সারা দেশে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ, অবরোধ

​সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে গতকাল সারাদিন বিক্ষোভ ও রাতভর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় পুলিশ ও ছাত্রলীগের সাথে সংঘর্ষের পর আজ সকাল থেকে দেশে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ ও অবরোধ শুরু হয়েছে।
বিদ্যমান কোটা ব্যবস্থার সংস্কার ও আন্দোলনে হামলার প্রতিবাদে রাজু ভাস্কর্যের সামনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ। ছবি: স্টার/আমরান হোসেন

সরকারি চাকরিতে কোটা সংস্কারের দাবিতে গতকাল সারাদিন বিক্ষোভ ও রাতভর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় পুলিশ ও ছাত্রলীগের সাথে সংঘর্ষের পর আজ সকাল থেকে দেশে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে বিক্ষোভ ও অবরোধ শুরু হয়েছে।

সকাল থেকে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে থেকে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ এবং সড়ক ও রেল অবরোধের খবর পাওয়া গেছে।

আন্দোলনের কেন্দ্রস্থল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে গত রাতে সংঘর্ষের পর কয়েক ঘণ্টার বিরতি দিয়ে ফের বিক্ষোভ শুরু করেছেন শিক্ষার্থীরা। কয়েক হাজার শিক্ষার্থী কলাভবন, কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি, টিএসসি ও দোয়েল চত্বরে বিক্ষোভ মিছিল করেছেন। তারা বিদ্যমান ৫৬ শতাংশ কোটা ১০ শতাংশে নামিয়ে আনার দাবিতে বিভিন্ন স্লোগান দিচ্ছেন।

সকাল থেকেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে ও আশপাশের এলাকায় পুলিশ ও র‍্যাব মোতায়েন করা হয়েছে। শাহবাগ, দোয়েল চত্বর, নীলক্ষেতসহ গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে প্রচুর সংখ্যক পুলিশ ও র‍্যাবের উপস্থিতি দেখা গেছে। পরিস্থিতি মোকাবেলায় সাঁজোয়া যান ও জলকামান প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ। ছবি: স্টার

আমাদের জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি জানান, সরকারি চাকরিতে কোটা ব্যবস্থার সংস্কারের দাবিতে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করেছে একদল শিক্ষার্থী। সকাল থেকে মহাসড়ক অবরোধ করে কোটা সংস্কারের দাবিতে তারা স্লোগান দিচ্ছেন। শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি কম থাকায় সকাল থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস বন্ধ রয়েছে।

শিক্ষার্থীদের অবরোধের কারণে সকাল সাড়ে ১১টায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ ছিল। জলকামান নিয়ে বিক্ষোভকারীদের পাশে অবস্থান নিয়েছে পুলিশ।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়কে কয়েক হাজার শিক্ষার্থী অবস্থান নিয়েছেন। সকাল ১০টা থেকে এই মহাসড়কে যান চলাচল বন্ধ করে দেন শিক্ষার্থীরা। দুপুর পৌনে ১২টায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বেশ কয়েকজন শিক্ষক আন্দোলনকারীদের সাথে ছিলেন।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক অবরোধ করে অবস্থান নিয়েছেন কয়েক হাজার শিক্ষার্থী। ছবি: স্টার

অপরদিকে সকাল সাড়ে ১১টা থেকে রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (রুয়েট) শিক্ষার্থীরা প্রধান ফটকের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করেন।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা শাটল ট্রেন বন্ধ করে দিয়ে কোটা সংস্কারের দাবিতে বিক্ষোভ শুরু করেছেন।

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরাও কোটা সংস্কার আন্দোলনে একাত্মতা প্রকাশ করে অবস্থান ধর্মঘট পালন করছেন। ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে পাঁচ শতাধিক শিক্ষার্থী সকাল ৯টা থেকে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে শান্তিপূর্ণভাবে কর্মসূচি পালন করছেন বলে আমাদের সিলেট প্রতিনিধি জানিয়েছেন। সেখানে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে বাড়তি শক্তি নিয়ে অবস্থান করতে দেখা গেছে।

সরকারি চাকরিতে বিদ্যমান কোটা সংস্কারের দাবিতে গতকাল রবিবার দুপুর আড়াইটা থেকে আন্দোলনকারী সাধারণ শিক্ষার্থীরা প্রায় পাঁচ ঘণ্টা শাহবাগ অবরোধ করে রেখেছিল। আন্দোলনকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত শত শত টিয়ার শেল ও রাবার বুলেট ছোড়ে পুলিশ। জলকামান থেকে গরম পানিও ছিটানো হয়। ছাত্ররা বিক্ষিপ্তভাবে পুলিশকে প্রতিরোধের চেষ্টা করে। আন্দোলনে সরকার দলীয় ছাত্র সংগঠন ছাত্রলীগের হামলারও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

Comments

The Daily Star  | English
US sanctions ex-army chief Aziz, family members

US sanctions ex-army chief Aziz, family members

The United States has imposed sanctions on former chief of Bangladesh Army Aziz Ahmed and his immediate family members due to his involvement in significant corruption

2h ago