আনন্দধারা

মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে তৈরি হচ্ছে প্রথম বাংলা অ্যানিমেটেড চলচ্চিত্র

‘সার্ভাইভিং সেভেন্টি ওয়ান’ শিরোনামে নির্মিতব্য এই চলচ্চিত্রের লেখক, পরিচালক এবং নির্বাহী প্রযোজক হিসেবে রয়েছেন ওয়াহিদ বিন রেজা। কানাডার ভ্যাঙ্কুভারে অবস্থিত সনি পিকচার্স ইমেজওয়ার্কে কাজ করেছেন তিনি। সুপার হিরো ফিল্ম ‘ডক্টর স্ট্রেঞ্জ’-এর দর্শক-নন্দিত ভিজুয়াল ইফেক্টের কাজেও যুক্ত ছিলেন ওয়াহিদ।
ওয়াহিদ ইবনে রেজা
ওয়াহিদ ইবনে রেজা

বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ নিয়ে প্রথম বাংলা দ্বিমাত্রিক অ্যানিমেটেড ফিচার ফিল্ম তৈরি হচ্ছে।

‘সার্ভাইভিং সেভেন্টি ওয়ান’ শিরোনামে নির্মিতব্য এই চলচ্চিত্রের লেখক, পরিচালক এবং নির্বাহী প্রযোজক হিসেবে রয়েছেন ওয়াহিদ বিন রেজা। কানাডার ভ্যাঙ্কুভারে অবস্থিত সনি পিকচার্স ইমেজওয়ার্কে কাজ করেছেন তিনি। সুপার হিরো ফিল্ম ‘ডক্টর স্ট্রেঞ্জ’-এর দর্শক-নন্দিত ভিজুয়াল ইফেক্টের কাজেও যুক্ত ছিলেন ওয়াহিদ। প্রযোজনা সংস্থা মার্ভেল থেকে গত বছর মুক্তি পায় ছবিটি।

গতকাল (৫ নভেম্বর) অনলাইন কথোপকথনে ওয়াহিদ দ্য ডেইলি স্টারকে জানান, তাঁর আশা “সার্ভাইভিং সেভেন্টি ওয়ান-এর স্বল্পদৈর্ঘ্যের ছবিটি আগামী বছরের শেষের দিকে মুক্তি দেওয়া যাবে। আর এর পূর্ণদৈর্ঘ্যের ছবিটি মুক্তি দেওয়ার ইচ্ছে রয়েছে ২০১৯ বা ২০২০ সালে।”

তিনি বলেন, “প্রাথমিকভাবে আমরা মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে একটি অ্যানিমেটেড শর্ট ফিল্ম বানাবো। এরপর, পরিকল্পনা রয়েছে, এই শর্ট ফিল্মটি দেখিয়ে পূর্ণদৈর্ঘ্য ছবি বানানোর জন্যে তহবিল জোগাড় করবো।” একটি বিশ্বমানের অ্যানিমেটেড ছবি বানানোর জন্যে বড় বাজেটের প্রয়োজন বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

ছবিটির গল্প সাজানো হবে ওয়াহিদের বাবার জীবনের অভিজ্ঞতার ওপর ভিত্তি করে। তাই বিষয়টি নিয়ে তাঁর আগ্রহ ও আশা অনেক। তার ভাষায়, “আমি আশা করি, যাঁরা আমাদের প্রিয় মাতৃভূমির জন্যে জীবন উৎসর্গ করেছেন তাঁদের প্রতি যথাযথ সম্মান দেখাতে পারবো।”

ছবির নির্মাণ কাজের অগ্রগতি সম্পর্কে তিনি জানান, “শর্ট ফিল্মের চিত্রনাট্য এবং ট্রেইলারের কাজ শেষ হয়েছে। ফিচার ফিল্মের গল্পটিও সুন্দর এগোচ্ছে। আমরা ছবিটির আর্টের কাজ আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু করেছি।”

‘সার্ভাইভিং সেভেন্টি ওয়ান’-এর প্রোডাকশন ডিজাইনার শরিফুল ইসলাম এবং রেজা এর আগেও বিভিন্ন সময় এক সঙ্গে কাজ করেছেন। এ বছরে মুক্তি পাওয়া পরিচালক ফখরুল আরেফিন খানের ‘ভুবন মাঝি’ চলচ্চিত্রে শিল্প নির্দেশক হিসেবে কাজ করেছেন শরিফুল।

মুক্তিযুদ্ধ-ভিত্তিক ছবিটিকে আরও আকর্ষণীয় করতে অন্যান্য দেশের বিশেষজ্ঞদের সঙ্গেও কাজ করতে আগ্রহী রেজা। তার কথায়, এই অনাগত ‘শিশু’-র আগমনটি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠুক।

রেজা বর্তমানে ‘হোটেল ট্রান্সসিলভানিয়া থ্রি’-র সহকারী প্রডাকশন ম্যানেজার হিসেবে কাজ করছেন। এই থ্রিডি অ্যানিমেটেড ফ্যান্টাসি কমেডিটি প্রযোজনা করছে সনি পিকচার্স অ্যানিমেশন।

এর আগে, রেজা জনপ্রিয় ‘ক্যাপ্টেন আমেরিকা: সিভিল ওয়ার’ এবং ‘ব্যাটম্যান ভার্সেস সুপারম্যান: ডন অব জাস্টিস’ ছবি দুটির ভিজুয়াল ইফেক্টস কো-অর্ডিনেটর হিসেবে কাজ করেছেন।

সাবেক প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ রেজাউল করিম এবং আইনজীবী সুরাইয়া করিম মুন্নীর একমাত্র সন্তান ওয়াহিদ বিন রেজা বুয়েট থেকে মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এবং ইউনিভার্সিটি অব ব্রিটিশ কলোম্বিয়া থেকে ফিল্ম প্রডাকশনের ওপর স্নাতক করেছেন।

উত্তর আমেরিকায় পাড়ি দেওয়ার আগে রেজা বাংলাদেশে বিভিন্ন টেলিফিল্ম ও কমেডি সিরিজে অভিনয় করেছেন। মডেল হিসেবেও কাজ করেছিলেন তিনি।

Click here to read the English version of this news

Comments

The Daily Star  | English

Dos and Don’ts during a heatwave

As people are struggling, the Met office issued a heatwave warning for the country for the next five days

4h ago