চোখের জলে উইম্বলডন থেকে বিদায় নিলেন আহত সেরেনা

সেবাশুশ্রূষা নিয়ে ফিরলেও বেশিক্ষণ চালিয়ে যেতে পারেননি যুক্তরাষ্ট্রের ৩৯ বছর বয়সী এই তারকা।
serena williams
ছবি: এএফপি

দুর্ভাগ্যজনকভাবে উইম্বলডনের প্রথম রাউন্ড থেকে বিদায় নিতে হলো সেরেনা উইলিয়ামসকে। প্রথম সেট চলাকালে পিছলে পড়ে পায়ে চোট পান তিনি। পরে সেবাশুশ্রূষা নিয়ে ফিরলেও বেশিক্ষণ চালিয়ে যেতে পারেননি যুক্তরাষ্ট্রের ৩৯ বছর বয়সী এই তারকা।

মঙ্গলবার অল ইংল্যান্ড ক্লাবের সেন্টার কোর্টে বেলারুশের আলিয়াকসান্দ্রা সাসনোভিচের মুখোমুখি হন আসরের ষষ্ঠ বাছাই সেরেনা। উইম্বলডনের নারী এককের সাতবারের চ্যাম্পিয়ন এই খেলোয়াড় প্রথম সেটে ৩-১ গেমে এগিয়ে গিয়েছিলেন। কিন্তু এরপরই ঘটে বিপত্তি। পিছলে পড়ে আহত হন তিনি, ব্যথা পান পায়ে।

অনেকটা সময় ধরে সেরেনার চোট নিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা করা হয়। চিকিৎসা সেবা নিয়ে বিরতি শেষে তিনি কোর্টে ফিরলেও তার শরীরী ভাষায় অস্বস্তির ছাপ ছিল স্পষ্ট। সাসনোভিচ ৩-৩ করে ফেলার পর ব্যথায় কাতর সেরেনার পক্ষে আর খেলে যাওয়া সম্ভব হয়নি। হাঁটু গেঁড়ে বসে পড়েন তিনি।

দর্শকদের বিপুল করতালির মাঝে কাঁদতে কাঁদতে কোর্ট ছাড়েন ২৩টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জয়ী সেরেনা। সেসময় তাকে সামান্য খোঁড়াতেও দেখা যায়। পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইন্সটাগ্রামে তিনি লিখেছেন, ‘ডান পায়ের চোটের কারণে নিজেকে প্রত্যাহার করতে হওয়ায় আমার মন ভেঙে গেছে।’

কিছুটা অস্বস্তি আর ব্যথা নিয়েই খেলতে নেমেছিলেন সেরেনা। আগে থেকেই তার ডান পায়ের ঊরুতে ছিল মোটা ব্যান্ডেজ।

মার্গারেট কোর্টের সর্বোচ্চ ২৪টি গ্র্যান্ড স্লাম জয়ের রেকর্ড ছোঁয়ার অপেক্ষা আরও দীর্ঘ হলো সেরেনার। ২০১৭ সালের অস্ট্রেলিয়ান ওপেন জেতার পর আরও চারবার ফাইনালে উঠলেও শিরোপার স্বাদ নেওয়া হয়নি তার।

উইম্বলডনে ২০ বার অংশ নিয়ে প্রথম রাউন্ড থেকে সেরেনার বিদায়ের ঘটনা এটাই প্রথম। বর্ণাঢ্য ক্যারিয়ারে আগে কেবল একবারই প্রথম রাউন্ড থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন তিনি, ২০১২ সালের ফরাসি ওপেনে।

Comments

The Daily Star  | English

Heatwave: DU and JnU classes to be held virtually

DU exams to be held in person; JnU exams postponed till April 25

1h ago