বলিউডের বার মাস

নানান উথাল-পাথালের ভেতর দিয়ে বলিউড কাটিয়েছে ২০১৭ সাল। এই বছরে ভারতীয় চলচ্চিত্রের ইতিহাসে সৃষ্টি হয়েছে এক সোনালী অধ্যায়। সেই অধ্যায়ে সোনালী অক্ষরে লেখা থাকবে পরিচালক এসএস রাজামৌলীর ‘বাহুবলী ২’-র নাম। আর এর নায়ক প্রভাস হয়ে থাকবেন চির ভাস্বর হয়ে।

নানান উথাল-পাথালের ভেতর দিয়ে বলিউড কাটিয়েছে ২০১৭ সাল। এই বছরে ভারতীয় চলচ্চিত্রের ইতিহাসে সৃষ্টি হয়েছে এক সোনালী অধ্যায়। সেই অধ্যায়ে সোনালী অক্ষরে লেখা থাকবে পরিচালক এসএস রাজামৌলীর ‘বাহুবলী ২’-র নাম। আর এর নায়ক প্রভাস হয়ে থাকবেন চির ভাস্বর হয়ে।

বলিউডে ২০১৭ সালে মুক্তি পাওয়া সিনেমাগুলো নিয়ে বছর শেষের এই আয়োজন তৈরি করা হয়েছে দ্য ডেইলি স্টার অনলাইনের পাঠকদের জন্যে।

‘বাহুবলী ২’-এর ট্রেইলার

বছরটি শুরু হয়েছে নওয়াজউদ্দিনের ‘হারামখোর’ দিয়ে। এর আগে ‘প্রকাশ ইলেক্ট্রনিক’ থাকলেও তা তেমন করে কারো চোখে পড়েনি বলেই মনে হচ্ছে। তবে জানুয়ারিজুড়ে যেটি সব থেকে বেশি চর্চিত ছিল তা হচ্ছে, শাহরুখ-ঋত্বিক যুদ্ধ। জানুয়ারির শেষ শুক্রবারের যুদ্ধে কে জিতবে তা দেখার জন্য উন্মুখ ছিল সবাই। কিন্তু যুদ্ধটা অনেকটা শুধুই দুপক্ষের কিছু ক্ষতির মধ্য দিয়েই শেষ হয়েছে। শাহরুখের ‘রইস’ প্রত্যাশার তুলনায় আর্থিকভাবে লাভ করেছে কম। আর হৃত্বিকের ‘কাবিল’ খুব বেশি ক্ষতি ছাড়াই পার করেছে সময়টা। তবে এই যুদ্ধটি না হলে যে দুজনেরই লাভের খাতা আরো একটু লম্বা হতো তা বলার অপেক্ষা রাখে না।

ফেব্রুয়ারিতে আলোচনায় ছিল অক্ষয় কুমারের ‘জলি এলএলবি-২’, রানা দাগুবতীর ‘দ্য গাজী অ্যাটাক’ এবং তাপসী পান্নুর ‘রানিং শাদী’ ও ‘রঙ্গুন’। এর মধ্যে ‘রঙ্গুন’ নিয়ে প্রত্যাশার পারদ একটু উপরেই ছিল। কেননা, সাইফ আলী খান, শহিদ কাপুর এবং কঙ্গনা রানাউতের মতো তারকারা ছিলেন এতে। কিন্তু, দর্শকদের সেই চাহিদা পূরণে ব্যর্থ হয়েছে চলচ্চিত্রটি। আর অবশ্যই জেনে রাখা দরকার, এ মাসেই মুক্তি পেয়েছিল ভারতের আলোচিত বাবা গুরমিত রাম রহিম সিং এবং তাঁর পালিত কন্যা হানিপ্রীত ইনসান অভিনীত ‘হিন্দ কি নাপাক কো জওয়াব: এমএসজি লায়ন হার্ট-২’। এ মাসে উল্লেখ করার মতো একটি ঘটনা রয়েছে আর তা হলো তাপসী পান্নু অভিনীত বেশ কয়েকটি সিনেমার মুক্তি।

