চিকিৎসককে কারাদণ্ড: লক্ষ্মীপুরের এডিসি, ম্যাজিস্ট্রেটকে সতর্ক করলো হাইকোর্ট

ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে একজন সাবেক ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জনকে কারাদণ্ড দেওয়ার ঘটনায় ক্ষমতার অপব্যবহার করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত লক্ষ্মীপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এডিসি) মুর্শিদুল ইসলাম এবং জেলার অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট নূরুজ্জামানকে সতর্ক করেছেন হাইকোর্ট।
Bangladesh high court
হাইকোর্ট ভবন। ছবি: ফাইল ফটো

ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে একজন সাবেক ভারপ্রাপ্ত সিভিল সার্জনকে কারাদণ্ড দেওয়ার ঘটনায় ক্ষমতার অপব্যবহার করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত লক্ষ্মীপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এডিসি) মুর্শিদুল ইসলাম এবং জেলার অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট নূরুজ্জামানকে সতর্ক করেছেন হাইকোর্ট।

এছাড়াও, উচ্চ আদালত সরকারকে আদেশ দিয়েছেন এই দুই অভিযুক্ত ব্যক্তিকে এমন জায়গায় বদলি করতে যেখানে তাদের ভ্রাম্যমাণ আদালতের ক্ষমতা অপব্যবহারের সুযোগ থাকবে না।

এদিকে, নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ায় তাদের এমন কাজের বৈধতা জানতে চেয়ে কোন রুল জারি করা থেকে বিরত থাকেন বিচারপতি কাজী রেজা-উল হক এবং বিচারপতি মোহাম্মদ উল্লাহর হাইকোর্ট বেঞ্চ।

এর আগে, আজ (১৩ ডিসেম্বর) সকালে এডিসি মুর্শিদুল ইসলাম এবং জেলার অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট নূরুজ্জামান আদালতে হাজির হয়ে তাদের কৃত কর্মের জন্যে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেন।

উল্লেখ্য, একটি কিন্ডারগার্টেন স্কুলের সংকীর্ণ প্রবেশপথ দিয়ে কে আগে যাবেন এ নিয়ে এই দুই অভিভাবকের মধ্যে কথা কাটাকাটি হওয়ার ঘটনায় চিকিৎসক সালাহউদ্দিনকে কারাদণ্ড দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত।

Comments