ক্রিকেট

স্মিথের ফিফটি ও জাম্পার ফাইফারে জিতল অস্ট্রেলিয়া

ট্রেন্ট বোল্ট ও ম্যাট হেনরির তোপে স্বাগতিকদের থামানো গেল হাতের নাগালেই। কিন্তু ব্যাটাররা পারলেন না জ্বলে উঠতে। অ্যাডাম জাম্পার ঘূর্ণিতে কাবু হয়ে একশও পার করতে পারলো না নিউজিল্যান্ড। ফলে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই সিরিজ হেরেছে কিউইরা।

ট্রেন্ট বোল্ট ও ম্যাট হেনরির তোপে স্বাগতিকদের থামানো গেল হাতের নাগালেই। কিন্তু ব্যাটাররা পারলেন না জ্বলে উঠতে। অ্যাডাম জাম্পার ঘূর্ণিতে কাবু হয়ে একশও পার করতে পারলো না নিউজিল্যান্ড। ফলে অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে এক ম্যাচ বাকি থাকতেই সিরিজ হেরেছে কিউইরা।

বৃহস্পতিবার কাজালিস স্টেডিয়ামে নিউজিল্যান্ডকে ১১৩ রানে হারিয়েছে অস্ট্রেলিয়া। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৯ রান করে স্বাগতিকরা। জবাবে ৩৩ ওভারে মাত্র ৮২ রানেই গুটিয়ে যায় নিউজিল্যান্ড।

মন্থর উইকেটে এদিন ম্যাচের শুরু থেকেই সংগ্রাম করে ব্যাটাররা। টস হেরে ব্যাট করা অস্ট্রেলিয়া হেনরি আর বোল্টের ছোবলে দলীয় ২৬ রানেই হারায় ৪টি উইকেট। সেখান থেকে দলকে টেনে মাঝারী পুঁজি এনে দেওয়ার পুল কারিগর অভিজ্ঞ ব্যাটার স্টিভ স্মিথ। ম্যাচের একমাত্র ফিফটি আসে তার ব্যাট থেকে। শেষ দিকে মিচেল স্টার্কও দারুণ ব্যাট করেন।

তবে স্মিথকে দারুণ সঙ্গ দেন গ্লেন ম্যাক্সওয়েল। ষষ্ঠ উইকেটে এ ব্যাটারের সঙ্গে ৪৯ রানের জুটি গড়েন স্মিথ। ম্যাক্সওয়েলকে ফিরিয়ে এ জুটি ভাঙেন বোল্ট। এরপর খুব বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি স্মিথও। টিম সাউদির শিকার হলে দেড়শর আগেই অলআউট হওয়ার শঙ্কায় পড়ে দলটি।

তবে দলীয় ১১৭ রানে ৭ উইকেট হারানো দলটিকে অ্যাডাম জাম্পাকে নিয়ে হাল ধরেন স্টার্ক। ৩১ রানের জুটি গড়েন এ দুই ব্যাটার। এরপর জশ হ্যাজলউডকে নিয়ে আরও একটি দারুণ জুটি গড়েন স্টার্ক। দশম উইকেটে অবিচ্ছিন্ন ৪৭ রানের জুটিতে দলকে দুইশ রানের কাছাকাছি পুঁজি এনে দেন এ দুই ব্যাটার।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৬১ রানের ইনিংস খেলেন স্মিথ। ৯৪ বলে ৫টি চার ও ১টি ছক্কায় এ রান করেন তিনি। ৪৫ বলে ২টি চার ও ১টি ছক্কায় ৩৮ রানের ইনিংস খেলেন স্টার্ক। ১৬ বলে ১টি করে চার ও ছক্কায় ২৩ বলের কার্যকরী একটি ইনিংস খেলেন হ্যাজলউড। জাম্পার ব্যাট থেকে আসে মূল্যবান ১৬ রান।

নিউজিল্যান্ডের পক্ষে ৩৮ রানের খরচায় ৪টি উইকেট পান বোল্ট। ৩৩ রানের বিনিময়ে ৩টি উইকেট নেন হেনরি।

লক্ষ্য তাড়ায় শুরু থেকেই চাপে থাকে নিউজিল্যান্ড। নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে দলটি। ফলে গড়ে ওঠেনি বলার মতো কোনো জুটি। চার জন ব্যাটার মাত্র দুই অঙ্ক ছুঁতে পেরেছেন, কিন্তু ইনিংস লম্বা করতে পারেননি কেউই। শুরুর আঘাতটা আসে দুই পেসার স্টার্ক ও শেন অ্যাবটের কাছ থেকে। এরপর মাঝে ঘূর্ণির মায়াজাল বেছান জাম্পা। তাতেই বিধ্বস্ত হয় কিউই শিবির। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ১৭ রান করেন অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। মিচেল স্যান্টনার ১৬ রানে অপরাজিত থাকেন। অজিদের পক্ষে ৩৫ রানের খরচায় ৫টি উইকেট পান জাম্পা। ২টি করে উইকেট নিয়েছেন স্টার্ক ও অ্যাবট।

Comments

The Daily Star  | English
Deposits of Bangladeshi banks, nationals in Swiss banks hit lowest level ever in 2023

Deposits of Bangladeshi banks, nationals in Swiss banks hit lowest level ever

It declined 68% year-on-year to 17.71 million Swiss francs in 2023

4h ago