মার্চ মাসে তেমন আলোচিত সিনেমা না এলেও বিদ্যুৎ জামওয়াল অভিনীত ‘কমান্ডো-২’, বরুণ ধাওয়ান-আলিয়া ভাট অভিনীত ‘বদ্রিনাথ কি দুলহানিয়া’, অনুশকা শর্মা প্রযোজিত ও অভিনীত ‘ফিল্লোওরি’ এবং তাপসী পান্নু অভিনীত ‘নাম শাবানা’ মোটামুটি আলোচনার ভাগিদার ছিল।

২০১৭ সালে সিনেমা মুক্তির হিসাবে বলিউডে এবং সারা পৃথিবীজুড়েই হয়তো সব থেকে বেশি আলোচিত মাস ছিল এপ্রিল। কারণ এ মাসেই মুক্তি পেয়েছিল সৃজিত মুখার্জী পরিচালিত ‘বেগম জান’, রাভিনা ট্যান্ডন অভিনীত ‘মাতৃ’, সোনাক্ষী সিনহার ‘নূর’। দুঃখিত! আপনাদের মোটেই বোকা ভাবছি না। আপনাদের সঙ্গে আমিও খানিকটা জানি যে, এ মাসে তো বটেই, ২০১৭ সালের প্রথম চার মাস সবার অপেক্ষায় কেটেছে এটি জানতে যে, “কাটাপ্পা কেন বাহুবলীকে হত্যা করেছিল?” এই প্রশ্নের উত্তর জানার জন্য মানুষ এতটাই হুমড়ি খেয়ে পড়েছিল যে, গোটা ভারতে ২৮ এপ্রিল তৃতীয় কোনো সিনেমা মুক্তি পায়নি। শুধু কলকাতায় একটি সিনেমা মুক্তি দিয়ে ভীষণভাবে ব্যবসায়িক ক্ষতির মুখে পড়ে যায়। বলিউড ছাড়িয়ে সারা পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ‘বাহুবলী-২’ এর চাহিদা এতোটাই বেশি ছিল যে এটি মুক্তির পরের সপ্তাহেও কোনো প্রযোজক সিনেমা মুক্তি দেননি বলিউডে।

‘গোলমাল অ্যাগেইন’-এর ট্রেইলার

মে মাসের প্রথম সপ্তাহেও ‘বাহুবলী’-র সম্মানে (নাকি ভয়ে!) কোনো সিনেমাই মুক্তি পায়নি। দ্বিতীয় সপ্তাহে মুক্তি পায় অমিতাভ বচ্চনের ‘সরকার-৩’, পরিণীতা চোপড়ার ‘মেরি পেয়ারি বিন্দু’, অর্জুন-শ্রদ্ধা কাপুরের ‘হাফ গার্লফ্রেন্ড’, ইরফান খানের ‘হিন্দি মিডিয়াম’, শচীন টেন্ডুলকারের বায়োপিকসহ আরো বেশ কয়েকটি সিনেমা। ও হ্যাঁ অপরাধ নেবেন না, লিখতে ভুলে গিয়েছিলাম যে এ মাসেও মুক্তি পেয়েছে বাবা গুরমিত রাম রহিম সিং ও হানিপ্রীত ইনসান অভিনীত সিনেমা ‘জাট্টু ইঞ্জিনিয়ার’।

জুনে সব থেকে বেশি প্রতীক্ষায় ছিল সালমান খানের সিনেমাটি। ঈদ উপলক্ষে মুক্তি পাওয়া সালমানের সব সিনেমাই ছিল সুপার ডুপার হিট। এবারও যে হবে না তাই কি হয়? গোল বলের খেলায় যেমন যে কোনো কিছুই হতে পারে বলে একটি প্রবাদ প্রচলিত রয়েছে, তেমনি এই গোল পৃথিবীতেও তো যে কোনো কিছুই ঘটতে পারে। সালমান খানের এই সিনেমার ক্ষেত্রেও তাই হয়েছে। ‘টিউবলাইট’ শুধু মিট মিট করে আলো দিয়েছে। শেষ পর্যন্ত আর জ্বলে উঠতে পারেনি। অবস্থা এতই খারাপ ছিল যে, পরিবেশকদের ক্ষতিপূরণ দিয়েছিলেন ভাইজান। এর আগে বেশ ঘটা করে তৈরি করা সুসান্ত সিং রাজপুত-কৃতী শ্যানানের ‘রাবতা’-ও ফ্লপ করেছে। আর বাকি কম বাজেটের যে সিনেমাগুলো মুক্তি পেয়েছে তারা হয়তো তাদের প্রত্যাশিত ফলাফল পেয়েছে, হয়তো অনেকে আবার তাও পায়নি।

