ইন্দোনেশিয়া ভূমিকম্প, সুনামিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৮৪

ইন্দোনেশিয়ার সুলাওয়েসি দ্বীপে গতকালের (২৮ সেপ্টেম্বর) শক্তিশালী ভূমিকম্প এবং সুনামিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৮৪ জনে। এ সংখ্যা আরও বাড়তে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এছাড়াও, আহত হয়েছেন কয়েকশ মতো।
indonesia tsunami earthquake
২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ইন্দোনেশিয়ার পালু শহরে ভূমিকম্প ও সুনামিতে আহতদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। ছবি: এএফপি

ইন্দোনেশিয়ার সুলাওয়েসি দ্বীপে গতকালের (২৮ সেপ্টেম্বর) শক্তিশালী ভূমিকম্প এবং সুনামিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩৮৪ জনে। এ সংখ্যা আরও বাড়তে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এছাড়াও, আহত হয়েছেন কয়েকশ মতো।

সাগরে আজ আরও লাশ ভেসে উঠায় মৃতের এই সংখ্যা বেড়ে গিয়েছে বলে জানিয়েছে দেশটির কর্তৃপক্ষ।

জাকার্তায় এক সংবাদ সম্মেলনে দেশটির দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থা বিএনপিবি-এর মুখপাত্র সুতোপো পুরও নুগরোহো বলেন, “সুনামির কারণে অনেক মানুষ ভেসে গেছেন। তাদের মরদেহ সাগরের ভেসে উঠছে। তাই মৃতের সঠিক সংখ্যাটি এখনো নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।” তবে এখন পর্যন্ত ৩৮৪ জনের মৃত্যুর কথা উল্লেখ করা হয়েছে। এমনকি, এ সংখ্যা আরও বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

আজ সকালেও উপকূলীয় শহর পালুতে ভূকম্পন অনুভূত হয় বলেও জানান তিনি। এর আগে, ৭.৫ মাত্রার ভূমিকম্পের ফলে প্রায় ১০ ফুট উচ্চতার সুনামি সৃষ্টি হয়। এতে এই পর্যটন শহরটিতে হতাহতের ঘটনা ঘটে।

টেলিভিশনে দেখা যায়, শত শত মানুষ অস্থায়ী শিবিরে চিকিৎসা নিচ্ছেন। শক্তিশালী এই ভূমিকম্পের ফলে হাজার হাজার ঘর-বাড়ি, হাসপাতাল, শপিং মল, হোটেল, সেতু ইত্যাদি ভেঙ্গে পড়ে।

ভূমিকম্পের পর দেশটির আবহাওয়া বিভাগ সুনামি সতর্কতা জারি করলেও ৩৪ মিনিট পর তা তুলে নেয়। পালু শহরে সুনামি আঘাত হানতে পারে এমন কোনো তথ্য না দেওয়ায় বেশ সমালোচনার মুখে পড়েছে সরকারি কর্তাব্যক্তিরা।

এর আগে, ১৯২৭ সালে এবং ১৯৬৮ সালে পালু শহরটিতে সুনামি আঘাত হেনেছিলো।

Comments

The Daily Star  | English

Personal data up for sale online!

Some government employees are selling citizens’ NID card and phone call details through hundreds of Facebook, Telegram, and WhatsApp groups, the National Telecommunication Monitoring Centre has found.

8h ago