উরুগুয়ে বনাম পর্তুগাল : ভবিষ্যদ্বাণী, একাদশ ও রেকর্ড

গ্রুপ পর্বের লড়াই শেষ। এবার শুরু নকআউট পর্ব। হারলেই বিদায়। তাই সর্বোচ্চটা বাজি রেখেই খেলবে দলগুলো। দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন উরুগুয়ের মোকাবেলা করবে ২০১৬ এর ইউরো চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল।

গ্রুপ পর্বের লড়াই শেষ। এবার শুরু নকআউট পর্ব। হারলেই বিদায়। তাই সর্বোচ্চটা বাজি রেখেই খেলবে দলগুলো। দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন উরুগুয়ের মোকাবেলা করবে ২০১৬ এর ইউরো চ্যাম্পিয়ন পর্তুগাল।

প্রথম দুই ম্যাচে নিজেদের মতো খেলতে না পারলেও স্বাগতিক রাশিয়ার বিপক্ষে দুর্দান্ত খেলেছে উরুগুয়ে। ছন্দে ফিরেছেন সুইস সুয়ারেজ, এডিসন কাভানির মতো তারকা খেলোয়াড়েরা। আর চলতি আসরের শুরু থেকেই দুর্দান্ত ফর্মে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এর আগে একাই দুটি ম্যাচের পার্থক্য গড়ে দিয়েছেন। তাই দারুণ একটি জমজমাট লড়াইয়ের প্রত্যাশা করতেই পারে ফুটবল প্রেমীরা।

ম্যাচের ফলাফল কি হবে তা জানা যাবে ম্যাচ শেষে, তবে তার আগেই ফলাফলের ভবিষ্যদ্বাণী নিয়ে হাজির আমরা। পাশাপাশি দুই দলের সম্ভাব্য একাদশ, কৌশলও তুলে ধরা হলো-

কখন?

বাংলাদেশ সময় রাত ১২টা, শনিবার, ৩০ জুন

কোথায়?

ফিশ্ট স্টেডিয়াম, সোচি

নজরে থাকবেন যারা

উরুগুয়ের আক্রমণভাগের প্রধান ভরসা লুইস সুয়ারেজ। আসরের শুরুতে নিস্প্রভ থাকলেও ধীরে ধীরে ফর্মে ফেরার ইঙ্গিত দিচ্ছেন। রয়েছেন এডিসন কাভানির মতো খেলোয়াড়। ছন্দটা ফিরে পেয়েছেন এ পিএসজি তারকাও। এছাড়াও অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ ডিফেন্ডার দিয়েগো গোডিনও থাকছেন নজরে।

নিঃসন্দেহে পর্তুগালের রোনালদো ম্যাচের সবচেয়ে বড় তারকা। পাঁচ বারের ব্যালন ডি’অর বিজয়ী। দারুণ ছন্দেও আছেন। প্রথম দুই ম্যাচেই গোল করেছেন ৪টি। পর্তুগালকে প্রায় একাই শেষ ষোলোতে এনেছেন। তবে দলে আছে বার্নার্দো সিলভার মতো প্রতিভাবান মিডফিল্ডার।

সম্ভাব্য একাদশ ও ম্যাচের কৌশল

উরুগুয়ে : (৪-৪-২) মুসলেরা, লাক্সালত, গোডিন, গিমেনেজ, ক্যাসেরাস, নানডেজ, ভেসিনো, টোরেইরা, বেনটানকার, কাভানি ও সুয়ারেজ।

পর্তুগাল : (৪-৪-২) প্যাট্রিসিও, ফনতে, কেড্রিক, পেপে, গুয়েরেইরো, মুতিনহো, ফার্নান্দেস, কারভালহো, সিলভা, রোনালদো ও গুয়েডেস।

ভবিষ্যদ্বাণী : লড়াইটা এক অর্থে উরুগুয়ে বনাম রোনালদো। কারণ পর্তুগালের প্রধান ভরসাই রিয়াল মাদ্রিদ তারকা। তাকে আটকেই পুরো পর্তুগালকে রুখে দিয়েছিল ইরানের মতো দল। তবে রোনালদো জ্বলে উঠতে পারলে একাই গড়ে দিতে পারেন ম্যাচের পার্থক্য। তাকে রুখতে প্রস্তুত দিয়াগো গডিনের মতো বিশ্বসেরা ডিফেন্ডার। ক্লাব পর্যায়ে বহু লড়াইয়ে তাকে আটকে রাখার অভিজ্ঞতাটা আছে তার। আর সুয়ারেজ-কাভানিরা ফর্মে ফেরায় কপালে দুশ্চিন্তার ভাঁজ লম্বা হয়েছে উরুগুইয়ানদের। তাই কিছুটা হলেও এগিয়ে থাকবে দুইবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নরা।

সম্ভাব্য স্কোর : উরুগুয়ে ২-১ পর্তুগাল

অতিরিক্ত সংযোজন :

১) এ নিয়ে তৃতীয়বার মুখোমুখি হচ্ছে উরুগুয়ে ও পর্তুগাল। আগের দুই লড়াইয়ে এগিয়ে ইউরোপিয়ান দলটি। দুই ম্যাচে জিতেছে একটি, বাকিটি ড্র। আর বিশ্বকাপে এবারই প্রথম মুখোমুখি হচ্ছে দলদু'টি।

২) পেনাল্টি শুট আউট ছাড়া মেজর টুর্নামেন্টে শেষ ১৭ ম্যাচে মাত্র একটি ম্যাচে হেরেছে পর্তুগাল। তবে বিশ্বকাপে শেষ তিনটি নকআউট ম্যাচেই হেরেছে তারা। পাঁচ গোলের বিপরীতে দিতে পেরেছে মাত্র একটি।

৩) শেষ ষোলোর রেকর্ডটা ভালো নয় উরুগুয়ের। চারবার উঠে তিনবারই হেরেছে দলটি। 

৪) বিশ্বকাপে প্রথম চার ম্যাচে কেবল একবারই জিততে পেরেছে উরুগুয়ে। ১৯৩০ সালে সেবার চ্যাম্পিয়নও হয় তারা।

৫) চলতি বিশ্বকাপে এখনও কোন গোল হজম করেনি উরুগুয়ে। চার ম্যাচে গোল না খাওয়ার শেষ রেকর্ডটি কেবল ব্রাজিলের। ১৯৮৬ বিশ্বকাপে সেবার প্রথম চার ম্যাচে কোন গোল খায়নি সেলেকাওরা।

৬) রাশিয়া বিশ্বকাপে উরুগুয়ের পাঁচটি গোলই এসেছে সেট পিস থেকে (তিনটি কর্নার, একটি সরাসরি ফ্রি কিক ও একটি ইনডাইরেক্ট ফ্রি কিক)।

৭) মেসির মতো রোনালদোও বিশ্বকাপের নকআউট পর্বে গোল দিতে পারেননি। ৪২৪ মিনিট খেলেও শূন্য গোল।

Comments

The Daily Star  | English

Dhaka Wasa hikes water prices by 10pc from July

Wasa's respected customers are hereby informed that the prices were adjusted due to inflation according to section 22 of the Wasa Act 1996

41m ago