রশিদকে হটিয়ে টি-টোয়েন্টি বোলিং র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে হাসারাঙ্গা

আসরের সুপার টুয়েলভেই লঙ্কানদের যাত্রা থামলেও হাসারাঙ্গা নজর কাড়েন ঘূর্ণি জাদু দেখিয়ে।
ছবি: এএফপি

আইসিসি টি-টোয়েন্টি বোলিং র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে আফগানিস্তানের রশিদ খানের অবস্থান দীর্ঘস্থায়ী হলো না। চলমান টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ধারাবাহিক পারফরম্যান্স দেখিয়ে তাকে হটিয়ে চূড়ায় উঠলেন শ্রীলঙ্কার ভানিন্দু হাসারাঙ্গা।

বুধবার ক্রিকেটারদের র‍্যাঙ্কিংয়ের সাপ্তাহিক হালনাগাদ প্রকাশ করেছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি।

বিশ্বকাপে দারুণ শুরু করা লেগ স্পিনার রশিদ এক নম্বর স্থান থেকে সরিয়ে দিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার পেসার জস হ্যাজেলউডকে। তবে টি-টোয়েন্টি বোলিং র‍্যাঙ্কিংয়ের সিংহাসন বেশিদিন ধরে রাখতে পারেননি তিনি। টানা নৈপুণ্য উপহার দিয়ে তাকে পেছনে ফেলেছেন আরেক লেগ স্পিনার হাসারাঙ্গা। তার রেটিং পয়েন্ট ৭০৪, রশিদের ৬৯৮।

আসরের সুপার টুয়েলভেই লঙ্কানদের যাত্রা থামলেও হাসারাঙ্গা নজর কাড়েন ঘূর্ণি জাদু দেখিয়ে। সব মিলিয়ে তিনি শিকার করেন এই পর্বের সর্বোচ্চ ১৫ উইকেট। ফলে টি-টোয়েন্টি বোলিং র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে ফিরেছেন হাসারাঙ্গা। এর আগে ২০২১ সালের নভেম্বরে এক নম্বরে উঠেছিলেন তিনি।

বোলিং র‍্যাঙ্কিংয়ের তিনে আছেন হ্যাজেলউড। দক্ষিণ আফ্রিকার তাবরাইজ শামসি ও অস্ট্রেলিয়ার অ্যাডাম জ্যাম্পা আছেন যথাক্রমে চতুর্থ ও পঞ্চম স্থানে। সেরা দশে নতুন মুখ একজন। ইংল্যান্ডের লেগ স্পিনার আদিল রশিদ দখল করেছেন অষ্টম স্থান।

অলরাউন্ডার র‍্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থান ধরে রেখেছেন বাংলাদেশ টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। জিম্বাবুয়ের দলনেতা শন উইলিয়ামস সেরা দশে ঢুকে রয়েছেন নয় নম্বরে। পাকিস্তানের শাদাব খান ১০ ধাপ এগিয়ে উঠেছেন ১৫ নম্বরে।

টি-টোয়েন্টি ব্যাটিং র‍্যাঙ্কিংয়ের এক নম্বর অবস্থান আরও মজবুত করেছেন সুরিয়াকুমার যাদব। ভারতের এই আগ্রাসী ব্যাটার অর্জন করেছেন ক্যারিয়ারসেরা ৮৬৯ রেটিং পয়েন্ট। দুইয়ে থাকা পাকিস্তানের মোহাম্মদ রিজওয়ানের রেটিং পয়েন্ট ৮৩০। তিন, চার ও পাঁচে আছেন যথাক্রমে নিউজিল্যান্ডের ডেভন কনওয়ে, পাকিস্তানের বাবর আজম ও দক্ষিণ আফ্রিকার এইডেন মার্করাম।

সেরা দশে কেবল একটি পরিবর্তন হয়েছে। শ্রীলঙ্কার পাথুম নিসাঙ্কা দশম স্থানে উঠে এসেছেন। এছাড়া, নিউজিল্যান্ডের ফিন অ্যালেন ছয় ধাপ এগিয়ে ১৫ নম্বরে ও ভারতের কেএল রাহুল পাঁচ ধাপ এগিয়ে ১৬ নম্বরে জায়গা করে নিয়েছেন।

Comments

The Daily Star  | English
Road crash deaths during Eid rush 21.1% lower than last year

Road Safety: Maladies every step of the way

The entire road transport sector has long been riddled with multifaceted problems, which are worsening every day amid apathy from the authorities responsible for ensuring road safety.

2h ago