আসলে ‘বাহুবলী-২’ মুক্তি পাওয়ার পর বলিউডের দর্শকদের মধ্যে হয়তো একটি বিরাট পরিবর্তন চলে এসেছে। নইলে সালমান খানের সিনেমা এভাবে ফ্লপ করে কেনো? আর জুলাই মাসে রণবীর-ক্যাটরিনার ‘জগ্গা জাসুস’-ও দাঁড়াতে পারেনি তেমনভাবে। তবে এ মাসে সব থেকে বেশি আলোচিত সিনেমা ছিল ‘লিপস্টিক আন্ডার মাই বোরখা’। এটি এমনিতে দর্শকের কাছে যতটা পৌঁছেছে তার থেকে বেশি জনসাধারণের কাছে নিয়ে এসেছেন ভারতীয় সেন্সর বোর্ড প্রধান। এই সিনেমাটিকে মুক্তি দেওয়া না দেওয়া নিয়ে টানাপড়েনে মিডিয়া গরম হয়ে যায়। আর সবার আকর্ষণের জায়গায় চলে আসে সিনেমাটি। বাণিজ্যিকভাবে বেশ ভালোই করেছে মাত্র ছয় কোটি রুপি বাজেটের সিনেমাটি। আলোচনাতেও ছিল বেশ কিছুদিন। শ্রীদেবীর ‘মম’, টাইগার শ্রফের ‘মুন্না মাইকেল’, অনিল কাপুরের ‘মুবারাকান’-সহ আরো বেশ কিছু সিনেমা এ মাসে মুক্তি পায়।

আগস্টে শাহরুখ খানের ‘জব হ্যারি মেট সেজল’, অক্ষয় কুমারের সামাজিক সচেতনতামূলক সিনেমা ‘টয়লেট: এক প্রেমকথা’, নওয়াজউদ্দিনের ‘বাবুমশাই বন্দুকবাজ’-সহ আরো বেশ কিছু সিনেমা মুক্তি পায় বলিউডে। শাহরুখ খান এ বছর দ্বিতীয় সিনেমা মুক্তি দিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো দর্শকদের হতাশ করেন। তবে প্রত্যাশার থেকে অনেক ভালো করেছে অক্ষয় কুমারের ‘টয়লেট’। মুক্তির আগেই ফাঁস হয়ে যাওয়ার পরও যথেষ্ট ভালো ব্যবসা করেছে সিনেমাটি। বিশ্বের অন্যতম সেরা ধনী বিল গেটসের ২০১৭ সালের প্রেরণার তালিকায় উঠেছে ‘টয়লেট’। আর যথারীতি সেন্সর বোর্ড প্রধানের কৃপায় দীর্ঘ সময় আলোচনায় থাকে ‘বাবুমশাই বন্দুকবাজ’।

‘তুমহারি সুলু’-এর ট্রেইলার

এক ঝাঁক তারকা নিয়ে তৈরি ‘বাদশাহো’ দিয়ে সেপ্টেম্বরের যাত্রা শুরু আর শেষ হয় সালমান খান অভিনীত ‘জরুয়া’-এর সিক্যুয়াল ‘জরুয়া-২’ দিয়ে। মাঝে অর্জুন রামপালের ‘ড্যাডি’, সানি দেওলের ‘পোস্টার বয়’, কঙ্গনা রানাউতের ‘সিমরান’, শ্রদ্ধা কাপুরের ‘হাসিনা পার্কার’, সঞ্জয় দত্তের ‘ভূমি’-সহ আরো কিছু সিনেমা মুক্তি পেলেও তেমন কোনো আওয়াজ তুলতে পারেনি কোনোটিই। মাফিয়া ডন দাউদ ইব্রাহিমের বোনের চরিত্র নিয়ে তৈরি হাসিনা পার্কার কিছু একটা করবে বলে সবার মনে আশা থাকলেও তা আর হয়নি। আর্থিকভাবে তো ধরা খেয়েছেই, সঙ্গে উপরি পাওনা হিসেবে শ্রদ্ধার অভিনয় নিয়ে অনেকেই রীতিমতো ধুয়ে দিয়েছেন তাঁকে।

