শহিদুলকে ডিভিশন দেওয়ার আদেশ সুপ্রিম কোর্টে বহাল

আলোকচিত্রী শহিদুল আলমকে কারাগারে প্রথম শ্রেণির বন্দির মর্যাদা (ডিভিশন) দিতে কারা কর্তৃপক্ষকে যে আদেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট তা বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ।
শহিদুল আলম। ছবি সৌজন্য: রেহনুমা আহমেদ

আলোকচিত্রী শহিদুল আলমকে কারাগারে প্রথম শ্রেণির বন্দির মর্যাদা (ডিভিশন) দিতে কারা কর্তৃপক্ষকে যে আদেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট তা বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ।

শহিদুলের ডিভিশন সুবিধা নিয়ে হাইকোর্টের আদেশের বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল করেছিল (আপিলের অনুমতি) রাষ্ট্রপক্ষ। আজ প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বে আপিল বিভাগের চার বিচারপতির বেঞ্চ লিভ টু আপিল খারিজ করে ডিভিশন সুবিধা বহাল রাখার আদেশ দেন।

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। আর শহিদুলের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার সারা হোসেন ও জ্যোতির্ময় বড়ুয়া।

বিতর্কিত তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মামলায় কারাগারে থাকা আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন আলোকচিত্রী ড. শহিদুল আলমকে প্রথম শ্রেণির বন্দি সুবিধা প্রদান করতে ৫ সেপ্টেম্বর আদেশ দেন হাইকোর্ট। ৭ সেপ্টেম্বর থেকে কারাগারে ডিভিশন পাচ্ছেন তিনি।

নিরাপদ সড়ক আন্দোলন নিয়ে সরকারের সমালোচনা করে কাতারভিত্তিক আল জাজিরা টেলিভিশনে সাক্ষাৎকার দেওয়ার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই গত ৫ আগস্ট রাতে শহিদুলকে তার ধানমন্ডির বাসা থেকে তুলে নিয়ে যায় সাদা পোশাকে থাকা একদল লোক। ফেসবুকে সরকারের বিরুদ্ধে ‘মিথ্যা ও উসকানিমূলক বক্তব্য’ প্রচারের অভিযোগে পরদিন তাকে তথ্যপ্রযুক্তি আইনে মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে সাত দিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ। এর পর বিভিন্ন সময় শহিদুলের পক্ষে জামিন আবেদন করা হলেও তা নাকচ হয়েছে।

Comments