কবিগুরুর ৩,৫০০ কবিতা, গানের ডিজিটাল আর্কাইভ

কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সাড়ে তিন হাজার কবিতা ও গান নিয়ে একটি ডিজিটাল আর্কাইভ প্রকাশিত হলো কবির জন্ম শহর কলকাতায়।
Digital archives
২৮ আগস্ট ২০১৮, কলকাতার রবীন্দ্রসদন মঞ্চে এক সাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সাড়ে তিন হাজার কবিতা ও গান নিয়ে একটি ডিজিটাল আর্কাইভ প্রকাশিত হয়। ছবি: স্টার

কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সাড়ে তিন হাজার কবিতা ও গান নিয়ে একটি ডিজিটাল আর্কাইভ প্রকাশিত হলো কবির জন্ম শহর কলকাতায়।

গতকাল (২৮ আগস্ট) সন্ধ্যায় শহরের রবীন্দ্রসদন মঞ্চে এক সাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এমন রবীন্দ্রভান্ডারের মোড়ক উন্মোচিত হয়।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রখ্যাত কবি শঙ্খ ঘোষ, শিক্ষাবিদ ড. পবিত্র সরকার, বাংলাদেশের উপরাষ্ট্রদূত তৌফিক হাসান, বিশ্বভারতীর উপাচার্য ড. সবুজ কলি সেন, বাংলাদেশের চিকিৎসক ও সংগীতশিল্পী অরূপ রতন চৌধুরী, সংগীতশিল্পী শ্যামা রহমান, চলচ্চিত্র পরিচালক হাসিবুর রেজা কল্লোল, আবৃত্তিশিল্পী শিমুল মোস্তফা, ব্রততী বন্দ্যোপাধ্যায়, সোহানী হোসেনসহ দুই বাংলার বিশিষ্ঠজনরা।

কলকাতার প্রখ্যাত চিকিৎসক ডাক্তার পূর্ণেন্দু বিকাশ সরকারের দীর্ঘ পাঁচ বছরের প্রচেষ্টায় ‘মুঠোয় ভরা রবীন্দ্রনাথ’ শীর্ষক এই ডিজিটাল আর্কাইভে ২৪৫ জন শিল্পীর আবৃতি রয়েছে। এর মধ্যে বাংলাদেশের রয়েছেন ৩৫ জন।

এ ধরনের উদ্যোগ আগে কখনোই হয়নি, এটি বিশ্ব-বাঙালির জন্য এই মুহূর্তে অনেক প্রয়োজন ছিল যা করে দেখালেন একজন রবীন্দ্রানুরাগী চিকিৎসক- বললেন রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপচার্য ড. পবিত্র সরকার।

বিশ্বভারতীর বর্তমান উপাচার্য ড. সবুজ কলি সেন মনে করেন, এই প্রয়াস শুধুমাত্র পাঁচ বছরের নয়, এটি উদ্যোক্তার গোটা জীবনের প্রয়াস।

চিকিৎসক অরুপ রতন চৌধুরী মনে করেন, প্রযুক্তির সঙ্গে এবার গুরুর সৃষ্টি পা মেলালো। এটি সময়ের দাবি ছিল।

আবৃত্তিশিল্পী ব্রততী বন্দ্যোপাধ্যায় এবং শিমুল মোস্তাফাও একই সুর সুর মেলালেন। বললেন, যতদিন বাঙালি আছেন ততদিন কবিগুরু আছেন।

কবিগুরুর সৃষ্টি একটি পেনড্রাইভে ঢুকে পড়ল এটি সত্যিই প্রয়োজন ছিল- বললেন বাংলাদেশের চিত্রপরিচালক হাসিবুর রেজা কল্লোল।

ডাক্তার পূর্ণেন্দু বিকাশ সরকার বললেন, সৃষ্টিশীল মানুষ তিনি। কবির অন্ধভক্ত এবং অনুরাগীও। আশা করি, এই কাজটি শেষ হওয়ার পর তিনি নতুন কিছু করবেন।

Comments

The Daily Star  | English

2 MRT lines may miss deadline

The metro rail authorities are likely to miss the 2030 deadline for completing two of the six planned metro lines in Dhaka as they have not yet started carrying out feasibility studies for the two lines.

10h ago