স্বৈরতান্ত্রিক দেশের তালিকায় নাম ওঠায় লজ্জিত বিএনপি

জার্মানি ভিত্তিক একটি গবেষণা সংস্থার প্রতিবেদনে “একনায়কতন্ত্রের” তালিকায় বাংলাদেশ নাম যুক্ত হওয়ায় লজ্জাবোধ করছে বিএনপি। বর্তমান সরকার বাংলাদেশকে এই অবস্থায় নিয়ে গেছে বলেও দলটি অভিযোগ তুলেছে।
শনিবার নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাদের নিয়ে যৌথসভার পর সংবাদ সম্মেলন করে বিএনপি। ছবি: মোহাম্মদ আল মাসুম মোল্লা

জার্মানি ভিত্তিক একটি গবেষণা সংস্থার প্রতিবেদনে “একনায়কতন্ত্রের” তালিকায় বাংলাদেশ নাম যুক্ত হওয়ায় লজ্জাবোধ করছে বিএনপি। বর্তমান সরকার বাংলাদেশকে এই অবস্থায় নিয়ে গেছে বলেও দলটি অভিযোগ তুলেছে।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, “এই গবেষণায় আমরা বাংলাদেশের নাগরিক হিসেবে, গণতন্ত্রের জন্য লড়াই করে যারা স্বাধীনতা অর্জন করেছিলাম তারা অত্যন্ত লজ্জাবোধ করছি। এবং আমরা এর নিন্দা জানাচ্ছি।”

আজ শনিবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাদের নিয়ে যৌথসভার পর সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির মহাসচিব এসব কথা বলেন।

ফখরুল বলেন, “জার্মান একটি প্রতিষ্ঠানের গবেষণার ভিত্তিতে বিবিসি অনলাইন একটি খবর ছাপিয়েছে যেটা আজ সব পত্রিকায় এসেছে। পৃথিবীর রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে বাংলাদেশ নিম্নের দিকের পাঁচটি দেশের অন্যতম একটি। যেখানে গণতন্ত্র বিদায় নিয়েছে। এবং স্বৈরতন্ত্র প্রতিষ্ঠিত হয়েছে।”

গত বৃহস্পতিবার জার্মানির গবেষণা প্রতিষ্ঠান বেরটেলসমান স্টিফটুং এক প্রতিবেদন প্রকাশ করে। “চাপের মুখে গণতন্ত্র: বিশ্বজুড়ে বাড়ছে নিপীড়ন ও বিভেদ” শিরোনামে প্রকাশিত প্রতিবেদনে নতুন করে পাঁচটি দেশকে একনায়কতান্ত্রিক দেশের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। তার মধ্যে বাংলাদেশও রয়েছে।

প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, বাংলাদেশসহ ওই পাঁচটি দেশ গণতন্ত্রের ন্যূনতম মানদণ্ড পূরণ করছে না। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পর্যালোচনা চলাকালে বাংলাদেশে রাজনৈতিক সহিংসতা, বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ড, মৌলবাদীদের হামলা সংঘটিত হতে দেখা গেছে।

সরকার স্বৈরতান্ত্রিক হয়ে বাংলাদেশকে আজ এই অবস্থায় নিয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

Comments

The Daily Star  | English
Bangladesh lacking in remittance earning compared to four South Asian countries

Remittance hits eight-month high

In February, migrants sent home $2.16 billion, up 39% year-on-year

1h ago