আয়ারল্যান্ডকে হারিয়ে বিশ্বকাপে আফগানিস্তান

বাছাইপর্বের শুরুটা ছিল আফগানিস্তানের জন্য ভীতি জাগানিয়া। স্কটল্যান্ড, জিম্বাবুয়ে আর হংকংয়ের কাছে হেরে সুপারসিক্স অনিশ্চিত ছিল তাদের। শেষ পর্যন্ত ভাগ্যের ফেরে সুপারসিক্সে তো উঠলই, অন্যদের ব্যর্থতায় ২০১৯ সালে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের মূলপর্বেও জায়গা করে নিয়েছে তারা।
Afghanistan
ছবি: আইসিসি

বাছাইপর্বের শুরুটা ছিল আফগানিস্তানের জন্য ভীতি জাগানিয়া। স্কটল্যান্ড, জিম্বাবুয়ে আর হংকংয়ের কাছে হেরে সুপারসিক্স অনিশ্চিত ছিল তাদের। শেষ পর্যন্ত ভাগ্যের ফেরে সুপারসিক্সে তো উঠলই, অন্যদের ব্যর্থতায় ২০১৯ সালে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের মূলপর্বেও জায়গা করে নিয়েছে তারা।  

বাছাইপর্বের সুপারসিক্সের আগেই বাদ পড়তে যাচ্ছিল আফগানিস্তান। তাকিয়েছিল অন্যদের ব্যর্থতার দিকে। গ্রুপ পর্বে নেপালের কাছে হংকংয়ের অপ্রত্যাশিত হার সুপারসিক্সের দরজা খোলে দেয় আফগানদের। শূন্য হাতে সুপারসিক্সে উঠেও কোন আশা ছিল না তাদের। সব ম্যাচ জিতলেও কাজ হতো না। সেখানেও তাকিয়ে থাকতে হতো অন্যদের ব্যর্থতার দিকে। আফগানিস্তানকে বিশ্বকাপে তুলতে যেন পালা করে ব্যর্থতার মিছিলে নেমেছিল নামে হংকংয়ের পর জিম্বাবুয়ে।  শুক্রবার হারারেতে আফগানিস্তানের সামনে সমীকরণ আগের দিনই সহজ করে দিয়ে যায় তারাই। দুর্বল সংযুক্ত আরব আমিরাতের কাছে নাটকীয় হারে আরেকবার লাইফলাইন পেয়ে শতভাগ কাজে লাগালো আফগানরা। বাঁচা-মরার লড়াইয়ে আয়ারল্যান্ডকে ৫ উইকেটে হারিয়ে বিশ্বকাপ নিশ্চিত করেছে রশিদ খানদের দল। 

আগের দিন জিম্বাবুয়ে জিতে গেলে এটি হতো নিছক আনুষ্ঠানিকতার লড়াই। জিম্বাবুয়ের ব্যর্থতায় ম্যাচটি পরিণত হয় বিশ্বকাপের উঠার মঞ্চ হিসেবে। সেখানে টস জিতে আগে ব্যাটিং পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি আইরিশরা। দুই ওপেনার ভালো শুরু আনলেও তাদের রান তোলার গতি ছিল প্রচণ্ড ধীর। ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২০৯ রানে করতে পারে তারা। শেষ ওভার পর্যন্ত ব্যাট করে ৫ উইকেট হারিয়ে ওই রান তুলে নিয়েছে আফগানিস্তান। 

২১০ রানের লক্ষ্যে দুই ওপেনার দারুণ শুরু এনে দেন আফগানিস্তানকে। মোহাম্মদ শাহজাদ আর গোলাবদান নাইম মিলে ৮৬ রানের জুটিতেই মূলত জয়ের ভীত গড়ে দেন। ৫৪ করে শাহজাদ আর ৪৫ করে নাইব আউট হওয়ার পর কিছুটা পথ হারায় আফগানরা। তবে অধিনায়ক আসগাজ স্টেনিকজাই দিয়েছেন সামনে থেকে নেতৃত্ব। তার ২৯ বলে ৩৯ রানের ইনিংসে কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছায় টেস্ট মর্যাদা পাওয়া এশিয়ার নতুন এই ক্রিকেট শক্তি। 

এর আগে পল স্টার্লিংয়ের ৫৫ আর কেভন ওব্রায়েনের ৪১ রানের ইনিংসে দুশো পেরোয় আইরিশরা। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৫৫ রান করলেও স্টার্লিং ছিলেন বেশ মন্থর। অধিনায়ক উইলিয়াম পোটারফিল্ড ও বিলবার্নের ব্যাট থেকেও আসে মন্থর ইনিংস। টপ অর্ডারের এই শম্বুক গতি শেষের দিকে চেষ্টা করেও খুব একটা পোষাতে পারেনি আয়ারল্যান্ড। এদিনও আফগানদের বোলিং হিরো রশিদ খান। ১০ ওভার বল করে ৪০ রানে ৩ উইকেট পেয়েছেন তিনি। ৪৩ তম ওডিআইতে ৯৯ উইকেট নিয়ে এই লেগ স্পিনার আছেন সবচেয়ে দ্রুত ১০০ উইকেট নেওয়ার বিশ্ব রেকর্ডের সামনে। 

স্কটল্যান্ডকে হারিয়ে প্রথম দল হিসেবে বিশ্বকাপ নিশ্চিত করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এবার তাদের সঙ্গী হলো আফগানিস্তান। বিশ্বকাপে জায়গা পাওয়া দুই দল বাছাইপর্বের ফাইনালে খেলে স্থান নির্ধারণ করবে।  ইংল্যান্ডে ২০১৯ বিশ্বকাপ হতে যাচ্ছে ১০ দলের। র‍্যাঙ্কিং এর সেরা ৮ দলের সাথে বাছাইপর্ব পেরিয়ে যোগ দিচ্ছে দুই দল।  এবারই প্রথম বিশ্বকাপে ঠাঁই হয়নি কোন সহযোগী সদস্য দেশের। এমনকি দুই টেস্ট খেলুড়ে দলও খেলতে পারছে না বিশ্বকাপ।  



 

Comments

The Daily Star  | English
Will the Buet protesters’ campaign see success?

Ban on student politics: Will Buet protesters’ campaign see success?

One cannot help but note the irony of a united campaign protesting against student politics when it is obvious that student politics is very much alive on the Buet campus

8h ago