দল বিশ্লেষণ: এবার কতদূর যাবে আর্জেন্টিনা

আর মাত্র ১০ দিন পর রাশিয়ায় শুরু হতে যাচ্ছে ফুটবলের মহাযজ্ঞ। এরমধ্যেই ফুটবল উন্মাদনা শুরু হয়ে গেছে ভক্তদের মধ্যে। উত্তেজনার পারদ দিন দিন বাড়ছেই। পছন্দের দলগুলো কিংবা তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী দলগুলো কেমন করবে এ নিয়ে ভাবনার শেষ নেই। আজ লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনার স্কোয়াড, বিশ্বকাপে সম্ভাবনা হতে শুরু করে শক্তি-দুর্বলতার দিকগুলো তুলে ধরা হলো-
argentina
হাইতির বিপক্ষে খেলা আর্জেন্টিনার প্রথম একাদশ। ছবি : রয়টার্স

আর মাত্র ১০ দিন পর রাশিয়ায় শুরু হতে যাচ্ছে ফুটবলের মহাযজ্ঞ। এরমধ্যেই ফুটবল উন্মাদনা শুরু হয়ে গেছে ভক্তদের মধ্যে। উত্তেজনার পারদ দিন দিন বাড়ছেই। পছন্দের দলগুলো কিংবা তাদের প্রতিদ্বন্দ্বী দলগুলো কেমন করবে এ নিয়ে ভাবনার শেষ নেই। আজ লিওনেল মেসির আর্জেন্টিনা স্কোয়াড, বিশ্বকাপে তাদের সম্ভাবনা থেকে শুরু করে শক্তি-দুর্বলতার দিকগুলো তুলে ধরা হলো-

ডাকনাম : লা আলবিসেলেস্তা।

কোচ: হোর্হে সাম্পাওলি।

অধিনায়ক: লিওনেল মেসি।

র‍্যাঙ্কিং: ৫।

বিশ্বকাপে অংশগ্রহণ : ১৬ বার।

সেরা সাফল্য: চ্যাম্পিয়ন- ১৯৭৮, ১৯৮৬।

যেভাবে বিশ্বকাপের মূল পর্বে এসেছে:?

ল্যাটিন অ্যামেরিকার বাছাই পর্বে তৃতীয় হয়ে বিশ্বকাপের মূলপর্বে জায়গা করে নেয় আর্জেন্টিনা। তবে তাদের এই যাত্রাপথ ছিল বিস্তর সংকটেভরা। বাছাইপর্বে সুতোর উপর ঝুলতে থাকা স্বপ্ন পূরণ করেছে শেষ ম্যাচে ইকুয়েডরকে হারিয়ে।

এর আগে টানা চার ম্যাচ হেরে জমা হচ্ছিল শঙ্কা। এক বাছাইপর্ব পেরুতে তিনজন কোচ বদল করতে হয় আর্জেন্টিনাকে। জেরার্দো মার্তিনোর শুরুর পর এদগার্দো বাউসা, পরে দায়িত্ব পান সাম্পাওলি।

বাছাইপর্বে আর্জেন্টিনার বারবার পা কেটেছে পচা শামুকে। কলম্বিয়া, চিলি, উরুগুয়ের মতো দলগুলোর সঙ্গে দারুণ খেললেও হেরে বসে ভেনুজিয়েলা ও পেরুর মতো দুর্বল দলের কাছ। যার জেরেই বারবার কোচ বদল।

সূচি : 

১৬ জুন ২০১৮

আর্জেন্টিনা বনাম  আইসল্যান্ড

সন্ধ্যা ৭টা

২১ জুন ২০১৮

আর্জেন্টিনা বনাম ক্রোয়েশিয়া

 রাত ১০টা

২৬ জুন ২০১৮

আর্জেন্টিনা বনাম  নাইজেরিয়া

রাত ১০টা

স্কোয়াড : 

গোলরক্ষক: নাহুয়েল গুজমান, উইলি কাবায়েরো, ফ্রাঙ্কো আরমানি।

ডিফেন্ডার: গ্যাব্রিয়েল মারকাদো, নিকোলাস ওতামেন্দি, ফেদেরিকো ফাজিও, মার্কোস রোহো, নিকোলাস তাগিয়াফিকো, মার্কোস আকুনা, ক্রিস্তিয়ান আনসালদি।

মিডফিল্ডার: হাভিয়ের মাসচেরানো, মানুয়েল লানজিনি, মাক্সিমিলিয়ানো মেজা, লুকাস বিগলিয়া, এভার বানেগা, জিওভানি লো সেলসো, আনহেল দি মারিয়া, এদুয়ার্দো সালভিয়ো, ক্রিস্তিয়ান পাভোন।

ফরোয়ার্ড: লিওনেল মেসি, সার্জিও আগুয়েরো, গঞ্জালো হিগুয়েইন, পাওলো দিবালা।

সম্ভাব্য একাদশ : (৪-৩-৩) গুজমান, আকুনা, ওতামেন্দি, রোহো, ফাজিও, মাসচেরানো, পাভোন, লানজিনি, দি মারিয়া, মেসি, হিগুয়েইন।

