শীর্ষ খবর

এক দিনেই মিলবে পাসপোর্ট

জরুরি প্রয়োজনে এক দিনেই পাসপোর্ট দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তর। সুপার এক্সপ্রেস সার্ভিসের আওতায় আগামী বছরের প্রথম মাস থেকে এই সেবা চালু করার পরিকল্পনা করা হচ্ছে।

জরুরি প্রয়োজনে এক দিনেই পাসপোর্ট দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তর। সুপার এক্সপ্রেস সার্ভিসের আওতায় আগামী বছরের প্রথম মাস থেকে এই সেবা চালু করার পরিকল্পনা করা হচ্ছে। এর আওতায় পাসপোর্ট নবায়ন এমনকি নতুন পাসপোর্ট তৈরিতে সর্বোচ্চ ৪৮ ঘণ্টা সময় লাগতে পারে। তবে এর জন্য গুণতে হবে বাড়তি ফিস।

পাসপোর্ট অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মাসুদ রেজওয়ান বলেন, ক্ষেত্রবিশেষে কেউ সকালে আবেদন করলে সন্ধ্যার মধ্যেই পাসপোর্ট পেয়ে যাবেন।

গতকাল দ্য ডেইলি স্টারকে তিনি বলেন, ‘সুপার এক্সপ্রেস সার্ভিস চালু করার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আমরা একটি প্রস্তাব পাঠিয়েছি। রোগীদের জরুরি প্রয়োজন ও ভিসার মেয়াদ রয়েছে কিন্তু পাসপোর্ট মেয়াদোত্তীর্ণ হয়ে গেছে এমন অভিবাসী কর্মীদের কথা চিন্তা করে এটা করা হয়েছে।’

মানবিক দিক বিবেচনা করে বর্তমানেও এক থেকে দুই দিনের মধ্যে পাসপোর্ট ইস্যু করা হচ্ছে। এখন এই সেবা সবার জন্য উন্মুক্ত করতে চায় পাসপোর্ট অধিদপ্তর, যোগ করেন মাসুদ রেজওয়ান।

সুপার এক্সপ্রেস সার্ভিস সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘আমরা দুদিনের মধ্যে পাসপোর্ট দেওয়ার কথা উল্লেখ করলেও এক দিনের মধ্যেই পাসপোর্ট দিয়ে দিতে পারব।’

তবে যাদের পুলিশ ভেরিফিকেশন নেই তারা সুপার এক্সপ্রেস সার্ভিসে পাসপোর্ট নিতে পারবেন না বলেও জানিয়েছেন অধিদপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

বর্তমানে দুই ক্যাটাগরিতে পাসপোর্ট দেওয়া হচ্ছে। স্বাভাবিকভাবে ৩,৪৫০ টাকা ফি দিয়ে পাসপোর্ট পেতে ন্যূনতম ২১ দিন সময় লাগে। আর এক্সপ্রেস সার্ভিসে দ্রুত পাসপোর্টের জন্য খরচ লাগে ৬,৯০০ টাকা। কর্মকর্তারা জানান, নতুন সুপার এক্সপ্রেস সার্ভিস চালু হলে এর জন্য খরচ হবে ১২ থেকে ১৪ হাজার টাকার মধ্যে।

মহাপরিচালক আরও জানান, বর্তমানের ৪৮ পৃষ্ঠার পাসপোর্টের পাশাপাশি ঘন ঘন বিদেশ সফর করতে হয় এমন মানুষদের কথা মাথায় রেখে ৬৪ পৃষ্ঠার পাসপোর্ট চালু করারও পরিকল্পনা রয়েছে তাদের। আর যারা পড়ালেখা বা কাজের জন্য বিদেশ যাচ্ছেন তাদের জন্য পাসপোর্টের মেয়াদ ৫ বছর থেকে বাড়িয়ে হবে ১০ বছর।

গত ২১ জুন জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটি (একনেক) ই-পাসপোর্ট ও অটোমেটিক বর্ডার কনট্রোল সিস্টেম চালু করার জন্য ৪,৬৩৬ কোটি টাকার একটি প্রকল্প অনুমোদন দিয়েছে। আগামী জানুয়ারি মাস থেকে ইলেক্ট্রনিক মাইক্রোচিপ সম্বলিত এই পাসপোর্ট দেওয়া শুরু হবে। বর্তমানে যারা মেশিন রিডেবেল পাসপোর্ট ব্যবহার করছেন নবায়নের সময় তাদের ই-পাসপোর্ট ইস্যু করা হবে। তবে মেয়াদ শেষ না হওয়া অব্দি পুরনো পাসপোর্ট ব্যবহার করা যাবে।

Comments

The Daily Star  | English

Iran's President Raisi, foreign minister killed in helicopter crash

President Raisi, the foreign minister and all the passengers in the helicopter were killed in the crash, senior Iranian official told Reuters

4h ago