সংখ্যায় সংখ্যায় ব্রাজিল-সার্বিয়া ম্যাচ

ম্যাচটা দুই দলের জন্যই সমান গুরুত্বপূর্ণ। ড্র করলেই গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়া নিশ্চিত ব্রাজিলের, অপরদিকে সুইজারল্যান্ডকে টপকে পরের পর্বে যেতে হলে জয়ের বিকল্প নেই সার্বিয়ার সামনে। গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচের আগে তাই পরিসংখ্যানের দিকে একবার চোখ বুলিয়ে নেয়া যাক।

ম্যাচটা দুই দলের জন্যই সমান গুরুত্বপূর্ণ। ড্র করলেই গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়া নিশ্চিত ব্রাজিলের, অপরদিকে সুইজারল্যান্ডকে টপকে পরের পর্বে যেতে হলে জয়ের বিকল্প নেই সার্বিয়ার সামনে। গুরুত্বপূর্ণ এই ম্যাচের আগে তাই পরিসংখ্যানের দিকে একবার চোখ বুলিয়ে নেয়া যাক।

হেড টু হেড:

১) বিশ্বকাপে চারবার একে অন্যের মুখোমুখি হয়েছে দুই দল (সার্বিয়া যুগোস্লাভিয়ার অংশ থাকায় ব্রাজিল-যুগোস্লাভিয়া ম্যাচও এই হিসাবের মধ্যে)। দুই দলই জিতেছে একটি করে ম্যাচ, বাকি দুটি ম্যাচ হয়েছে ডঃ

২) দুই দল বিশ্বকাপে প্রথম মুখোমুখি হয়েছিল সেই প্রথম আসরেই। যুগোস্লাভিয়া জিতেছিল ২-১ গোলে।

৩) সব মিলিয়ে দুই দল মোট মুখোমুখি হয়েছে ১৯ বার, এর মধ্যে সার্বিয়া তথা যুগোস্লাভিয়ার জয় মোটে দুইবার। ব্রাজিল জিতেছে ১০ বার, আর বাকি ৭ ম্যাচ ডঃ

৪) স্বাধীন হওয়ার পর এই নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো ব্রাজিলের মুখোমুখি হচ্ছে সার্বিয়া। ২০১৪ সালের জুনে মুখোমুখি হওয়া প্রীতি ম্যাচে সার্বিয়াকে ১-০ গোলে হারিয়েছিল ব্রাজিল।

ব্রাজিল:

১) সব ধরনের প্রতিযোগিতা মিলিয়ে সবশেষ ১৩ ম্যাচে অপরাজিত ব্রাজিল। এর মধ্যে জিতেছে ৯ টিতে, ড্র করেছে ৪ টি। আর এই ১৩ ম্যাচে গোল খেয়েছে মাত্র ৩ টি।

২) বিশ্বকাপে ইউরোপিয়ান প্রতিপক্ষের বিপক্ষে শেষ ৭ ম্যাচের মাত্র একটিতে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে পেরেছে ব্রাজিল। বাকি ৬ ম্যাচের মধ্যে হেরেছে ৪ টিতেই, ড্র হয়েছে বাকি দুটি ম্যাচ।   ২০১৪ বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে ক্রোয়েশিয়াকে ২-১ গোলে হারিয়েছিল তারা।

৩) ব্রাজিলের হয়ে খেলা শেষ ১৭ ম্যাচে হওয়া ১৮ টি গোলেই সরাসরি অবদান রেখেছেন নেইমার (১০ গোল, ৮ অ্যাসিস্ট)।

৪) নিজেদের শেষ তিন ম্যাচেই প্রতিপক্ষের গোলপোস্টে প্রথমার্ধে কেবল একটি করে শট নিতে পেরেছে ব্রাজিল।

৫) ব্রাজিলের হয়ে ৮৭ টি আন্তর্জাতিক ম্যাচে ৫৬ গোল নেইমারের, তাঁর সামনে আছেন কেবল রোনালদো লিমা (৬২) ও পেলে (৭৭)।

সার্বিয়া:

১) স্বাধীন হওয়ার পরে বিশ্বকাপে খেলতে এসে গোল খেয়েছে এমন কোন ম্যাচ জিততে পারেনি সার্বিয়া। যে দুটি ম্যাচ জিতেছে, দুটিই ক্লিন শীট রেখে।

২) আজ জিতলে স্বাধীন দেশ হিসেবে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে উঠবে সার্বিয়া।

৩) ২০১৮ সালে সার্বিয়া ফরোয়ার্ড আলেক্সান্ডার মিত্রোভিচ দেশ ও ক্লাবের হয়ে ২৬ ম্যাচে মোট ১৮ টি গোল করেছেন। গোল পেয়েছে সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে শেষ ম্যাচেও।

Comments

The Daily Star  | English

A feminist approach to climate solutions

Feminist approaches offer significant opportunities for driving positive change.

4h ago