‘আমরা টি-টোয়েন্টির জন্য এখনো প্রস্তুত নই’

আফগানিস্তানের কাছে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে হতাশাজনক হারে অশনি সংকেত দেখছেন বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস। তার মতে টি-টোয়েন্টি সংস্করণে বাংলাদেশ পড়ে আছে আগের অবস্থায়, দেখা মিলছে না কোন উন্নতির রেখা।
Shakib AL hAsan
ফাইল ছবি: বিসিবি

আফগানিস্তানের কাছে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচে হতাশাজনক হারে অশনি সংকেত দেখছেন বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস। তার মতে টি-টোয়েন্টি সংস্করণে বাংলাদেশ পড়ে আছে আগের অবস্থায়, দেখা মিলছে না কোন উন্নতির রেখা।

ভারতের দেরাদুনে আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচ ৪৫ রানে হারার পর পরের ম্যাচ বাংলাদেশ হেরেছে ৬ উইকেটে। প্রথম দুই ম্যাচেই সিরিজ খুইয়ে সাকিব আল হাসানের দলের সামনে এখন হোয়াইটওয়াশের শঙ্কা।

প্রথম ম্যাচে বোলাররা করেছেন হতাশ। দুই ম্যাচেই ব্যাটসম্যানরা প্রত্যাশার কাছাকাছি কিছু করতে পারেননি। বুধবার এই সিরিজ হার নিয়ে নিজের উদ্বেগ জানান বোর্ড পরিচালক জালাল ইউনুস, ‘এটা আমাদের জন্য অশনি সংকেত। আমাদের খুবই সতর্ক হবে। তার মানে আমরা এখনও টি টোয়েন্টির জন্য প্রস্তুত হইনি। এই সংস্করণে আমরা যেখানে ছিলাম সেই অবস্থানেই আছি। উন্নতি করিনি।’

জালাল ইউনুসকে বেশি হতাশ করেছেন দলের তরুণ ক্রিকেটাররা। তারা আন্তর্জাতিক মানের কি না তাও নিয়েও সংশয় দেখা দিয়েছে তার মনে, ‘যেটা আমরা আশা করেছিলাম  বিপিএলে যে প্লেয়ারগুলো পারফর্ম করে তারা হয়তো এখানে গিয়ে পারফর্ম করবে কিন্তু তাদের সেই পারফরম্যান্সটা দেখছি না। সেই প্রয়োগটা ঘরোয়া ক্রিকেটে দেখলেও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দেখছি না। এই জায়গায়টায় আমাদের কাজ করতে হবে। আসলেই তারা আন্তর্জাতিক মানের কী না। এই পার্থক্যটা আমাদের দেখতে হবে।’

বিপিএলে পেসারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি উইকেট নিয়ে জাতীয় দলে জায়গা পান আবু জায়েদ রাহি। ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কা সিরিজে অভিষেকের  পর এখনো প্রমাণ করতে পারেননি নিজেকে। আফগানিস্তানের সঙ্গে প্রথম ম্যাচে ৩ ওভার দেন ৩৪ রান। আবুল হাসান রাজুর অবস্থা আরও বেহাল। তাদের মান উন্নত না করলে আশা দেখছেন না তিনি,  ‘সেই পর্যায়ে তাদের নিয়ে আসতে হবে। তো না হলে আমরা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারবো না।’

প্রথম ম্যাচে ব্যাটিং-বোলিং দুটোই ডুবালেও পরের ম্যাচে খলনায়ক ব্যাটসম্যানরা। এতে সিনিয়র ক্রিকেটারদেরই দায় দেখছেন তিনি,  ‘আমিতো মনে করি আমরা ব্যাটিংয়ে বারবার ভুল করছি। প্রথম ম্যাচের ভুলগুলো দ্বিতীয় ম্যাচেও করছি। অ্যাপ্লিকেশনের অভাব আছে। আমরা যদি গতম্যাচে আরও ২০ টা রান বেশি করতাম অবশ্যই জিততাম। ওই ম্যাচে অবশ্য বোলাররা ভাল সার্ভিস দিয়েছে। অনেক ক্যাজুয়াল শটস খেলে আউট হয়েছি।’

 ‘আপনারা দেখেছেন আইপিএলে ধোনি, কেন উইলিয়ামসন একাই ম্যাচ জেতায়। তাদের ডিটারমিনেশন থাকে যে আমি একাই ম্যাচ জেতাবো। আমাদের সিনিয়র প্লেয়ারদের এই ধরণের রোল নেয়া উচিত যে আমি ম্যাচাকে ক্যারি করে নিয়ে যাবো এবং দলকে জেতাবো। ’

 

 

 

Comments

The Daily Star  | English

'Why did they kill my father?'

Slain MP’s daughter demands justice, fair investigation

1h ago