অক্টোবর মাসটি শুরু হয়েছে সাইফ আলী খানের হাত ধরে। সুপার-ডুপার ফ্লপ ‘সেফ’ ছবিতে তাঁর অনবদ্য অভিনয় ছিলো। ওফ, আর বলার ভাষা নেই। তবে এ মাসে ভালো ব্যবসা করতে পেরেছে রহিত শেঠির ‘গোলমাল অ্যাগেইন’। ১০০ কোটি রুপি বাজেটের ছবিটি ঘরে তুলেছে দ্বিগুণেরও বেশি অর্থ। মিস্টার পারফেকশনিস্টের ‘সিক্রেট সুপার স্টার’ টেনেটুনে অর্থ তুলতে পারলেও আমির খান-সুলভ সিনেমা হয়নি এটি। তবে অবশ্যই সাইফ আলী খানের মতো ভয়ানক অবস্থায় পড়েনি তাঁর এই স্বল্প বাজেটের সিনেমাটি।

নভেম্বর মাসে ভালো ব্যবসা করার মতো সিনেমা বলতে বিদ্যা বালানের ‘তুমহারি সুলু’। সিদ্ধার্থ মালহোত্রার ‘ইত্তেফাক’, ইরফান খানের ‘কারিব কারিব সিঙ্গেল’, ‘আকসার’-এর সিক্যুয়াল ‘আকসার ২’, ‘জুলি’-র সিক্যুয়াল ‘জুলি-২’-সহ আরো বেশ কিছু সিনেমা এসেছে এই মাসে।

‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’-এর ট্রেইলার

কমেডি অভিনেতা কপিল শর্মার ‘ফিরাঙ্গি’ মুক্তির মাধ্যমে শুরু হয়েছে ডিসেম্বর। সঙ্গে ছিল আরবাজ খান এবং সানি লিয়নের ‘তেরা ইন্তেজার’। তবে এ মাসে সবার চোখ সাল্লু ভাইয়ের দিকে। পুরনো প্রেমিকার সঙ্গে নয়া জোট বেঁধে ২২ ডিসেম্বর তিনি আসেন ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’ নিয়ে। ‘এক থা টাইগার’-এর সিক্যুয়াল ভালো ব্যবসা করে বছরের শেষটা ভালো করে দেবে বলেই বলিউড প্রেমীদের আশা। সিনেমা মুক্তির আগে এর ট্রেইলার এবং গান যথেষ্টই আশাবাদী করছে এই সিনেমার প্রযোজক-পরিবেশকদের। সালমান খানের পারিশ্রমিক ছাড়াই ১৫০ কোটি রুপি বাজেটের সিনেমাটির বক্স অফিস সংগ্রহ শেষ পর্যন্ত কী হয়, তাই দেখার বিষয়। কেননা, মুক্তির তিনদিনের মাথায় ‘টাইগার’ নাম লিখিয়েছে একশ কোটি রুপির ক্লাবে।

২০১৭ সালে অতিমাত্রায় ব্যবসা করে ‘বাহুবলী-২’ এমন একটি অবস্থান তৈরি করেছে যেখানে পৌঁছতে পারেনি এ বছর মুক্তি পাওয়া আর কোনো সিনেমাই। গত বছরের শেষের দিকে মুক্তি পাওয়া আমির খানের ‘দঙ্গল’-ই কেবল এর সঙ্গে টেক্কা দিয়েছে। শাহরুখ, সালমান, সাইফ, ঋত্বিক, অক্ষয়রা কেউই পারেননি তামিল এই সিনেমার ধারে-কাছেও পৌঁছতে।

Comments

The Daily Star  | English
MP Anwarul Azim missing in India

AL MP Azim's daughter files abduction case

The daughter of Awami League MP Anwarul Azim Anar, who has been killed in India, filed an abduction case with Sher-e-Bangla Nagar Police Station this evening

24m ago