ভারতীয়দের তোপে লড়লেন কেবল মোসাদ্দেক

কক্সবাজারের শেখ কামাল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে ভারত ‘এ’ দলের বিপক্ষে প্রথম আনঅফিসিয়াল টেস্টে নেমে চরম বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ ‘এ’ দল। ৪৫ ওভার ব্যাট করে গুটিয়ে যায় ১১২ রানে।  দলের হয়ে ৮৮ বলে সর্বোচ্চ ৬৩ রান করেন মোসাদ্দেক।
Mosaddek Hossain Saikat
ছবি: রতন গোমেজ

নবদীপ সাইনি, মুকেশ কুমারদের পেসের কোন জবাব যেন নেই মাহমুদুল হাসান জয়, নাজমুল হোসেন শান্ত, মুমিনুল হকদের। তাসের ঘরের মতো ধসে যায় বাংলাদেশ 'এ' দলের টপ অর্ডার। ২৬ রানে ৫ উইকেট হারানোর কঠিন পরিস্থিতি থেকে দলকে টানলেন শুধু মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। সাগর পাড়ে তার ব্যাটেই মিলল কিছু লড়াইয়ের ছবি।

মঙ্গলবার কক্সবাজারের শেখ কামাল আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে ভারত 'এ' দলের বিপক্ষে প্রথম আনঅফিসিয়াল টেস্টে নেমে চরম বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ 'এ' দল। প্রথম ইনিংসে ৪৫ ওভার ব্যাট করে গুটিয়ে যায় ১১২ রানে।  দলের হয়ে ৮৮ বলে সর্বোচ্চ ৬৩ রান করেন মোসাদ্দেক।

পেসের ঝাঁজে ২১ রানে ৩ উইকেট নেন সাইনি, ২৫ রানে ২ উইকেট পান মুকেশ। বাঁহাতি স্পিনে সৌরভ কুমার পরে ২৩ রানে ৪ উইকেট নিয়ে মুড়ে দেন ইনিংস। জবাবে ব্যাট করতে নেমে দিনশেষে বিনা উইকেটে ১২০ রান করে ভারতীয়রা। যশ্বসী জয়সওয়াল ৬১ ও অভিমন্যু ঈশ্বরন ৫৩ রানে অপরাজিত আছেন। 

সকালে টস হেরে ব্যাট করতে নেমেই ভারতীয়দের তোপে পড়ে বাংলাদেশের ইনিংস। দ্বিতীয় ওভারেই জয়কে বোল্ড করে দেন সাইনি। তৃতীয় ওভারে জাকির হাসানকে উইকেটের পেছনে ক্যাচ বানান মুকেশ। সাবেক টেস্ট অধিনায়ক মুমিনুল হক অনেকদিন ধরেই রান খরায় ভুগছিলেন। এই ম্যাচেও ছন্দ পেলেন না  তিনি। এই বাঁহাতিকেও বোল্ড করেন মুকেশ।

টেস্ট দলের নিয়মিত আরেক ব্যাটার শান্তও ব্যর্থ। অবশ্য তিনি থিতু হয়ে গিয়েছিলেন। ৩৪ বলে ৪ বাউন্ডারিতে তার ১৯ রানের ইনিংস থামে সাইনির বলে।  পরের ওভারেই আতিত শেঠের মিডিয়াম পেসে কাবু অধিনায়ক মোহাম্মদ মিঠুন। ১৩ বলে কোন রান না করেই উইকেটের পেছনে ধরা দেন তিনি।

চরম বিপাকে থাকা পরিস্থিতি থেকে প্রতিরোধ গড়েন মোসাদ্দেক। জাকের আলি অনিককে নিয়ে আনেন ৩৭ রানের জুটি। কঠিন পরিস্থিতিতেও সাবলীল ছিলেন মোসাদ্দেক, রান আনছিলেন দ্রুত। জাকের মন দেন টিকে থাকায়। ৪৭ বল খেলে ৪ রান করে ভাঙে তার ধৈর্য। নতুন স্পেলে ফিরে সাইনি তুলে নেন এই কিপার ব্যাটসম্যানকে।

পরে তাইজুল ইসলামকে নিয়ে ইনিংস সর্বোচ্চ ৪৫ রানের জুটি পান মোসাদ্দেক। ভারতীয় স্পিনারদের তিনি খেলছিলেন বেশ ভালো। বড় শটে রান আনছিলেন সহজে। ফিফটিও পেয়ে যান অনায়াসে। তবে সেই স্পিনেই ধরা দেন তিনি। তার আগে ৪২ বলে ১২ করা তাইজুলকে তুলে জুটি ভাঙেন সৌরভ। সৌরভের বলে এগিয়ে এসে খেলতে গিয়ে উইকেটের পেছনে ধরা  দেন মোসাদ্দেক। রেজাউর রহমান রাজা ও সৈয়দ খালেদ আহমেদকেও দ্রুত এলবিডব্লিউ করে বাংলাদেশের 'এ' দলকে থামিয়ে দেন সৌরভ।

ব্যাটিংয়ের দুর্দশরা পর বোলিংয়েও হতাশা বাংলাদেশের। ভারত 'এ' দলের উদ্বোধনী জুটিই ভাঙতে পারেননি বোলাররা। 

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

বাংলাদেশ 'এ' প্রথম ইনিংস: ৪৫ ওভারে ১১২ ( জয় ১, জাকির ০, শান্ত ১৯, মুমিনুল ৪, মিঠুন ০, জাকের ৪, মোসাদ্দেক ৬৩, তাইজুল ১২, নাঈম ৬*, রাজা ০, খালেদ ০; মুকেশ ২/২৫, সাইনি ৩/২১, আতিত ১/২৩, সৌরভ ৪/২৩, জয়ন্ত ০/২০) 

ভারত 'এ' প্রথম ইনিংস:  ৩৬ ওভারে ১২০ ( জয়সওয়াল ৬১*, ঈশ্বরণ ৫৩; খালেদ ০/২৬, রাজা ০/২৮, তাইজুল ০/৩৮, নাঈ ০/১৪, মোসাদ্দেক ০/১০) 

Comments

The Daily Star  | English
Bank Asia plans to acquire Bank Alfalah

Bank Asia moves a step closer to Bank Alfalah acquisition

A day earlier, Karachi-based Bank Alfalah disclosed the information on the Pakistan Stock exchange.

34m ago