জঙ্গি হামলায় আহত হওয়ার পর প্রথম নিজ দেশে মালালা

কন্যশিশুদের শিক্ষার ওপর গুরুত্ব দিয়ে পাকিস্তানের সোয়াত জেলায় তালেবান জঙ্গিদের হামলার শিকার হন মালালা ইউসুফজাই। তারপর উন্নত চিকিৎসার জন্যে তাঁকে নেওয়া হয় দেশের বাইরে। সে ঘটনার ছয় বছর পর নিজের দেশে ফিরলেন মালালা।
Malala Yousafzai
নোবেল শান্তি পুরস্কার বিজয়ী মালালা ইউসুফজাই। ছবি: রয়টার্স ফাইল ফটো

কন্যশিশুদের শিক্ষার ওপর গুরুত্ব দিয়ে পাকিস্তানের সোয়াত জেলায় তালেবান জঙ্গিদের হামলার শিকার হন মালালা ইউসুফজাই। তারপর উন্নত চিকিৎসার জন্যে তাঁকে নেওয়া হয় দেশের বাইরে। সে ঘটনার ছয় বছর পর নিজের দেশে ফিরলেন মালালা।

পাকিস্তানের জিও টিভিতে দেখা যায় নিরাপত্তা বলয়ের ভেতর দিয়ে নোবেলের ইতিহাসে কনিষ্ঠতম বিজয়ী মালালা ইউসুফজাই ইসলামাবাদ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে একটি গাড়ির দিকে হেঁটে যাচ্ছেন।

নারীশিক্ষা প্রসারের জন্যে কাজ করা মালালা মাত্র ১৭ বছর বয়সে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার লাভ করেন ২০১৪ সালে।

যুক্তরাজ্যে বসবাসকারী মালালা গত সপ্তাহে এক টুইটার বার্তায় তাঁর মাতৃভূমির জন্যে দীর্ঘ প্রতীক্ষার কথা লিখেন।

গত ২৩ মার্চ তিনি লিখেন, “এই দিন, আমার মধুর স্মৃতিগুলো মনে পড়ছে। বাড়ির ছাদে ক্রিকেট খেলা এবং স্কুলে জাতীয় সংগীত গাওয়া। শুভ পাকিস্তান দিবস!”

উল্লেখ্য, ২০১২ সালে মুখোশপড়া বন্দুকধারীরা বাস থামিয়ে পরীক্ষা দিয়ে বাড়ি ফেরা মালালার মাথায় গুলি করে। এরপর, মালালাকে উন্নত চিকিৎসার জন্যে বিদেশে নেওয়া হয়।

তবে সুস্থতার পর দেশে ফিরত না পারায় মালালা যুক্তরাজ্যে অবস্থান করেন। সেখানে তিনি মালালা ফান্ড গঠন করেন। এর মাধ্যমে তিনি পাকিস্তান, নাইজেরিয়া, জর্ডান, সিরিয়া এবং কেনিয়ায় শিক্ষা প্রসারে সহায়তা করা স্থানীয় সংস্থাগুলোর সঙ্গে কাজ করতে শুরু করেন।

বর্তমানে অক্সফোর্ডে অধ্যয়নরত মালালা এ মাসের শুরুতে তাঁর নোবেল পুরস্কারের অর্থ দিয়ে নিজ জেলা সোয়াতের কাছে শাংলায় মেয়েদের জন্যে একটি নতুন স্কুল প্রতিষ্ঠা করেন।

Comments

The Daily Star  | English

93pc jobs on merit, 7pc from quotas

Govt issues circular; some quota reform organisers reject it

2h ago