প্রীতি ম্যাচে বায়ার্নের কাছে হারল ম্যানইউ

ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়ন্স লিগের তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচই শেষ করেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও বায়ার্ন মিউনিখ। বাড়তি প্রস্তুতি নিতে সোমবার মুখোমুখি হয়েছিল আরও একটি প্রীতি ম্যাচের। তাতে হতাশ হতে হয়েছে ইংলিশ জায়ান্টদের। জার্মান চ্যাম্পিয়নদের কাছে ১-০ গোলে হেরেছে হোসে মরিনহোর দল।

ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়ন্স লিগের তিনটি প্রস্তুতি ম্যাচই শেষ করেছে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ও বায়ার্ন মিউনিখ। বাড়তি প্রস্তুতি নিতে সোমবার মুখোমুখি হয়েছিল আরও একটি প্রীতি ম্যাচের। তাতে হতাশ হতে হয়েছে ইংলিশ জায়ান্টদের। জার্মান চ্যাম্পিয়নদের কাছে ১-০ গোলে হেরেছে হোসে মরিনহোর দল।

এদিন ম্যাচের শুরু থেকেই ম্যানইউকে চেপে ধরে বায়ার্ন। একের পর এক আক্রমণ করে যায় দলটি। পল পগবা ও রোমেলু লুকাকুদের অভাব এদিন ভালোভাবেই টের পেয়েছে ইংলিশ দলটি। পুরো ম্যাচে বলার মতো কোন আক্রমণই করতে পারেনি তারা।

বায়ার্নের গোল করার মতো প্রথম সুযোগটা আসে ৫ মিনিটেই। তবে দারুণ এক সেভ করে ম্যানইউকে রক্ষা করেন গোলরক্ষক ডেভিড ডি গিয়া। জশুয়া কিমিচের পাস থেকে দারুণ শট নিয়েছিলেন থিয়াগো আলকানতারা। ডান দিয়ে ঝাঁপিয়ে পড়ে সে বল ফিরিয়ে দিয়েছেন গোলরক্ষক।

১৯ মিনিটে আবারো ডি গিয়া। সের্জি নাবরির দূরপাল্লার শট বাঁদিকে ঝাঁপিয়ে রুখে দেন তিনি। ১০ মিনিট পর আবারো বেঁচে যায় ইউনাইটেড। সতীর্থের বাড়ানো বলে পা লাগালেই গোল পেতে পারতেন আরিয়েন রোবেন। ৩৯ মিনিটে নিকলাস সুলের শট ম্যানইউ ডিফেন্ডারের গায়ে লেগে দিক বদলে বল জালের দিকে যাচ্ছিল। তবে ঝাঁপিয়ে পড়ে এ যাত্রাও দলকে রক্ষা করেন গোলরক্ষক।

প্রথমার্ধের মতো দ্বিতীয়ার্ধেও আক্রমণের ধারা ধরে রাখে বায়ার্ন। সাফল্যও আসে। ৫৮ মিনিটে কর্নার থেকে দারুণ এক হেডে লক্ষ্যভেদ করেন জাভি মার্টিনেজ। ৮০ মিনিটে গোরেনটজকার শট অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। এরপরও আক্রমণ চালিয়ে যায় বায়ার্ন। অফসাইডের কারণে গোল বাদ না হলে ব্যবধান আরও বড় হতে পারতো।

গত বুধবার রিয়াল মাদ্রিদের বিপক্ষে দারুণ এক জয় পেয়ে আত্মবিশ্বাসে টইটুম্বুর ছিল ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড। তবে পরের ম্যাচেই তাদের বাস্তবতা দেখালো জার্মান চ্যাম্পিয়নরা। ১১ আগস্ট ইংলিশ লিগের প্রথম ম্যাচে লেস্টার সিটির মুখোমুখি হবে রেড ডেভিলরা। আর ১৩ আগস্ট সুপারকাপের ফাইনালে বায়ার্ন মোকাবেলা করবে ইনট্রাখটের বিপক্ষে।

Comments

The Daily Star  | English

Peacekeepers can face non-deployment for rights abuse: UN

The UN peacekeepers can face non-deployment and even repatriation if the allegations of human rights against them are substantiated

17m ago