খেলা

ভাবার অনেক কিছু আছে আবার কিছুই নেই: তাইজুল

তবে কি বাংলাদেশ আরও একবার প্রথম ইনিংসে পাঁচশোর বেশি রান করেও হেরে যাবে? নাকি শেষ দিন ম্যাচটা বাঁচাতে পারবেন ব্যাটসম্যানরা? টেস্টের প্রথম দিন আর চতুর্থ দিনে যে আকাশ-পাতাল ফারাক বুঝিয়ে দিয়েছে চট্টগ্রাম টেস্ট। দলের হয়ে কথা বলতে আসা তাইজুল ইসলাম আমতা আমতা করে দিয়েছেন জবাব।
Taijul Islam
ফাইল ছবি

তবে কি বাংলাদেশ আরও একবার প্রথম ইনিংসে পাঁচশোর বেশি রান করেও হেরে যাবে? নাকি শেষ দিন ম্যাচটা বাঁচাতে পারবেন ব্যাটসম্যানরা? টেস্টের প্রথম দিন আর চতুর্থ দিনে যে আকাশ-পাতাল ফারাক বুঝিয়ে দিয়েছে চট্টগ্রাম টেস্ট। দলের হয়ে কথা বলতে আসা তাইজুল ইসলাম আমতা আমতা করে দিয়েছেন জবাব।

এমনিতে দিনের সেরা পারফর্মারই আসেন সংবাদ সম্মেলনে। চতুর্থ দিনে তাইজুল ইসলামই বাংলাদেশের সেরা পারফর্মার। শ্রীলঙ্কার ইনিংসে ৪ উইকেট তিনি নিয়েছেন। তবে ২১৯ রান দেওয়ায় এটাকে সাফল্য কিনা বলা যাচ্ছে না। যদিও তাকে বল করতে হয়েছে ৬৭ ওভারের বেশি।

ম্যাচের যা পরিস্থিতি তাতে বেশ অস্বস্তিতে স্বাগতিকরা। কি ভাবছে বাংলাদেশ দল? এমন প্রশ্নে তাইজুল হয়ে গেলে দার্শনিক , ‘ভাবার অনেক কিছু আছে। আবার কিছুই নেই। আমার মনে হয় আমাদের ম্যাচটা বাঁচাতে হবে। পঞ্চম দিনে কাজটা কঠিন হবে। তারপরও আমাদের ব্যাটসম্যানরা ভালো খেলতে পারে, হয়তো বা ইনশাল্লাহ— আমরা ভালো কিছু করবো।’

২০০ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংসে তড়িঘড়ি রান করতে দেখা গেছে বাংলাদেশকে। উইকেট বিলিয়ে এসেছেন ইমরুল কায়েস। তিন উইকেট পড়ে যাওয়াতেই অমন অ্যাপ্রোচ সামনে আসছে বলে মত তাইজুলের, ‘যখন ব্যাটসম্যান ব্যাট করে, তখন খারাপ বলে রান করতেই চায়। তারা খারাপ বল করেছে। রান হয়েছে। আবার তারা ভালো বোলিংও করেছে। আমার কাছে মনে হয়, আজ যদি একটা উইকেট থাকতো, তাহলে ঠিক ছিলো। তিনটা উইকেট বেশি হয়ে গেছে।’

প্রথম তিন দিন উইকেট থেকে খুব বেশি টার্ন পাননি স্পিনাররা। চতুর্থ দিনে নাকি পাল্টাতে শুরু করেছে উইকেটের ভাষা। শেষ দিনে আরও বিপদজনক কিছুর ইঙ্গিত দিলেন তাইজুল, ‘একই রকম ছিলো না। আজকে একটু চেঞ্জ ছিলো। আজকে চতুর্থ দিন ছিলো। যতো দিন যাবে, উইকেটের অতো খারাপ হতেই থাকবে। কালকের তুলনায় আজ বেশি হেল্প ছিলো।’

Comments

The Daily Star  | English

Putin says 'appreciates the support' of North Korea

Russian President Vladimir Putin said Wednesday he "appreciates the support" of North Korea, Russian state media reported, during a rare visit to Pyongyang to meet leader Kim Jong Un

23m ago