জার্সি : ঐতিহ্যবাহী আকাশী নীল ও সাদা রঙের জার্সি পড়ে এবারও খেলবে আর্জেন্টিনা। তবে হোম জার্সি আগের মতো থাকলেও বদলেছে তাদের অ্যাওয়ে জার্সি। নীল রঙের জার্সির পরিবর্তে এবার কালো রঙের অ্যাওয়ে জার্সি বেছে নিয়েছে দলটি।

বিশ্বকাপের ফাইনালে যাওয়ার সমীকরণ :  

রাশিয়ায় গ্রুপ পর্বে আর্জেন্টিনার হিসেব খুব সোজা নয়। গ্রুপ ‘ডি’তে মেসিদের প্রতিপক্ষ আইসল্যান্ড, ক্রোয়েশিয়া ও নাইজেরিয়া। আইসল্যান্ড গত ইউরোতে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠে নজর কেড়েছিল। বিশ্বকাপ বাছাই পর্বে নেদারল্যান্ডসকে বিদায় করে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই মূল পর্বে আসে তারা। গ্রুপের অপর দুই দলও সমীহ করার মতো। ক্রোয়েশিয়া পরীক্ষিত শক্তি। আর সুপার ঈগল নাইজেরিয়া আফ্রিকার অন্যতম শক্তিশালী দল। কয়েক মাস আগে এই আর্জেন্টিনাকেই তারা ৪-২ গোলে হারিয়েছিলো।

উপরে যাওয়ার সম্ভাব্য পথ কঠিন হলেও গ্রুপ পর্বে আর্জেন্টিনার চ্যাম্পিয়ন সম্ভাবনাই বেশি। তবে মূল প্রতিরোধে পড়বে তারা কোয়ার্টার ফাইনালে। যেখানে তাদের সম্ভাব্য প্রতিদ্বন্দ্বী স্পেন অথবা পর্তুগাল। এ দলদুটির বিপক্ষে কদিন আগেই হেরেছে আর্জেন্টিনা। তবে স্পেনের চেয়ে পর্তুগালের মুখোমুখি হতেই চাইবে মেসিরা। সেমি ফাইনালে গেলে আর্জেন্টাইনরা প্রতিপক্ষ হিসেবে পেতে পারে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন জার্মানিকে।

টানা দ্বিতীয়বার ফাইনালে উঠলে মেসিদের প্রতিপক্ষ হতে পারে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিল কিংবা ফ্রান্স।

সেরা তারকা:  আগের দুই আসরের মতো এবারও দলটি চেয়ে থাকবে লিওনেল মেসির দিকেই। সাম্প্রতিক সময়ে দারুণ ফর্মেও আছেন তিনি। বার্সেলোনার হয়ে লা লিগায় ৩৬ ম্যাচে করেছেন ৩৪ গোল। হয়েছেন ইউরোপিয়ান ঘরোয়া লিগের সর্বোচ্চ গোলদাতা। সব মিলিয়ে চলতি মৌসুমে তার গোল ৪৫। জাতীয় দলের হয়ে শেষ দুই ম্যাচে করেছেন হ্যাটট্রিক। তাই তাকে ঘিরেই ঘুরছে আলবিসেলেস্তাদের সব স্বপ্ন।

উঠতি তারকা  : বোকা জুনিয়র্সের ক্রিস্টিয়ান পাভন হয়ে উঠতে পারেন আর্জেন্টাইনদের গোপন অস্ত্র। হাইতির বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে দারুণ খেলেছেন পাভোন। বিশেষ করে অল্প সময়েই লিওনেল মেসির সঙ্গে তার বোঝাপড়াটা হয়েছে দারুণ। বার্সেলোনায় জাভি-ইনিয়েস্তারা মেসিকে সমর্থন করতেন, হাইতির বিপক্ষে সে কাজটিই করেছেন পাভোন। মেসিও তার খেলা দেখে মুগ্ধ। ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে পারলে নজর করতে পারেন এ তরুণ।

শক্তি: বরাবরের মতো এবারও আর্জেন্টিনার মূল শক্তি আক্রমণভাগ। মেসির সঙ্গে আছেন সার্জিও আগুয়েরো, গঞ্জালো হিগুয়েইন, পাওলো দিবালার মতো খেলোয়াড়রা। ক্লাব পর্যায়ে যারা দারুণ সফল। জাতীয় দলের জার্সিতে যদিও ততটা নন। তবে জ্বলে উঠতে পারেন যখন তখন। আর তা হলে বড় স্বপ্নই দেখতে পারেন সমর্থকরা।

দুর্বলতা : আর্জেন্টিনার দুর্বলতা আগের মতোই রক্ষণে। ম্যানসিটি তারকা নিকোলাস ওতামেন্দিই এ বিভাগের সেরা তারকা। এমনকি মূল গোলরক্ষক সের্জিও রোমেরোকে হারিয়ে এ বিভাগেও দুর্বলতা তৈরি হয়েছে। দলে নেই অভিজ্ঞ কোনও গোলরক্ষক।

Comments

The Daily Star  | English

Trade at centre stage between Dhaka, Doha

Looking to diversify trade and investments in a changed geopolitical atmosphere, Qatar and Bangladesh yesterday signed 10 deals, including agreements on cooperation on ports, and overseas employment and welfare.

3h ago