ব্যালন ডি’অর নয়, বিশ্বকাপ চান এমবাপে

কিছুদিন আগেই এডেন হ্যাজার্ড বলেছিলেন, পারফরম্যান্স আর প্রতিভা বিবেচনায় নিলে এমবাপে এখনই ব্যালন ডি’অর জয়ের যোগ্য দাবিদার। তবে এমবাপে নিজে ব্যালন ডি’অর হয়ের চেয়ে প্রাধান্য দিচ্ছেন বিশ্বকাপকে। বলেছে, ব্যালন ডি’অরের মতো ব্যক্তিগত পুরষ্কার নিয়ে মাথা ঘামান না তিনি। তার দরকার বিশ্বকাপ।

কিছুদিন আগেই এডেন হ্যাজার্ড বলেছিলেন, পারফরম্যান্স আর প্রতিভা বিবেচনায় নিলে এমবাপে এখনই ব্যালন ডি’অর জয়ের যোগ্য দাবিদার। তবে এমবাপে নিজে ব্যালন ডি’অর হয়ের চেয়ে প্রাধান্য দিচ্ছেন বিশ্বকাপকে। বলেছে, ব্যালন ডি’অরের মতো ব্যক্তিগত পুরষ্কার নিয়ে মাথা ঘামান না তিনি। তার দরকার বিশ্বকাপ।

১৯৯৮ এর পর প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ জেতার দ্বারপ্রান্তে দাঁড়িয়ে আছে ফ্রান্স। এমন মুহূর্তে ব্যক্তিগত কোন পুরষ্কার নিয়ে মাথাই ঘামাতে চাইছেন না এমবাপে, হোক সেটা ব্যালন ডি’অরের মতো সম্মানিত পুরষ্কার। এমবাপের চিন্তা জুড়ে এখন শুধুই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বপ্ন, ‘বিশ্বকাপের ফাইনাল খেলছি আমি, এটা অকল্পনীয়! এটা আমার সারাজীবনের স্বপ্ন ছিল। এই অনুভূতি ভাষায় প্রকাশ করার সামর্থ্য নেই আমার। সুদূরতম কল্পনাতেও এমনটা ভাবিনি আমি। আমি এখনও বিশ্বাসই করতে পারছি না। কিন্তু সত্যটা হলো, আমরা কেবল এক ধাপ দূরত্বে আছি।’

এরপরই বলেছেন, ব্যালন ডি’অর নয়, তাকে টানছে বিশ্বকাপ, ‘দলের জন্য সৎভাবে পরিশ্রম করে গেলে আপনি পুরষ্কার পাবেনই। দলকে সাহায্য করতে পারছি কি না, সেটাই আমার কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। ব্যালন ডি’অর জিতলাম কি জিতলাম না, সে ব্যাপারে আমার কোন মাথাব্যথা নেই। আমি শুধু বিশ্বকাপ জিততে চাই।’

আগামী ১৫ তারিখ নিজের এই স্বপ্ন পূরণের সুযোগ পাচ্ছেন এমবাপে। ফাইনালে ফ্রান্সের প্রতিপক্ষ ঠিক হবে আজ দ্বিতীয় সেমিফাইনালের পর।

Comments

The Daily Star  | English

Dhaka footpaths, a money-spinner for extortionists

On the footpath next to the General Post Office in the capital, Sohel Howlader sells children’s clothes from a small table.

6h ago