‘বীর মুক্তিযোদ্ধাদের গার্ড অব অনারে নারী ইউএনও না রাখার প্রস্তাব গ্রহণযোগ্য নয়’

মুক্তিযোদ্ধাদের গার্ড অব অনার দেওয়ার ক্ষেত্রে নারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) বিকল্প খুঁজে বের করার যে প্রস্তাব সংসদীয় কমিটি দিয়েছে, তা গ্রহণযোগ্য নয় এবং সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক বলে মন্তব্য করেছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।
আ ক ম মোজাম্মেল হক। ছবি: সংগৃহীত

মুক্তিযোদ্ধাদের গার্ড অব অনার দেওয়ার ক্ষেত্রে নারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) বিকল্প খুঁজে বের করার যে প্রস্তাব সংসদীয় কমিটি দিয়েছে, তা গ্রহণযোগ্য নয় এবং সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক বলে মন্তব্য করেছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

গতকাল বুধবার দ্য ডেইলি স্টারকে তিনি বলেন, ‘এ প্রস্তাব সরাসরি দেশের সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। এটি বিবেচনার কোনো সুযোগই নেই। এমন প্রস্তাব গ্রহণ করব না আমরা।’

মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি গত ১৩ জুন এক সভায় সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়কে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মৃত্যুর পর গার্ড অব অনার দেওয়ার ক্ষেত্রে নারী ইউএনওর বিকল্প খোঁজার প্রস্তাব দেয়।

জাতীয় সংসদ ভবনে অনুষ্ঠিত ওই সভায় সভাপতিত্ব করেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য শাজাহান খান। স্থায়ী কমিটির সদস্য হিসেবে মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রীও সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

সভা সূত্রে জানা গেছে, গার্ড অব অনারের ক্ষেত্রে নারী ইউএনওর উপস্থিতির বিষয়টি তোলেন কমিটির এক সদস্য। তিনি বলেন, নারীরা সাধারণত জানাজায় অংশ নেন না। অনেক মানুষ বিষয়টি নিয়ে প্রশ্ন তোলে। তাই যেসব স্থানের ইউএনও নারী, সেসব স্থানে গার্ড অব অনারের দায়িত্ব কোনো পুরুষ কর্মকর্তাকে দেওয়া উচিত। সহকারী কমিশনার (ভূমি), শিক্ষা কর্মকর্তা, কৃষি কর্মকর্তা বা এ ধরনের কোনো কর্মকর্তাকে এক্ষেত্রে বিকল্প হিসেবে রাখা যেতে পারে।

বিভিন্ন সংগঠন এ সুপারিশের তীব্র নিন্দা জানিয়ে বলেছে, এটি নারীর জন্য অবমাননাকর এবং সংবিধানের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। ক্ষমতাসীন দলের একজনসহ বেশ কয়েকজন এমপি সংসদে কমিটির সমালোচনা করেছেন।

ইংরেজি থেকে অনুবাদ করেছেন জারীন তাসনিম

Comments

The Daily Star  | English

Bheem finds business in dried fish

Instead of trying his luck in other profession, Bheem Kumar turned to dried fish production and quickly changed his fortune.

1h ago