দিয়াজ হত্যা: চবি’র সহকারী প্রক্টর কারাগারে

​ছাত্রলীগের নেতা দিয়াজ ইরফান চৌধুরী হত্যা মামলার আসামী চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) সহকারী প্রক্টর আনোয়ার হোসেনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আত্মসমর্পণের পর আজ তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন চট্টগ্রামের আদালত।
দিয়াজ ইরফান চৌধুরী
২০১৬ সালের ২০ নভেম্বর চবি’র ২ নম্বর গেটের পাশে নিজেদের বাড়িতে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায় ছাত্রলীগ নেতা দিয়াজ ইরফান চৌধুরীকে। ছবি: ফেসবুক থেকে সংগৃহীত

ছাত্রলীগের নেতা দিয়াজ ইরফান চৌধুরী হত্যা মামলার আসামী চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) সহকারী প্রক্টর আনোয়ার হোসেনকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। আত্মসমর্পণের পর আজ তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন চট্টগ্রামের আদালত।

বাদীপক্ষের আইনজীবী এডভোকেট আবু মনসুর জানান, আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন চান আনোয়ার। শুনানি শেষে চট্টগ্রামের মুখ্য বিচারিক হাকিম মুন্সি এম মশিউর রহমান তাকে কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

২০১৬ সালের ২০ নভেম্বর চবি’র ২ নম্বর গেটের পাশে দিয়াজের বাড়িতে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। সেসময় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সহকারী সাধারণ সম্পাদক ছিল সে। লাশ পাওয়া যাওয়ার সময় তার পরিবারের কেউ সেখানে ছিল না।

জানালা দিয়ে লাশ ঝুলতে দেখে প্রতিবেশীরা প্রথম পুলিশকে খবর দেন। দিয়াজের মোবাইল ফোনটি পাওয়া যায়নি জানিয়ে তার পরিবারের অভিযোগ, হত্যা করে তার লাশ ঝুলিয়ে রাখা হয়েছিল।

এই ঘটনার পর বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সহসভাপতি এনামুল হক অভি গণমাধ্যমকে বলেছিলেন, ঝুলন্ত অবস্থায় দিয়াজের পা বিছানার সাথে লেগে ছিল। এ থেকে তাদের ধারণা দিয়াজ আত্মহত্যা করেনি।

দিয়াজের মা জাহেদার অভিযোগ, চবি প্রশাসনের সাথে যুক্ত একজন শিক্ষক ও ছাত্রলীগের একজন শীর্ষ নেতা তার সন্তান হত্যার মূল পরিকল্পনাকারী। টেন্ডার নিয়ে রেষারেষির কারণে দিয়াজকে “হত্যা” করা হয়েছে বলে মনে করেন তিনি। এর বিচার চেয়ে অনশনও করেছেন দিয়াজের মা।

Comments

The Daily Star  | English
people without power after cyclone Remal

Cyclone Remal: 93 percent power restored, says ministry

The Ministry of Power, Energy and Mineral Resources today said around 93 percent power supply out of the affected areas across the country by Cyclone Remal was restored till this evening

51m ago