অস্ট্রেলিয়ার আদালতে সু চি’র বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগ

​মিয়ানমারে রোহিঙ্গা নিধনের জন্য অং সাং সু চিকে সরাসরি দায়ী করে বিচারের জন্য অস্ট্রেলিয়ার আদালতে আবেদন করা হয়েছে। আবেদনে তার বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধ সংঘটনের অভিযোগে বিচার চাওয়া হয়েছে।
Suu Kyi
মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সেলর অং সাং সু চি। ছবি: রয়টার্স

মিয়ানমারে রোহিঙ্গা নিধনের জন্য অং সাং সু চিকে সরাসরি দায়ী করে বিচারের জন্য অস্ট্রেলিয়ার আদালতে আবেদন করা হয়েছে। আবেদনে তার বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধ সংঘটনের অভিযোগে বিচার চাওয়া হয়েছে।

দ্য গার্ডিয়ানের খবরে জানানো হয়, অস্ট্রেলিয়ার কয়েকজন আইনজীবী গতকাল শুক্রবার মেলবোর্নের ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি প্রাইভেট প্রসিকিউশন আবেদন করেছেন। আবেদনে বলা হয়, মিয়ানমারে রোহিঙ্গারা নিরাপত্তা বাহিনীর দ্বারা পদ্ধতিগত (সিস্টেমেটিক) নিপীড়নের শিকার হয়েছে। এতে আরও বলা হয়, রোহিঙ্গা নির্যাতন থামাতে সু চি তার ক্ষমতা ব্যবহারে ব্যর্থ হয়েছেন। যার আরেকটি অর্থ হয়, রোহিঙ্গাদের জোর পূর্বক তাদের ঘর বাড়ি থেকে বিতাড়নের জন্য সেনাবাহিনীকে তিনি নিজেই সুযোগ করে দিয়েছেন।

তবে অস্ট্রেলিয়ার প্রচলিত আইন অনুযায়ী সরাসরি কোনো বিদেশি নাগরিকের বিরুদ্ধে মামলা করা যায় না। এর জন্য দেশটির এটর্নি জেনারেলের অনুমতি নিতে হয়। সু চি’র বিচারের জন্যও নিয়ম প্রযোজ্য।

তবে গার্ডিয়ানের খবরে আরও বলা হয়, অস্ট্রেলিয়ায় সু চি’র বিচারের জন্য এটর্নি জেনারেল ক্রিসিটিয়ান পোর্টারের অনুমতি পাওয়ার সম্ভাবনা খুবই ক্ষীণ।

চলতি সপ্তাহান্তে আসিয়ান ও অস্ট্রেলিয়ার বিশেষ শীর্ষ সম্মেলনে যোগ দিতে সিডনি যাবেন সু চি। অস্ট্রেলিয়া সরকারের আমন্ত্রণেই তিনি অস্ট্রেলিয়া সফরে যাচ্ছেন। এই অবস্থায় সু চি’কে অস্ট্রেলিয়া সরকার বিব্রত করবে না বলেই মনে করা হচ্ছে।

Comments

The Daily Star  | English

At least 44 killed in building blaze

At least 44 people were killed and 22 others critically injured in a fire at a seven-storey building on Bailey Road in the capital last night.

6h ago