুন। দুই পক্ষের মধ্যে চুক্তি নবায়নের কোনো ঘোষণা এখনও আসেনি। ২০০৪ থেকে পরবর্তী পাঁচ বছর বার্সায় কাটানো ইতো অবশ্য তার সাবেক সতীর্থের নতুন ঠিকানায় পাড়ি দেওয়ার সম্ভাবনা দেখছেন না, ‘মেসিই বার্সেলোনা। আমি তার অন্য কোনো জার্সিতে খেলার সম্ভাবনা দেখছি না।’

উল্লেখ্য, মেসি ও আগুয়েরো বর্তমানে আর্জেন্টিনার জার্সিতে ব্রাজিলের মাটিতে হওয়া কোপা আমেরিকায় খেলছেন। ইতোমধ্যে আলবিসেলেস্তেরা গ্রুপপর্বের বাধা পেরিয়ে উঠে গেছে কোয়ার্টার ফাইনালে। মঙ্গলবার সকালে ১-০ গোলে তারা হারিয়েছে প্যারাগুয়েকে। সবশেষ ম্যাচে উরুগুয়েকে একই ব্যবধানে হারানোর আগে চিলির সঙ্গে তারা ড্র করেছিল ১-১ গোলে।

Comments

The Daily Star  | English

The ones who stayed for some extra cash

Workers who came to the capital or stayed back to earn some extra cash during the Eid-ul-Azha thronged Gabtoli and nearby areas for buses

2h ago