অন্য সবার থেকে আমি আলাদা: রোনালদো

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড আর রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে জিতেছেন পাঁচটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ। লিগ শিরোপা তো আছেই। হয়েছেন পাঁচবার বর্ষসেরা ফুটবলার। এতসব প্রাপ্তির পরও ক্যারিয়ারের শেষ দিকে এসেও চ্যালেঞ্জ নেওয়ার খিদেটা তার অটুট। আর সেকারণেই নিজেকে অন্যদের চেয়ে আলাদা ভাবছেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো।
ছবি: টুইটার

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড আর রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে জিতেছেন পাঁচটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ। লিগ শিরোপা তো আছেই। হয়েছেন পাঁচবার বর্ষসেরা ফুটবলার। এতসব প্রাপ্তির পরও ক্যারিয়ারের শেষ দিকে এসেও চ্যালেঞ্জ নেওয়ার খিদেটা তার অটুট। আর সেকারণেই নিজেকে অন্যদের চেয়ে আলাদা ভাবছেন ক্রিস্তিয়ানো রোনালদো।

বিশ্বকাপের ডামাডোলের মধ্যেই রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে জুভেন্টাসে যোগ দেন রোনালদো। সোমবার তুরিনের ক্লাবটিতে প্রথমবার আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে হাজির হন বিশ্বের অন্যতম সেরা এই ফুটবলার।

টানা ৯ বছর ছিলেন রিয়ালে। রিয়াল মাদ্রিদ আর রোনালদো যেন সমার্থক নামই হয়ে গিয়েছিল। রিয়ালকে এনে দিয়েছেন চারটি চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শিরোপা, দুটি লিগ শিরোপা। কোপা দেল রে, ওয়ার্ল্ড ক্লাব কাপ ওসব তো আছেই। গড়েছেন গোলের রেকর্ড। উঠেছেন নতুন উচ্চতায়। তিনিও একদিন রিয়াল ছাড়তে পারেন অনেকের কাছে অবিশ্বাস্য ঠেকেছিল। পেশার জায়গা থেকে অবশ্য রোনালদো নিজে সব আবেগ সরিয়ে সামনে তাকাচ্ছেন, 'আমি শারীরিক, মানসিক ও আবেগীয় দিক থেকে ভাল আছি। এই কারণেই এখানে আসতে পেরে আমি গর্বিত।'

ইংলিশ ক্লাব ম্যানইউ ছেড়ে যখন রিয়ালে আসেন, তাকে ঘিরে প্রত্যাশা যতটা ছিল ক্লাবকে সাফল্য পাইয়ে দিয়েছেন তার থেকেও বেশি। ইতালিয়ান জায়ান্ট ক্লাবে যোগ দেওয়ার দিনও জানালেন তিনি অন্য ধাতুতে গড়া,  'অন্য সব খেলোয়াড় থেকে আমি আলাদা, যারা এই বয়সে এসে ক্যারিয়ারের শেষ দেখে ফেলে। কিন্তু আমি দেখিয়েছি আমি ভিন্নরকম, আমি চ্যালেঞ্জ নিতে ভালোবাসি। ’

'আমি জিততে চাই, ম্যানচেস্টার আর রিয়ালে জেতাটাও কঠিন ছিল। এখনেও হয়তো। দেখা যাক।'

তবে রিয়াল ছেড়ে আসাটা যে খুব সহজ ছিল না লুকাননি তাও, ‘এটা আবেগের ব্যাপার ছিল কারণ আমার বয়স এখন ২৩ নয় ৩৩।'

আপাতত রোনালদোর সব ভাবনা তুরিনের ওল্ড লেডিকে ঘিরেই, ‘ক্যারিয়ারের এই পর্যায়ে এই ক্লাবে আসতে পেরে ভীষণ খুশি।'

Comments