খেলা

দেশে ফেরত যাচ্ছেন স্মিথ, ওয়ার্নার আর বেনক্রফট

বল টেম্পারিং স্ক্যান্ডালে শেষ পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে বুধবারই স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যামেরন বেনক্রফটকে দেশে ফেরত পাঠানো হচ্ছে। কোচ ড্যারেন লেম্যান থেকে যাচ্ছেন দলের সঙ্গে, পালন করবেন দায়িত্ব। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া তিন ক্রিকেটারের শাস্তি আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে ঘোষণা করবে।
smith-_warner
ফাইল ছবি (এএফপি)

বল টেম্পারিং স্ক্যান্ডালে শেষ পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে বুধবারই স্টিভেন স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার ও ক্যামেরন বেনক্রফটকে দেশে ফেরত পাঠানো হচ্ছে। কোচ ড্যারেন লেম্যান থেকে যাচ্ছেন দলের সঙ্গে, পালন করবেন দায়িত্ব। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া তিন ক্রিকেটারের শাস্তি আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে ঘোষণা করবে। 

তিন ক্রিকেটারের বদলি হিসেবে জোহেন্সবার্গে অস্ট্রেলিয়া দলের সঙ্গে যোগ দেবেন ম্যাট রেনশ, জো বার্নস ও গ্ল্যান ম্যাক্সওয়েল। বল টেম্পারিংয়ের পূর্ব পরিকল্পনায় ওই তিন ক্রিকেটারের যুক্ত থাকার প্রমাণ পেয়েছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু এই পরিকল্পনায় কোচ ড্যারেন লেম্যানের জড়িত থাকার কোন বিশ্বাসযোগ্য প্রমান না মেলায় তিনি তার জায়গা হারাচ্ছেন না। 

সিরিজের বাকি সময়েও দলকে নেতৃত্ব দেবেন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান টিম পেইন।

মঙ্গলবার জোহেন্সবার্গে সংবাদ সম্মেলনে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার সিইও এসব সিদ্ধান্ত জানিয়ে বলেন, 'তদন্তে এই ঘটনায় স্মিথ, ওয়ার্নার ও বেনক্রফটের সম্পৃক্ততার প্রমাণ মিলেছে।' তার বোর্ডের পক্ষ থেকে এই ঘটনায় সবার কাছে ক্ষমাও চেয়েছেন। 

'বৃহত্তর ভাবমূর্তি ও বিশ্বাসযোগ্যতার স্বার্থে এই বরখাস্ত দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।' 

গত শনিবার কেপটাউন টেস্টের তৃতীয় দিনে বল টেম্পারিং করেন অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার ক্যামেরন বেনক্রফট। দুই হাত দিয়ে বলের আকৃতি বদলের চেষ্টা করা তার একটি ফুটেজ ফাঁস হয়ে যায়। এক পর্যায়ে দেখা যায় তিনি পকেটে একটা স্যান্ড পেপার রাখছেন। পরে স্যান্ড পেপার পকেট থেকে তার আন্ডারগার্মেন্টসের ভেতর চালান করে দেন। আরেকটি ফুটেজে দেখা যায় কোচ ড্যারেন লেম্যান ও বদলি খেলোয়ার পিটার হ্যান্ডসকম্বের সঙ্গে ওয়াকিটকিতে কথা বলছেন। হ্যান্ডসকম্ব পরে মাঠে ঢুকে বেনক্রফটকে কিছু একটা বলেন। 

দিনের খেলা শেষে সংবাদ সম্মেলনে বল টেম্পারিং করার কথা স্বীকার করেন বেনক্রফট। পাশে থাকা অধিনায়ক স্মিথ জানান, তিনি পুরো ব্যাপারটি জানতেন এবং লাঞ্চের বিরতির সময় দলের লিডারশির গ্রুপ মিলেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। 

রোববার সকালে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া এই ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করে। দেশটির প্রধানমন্ত্রী নিজের হতাশা জানিয়ে বক্তব্য রাখার পর টেস্টের মাঝপথেই অধিনায়ক পদ থেকে স্টিভেন স্মিথ ও সহ-অধিনায়ক পদ থেকে ডেভিড ওয়ার্নারকে সরিয়ে দেওয়া হয়। আইসিসির রায়ে এক টেস্ট নিষিদ্ধ হন স্মিথ, পুরো ম্যাচ ফি জরিমানাও হয় তার। বেনক্রফটকে দেওয়া হয় ডিমেরিট পয়েন্ট ও জরিমানা। আইসিসির রায়ে নাম না আসায় কোন শাস্তি পাননি ওয়ার্নার। তবে নিজ দেশের বোর্ডের তদন্তের পর বাঁচতে পারলেন না তিনিও। 

Comments

The Daily Star  | English

Dos and Don’ts during a heatwave

As people are struggling, the Met office issued a heatwave warning for the country for the next five days

4h ago