এখনো সামর্থ্যের পুরোটা দিতে পারছেন না মোস্তাফিজ

চোট থেকে সেরে উঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে রঙিন পোশাকে মাঠে নেমেছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। গুরুত্বপূর্ণ সময়ে উইকেট নিয়ে দলের সিরিজ জেতায় ছিল তার অবদান। তবু নিজের পারফরম্যান্সে নাকি এখনো খুশি নন। তার মনে হচ্ছে এখনো ঠিক সেরা ছন্দটা খুঁজে পাচ্ছে না তিনি।
Mustafizur Rahman
ফাইল ছবি: ফিরোজ আহমেদ

চোট থেকে সেরে উঠে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে রঙিন পোশাকে মাঠে নেমেছিলেন মোস্তাফিজুর রহমান। গুরুত্বপূর্ণ সময়ে উইকেট নিয়ে দলের সিরিজ জেতায় ছিল তার অবদান। তবু নিজের পারফরম্যান্সে নাকি এখনো খুশি নন। তার মনে হচ্ছে এখনো ঠিক সেরা ছন্দটা খুঁজে পাচ্ছে না তিনি।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে তিন ওয়ানডে ৫ ও তিন টি-টোয়েন্টিতে ৮ উইকেট নেন মোস্তাফিজ।  মাঝে মাঝে মার খেলেও গুরুত্বপূর্ণ ব্রেক থ্রো এনে রেখেছেন ভূমিকা। তবু মোস্তাফিজের মতে সামর্থ্যের শতভাগ দিতে পারছেন না তিনি,  ‘ওয়েস্ট ইন্ডিজে নিজের শতভাগ বোলিং করতে পারি নি। আমি বলব, আমি নিজের সামর্থ্যের ৬০ ভাগ দিতে পেরেছি। পেস বোলারদের ছন্দে থাকার বিষয় আছে। রিদম ভালো থাকলে মারও খেতে পারি, আবার ভালোও  করতে পারি। আমি এখন সুস্থ আছি, তবে আমার ছন্দটা ওইভাবে আসছে না। ছন্দ আসলে ভাল হবে। ’

এশিয়া কাপের জন্যে মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রতিদিন অনুশীলন চালিয়ে যাচ্ছেন মোস্তাফিজরা। এখনো ফিটনেস ও ফিল্ডিং ট্রেনিং হলেও আলাদাভাবে ব্যাট-বলের অনুশীলনও চালিয়ে যাচ্ছেন ক্রিকেটাররা।  মোস্তাফিজের নিজের সেখানে নির্দিষ্ট কোন লক্ষ্য নেই, তবে চাইবেন সবার প্রত্যাশা মেটাতে ,  ‘তেমন কোন লক্ষ্য নেই। তবে চেষ্টা করব ভালো করার। আমার কাছে অনেকের প্রত্যাশা থাকে। চেষ্টা থাকবে আমি যেন সেই প্রত্যাশা পূরণ করতে পারি। ’

এশিয়া কাপে খেলা হবে সংযুক্ত আরব আমিরাতে। সেখানকার গরম নিয়ে বাড়তি চিন্তা থাকে অনেক দলের। তবে বাংলাদেশের আবহাওয়া হিসেবে নিয়ে বাড়াবাড়ি দুশ্চিন্তায় সায় নেই মোস্তাফিজের,  ‘সেখানকার গরম প্রায় আমাদের দেশেরই মত। অত আহামরি পরিবর্তন নেই। আমি ২০১৪ সালে খেলেছিলাম, অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে। তখন যেই মাঠে খেলেছি সেই মাঠেই এবার খেলা হবে। সব কিছু প্রায় আমাদের মতই হবে। এখন এসিসি কি উইকেট দেয়া সেটা দেখার বিষয়।’

Comments